হত্যা মামলায় ৭ আসামির স্বীকারোক্তি

প্রকাশিত:বুধবার, ২৪ জুলা ২০১৯ ০৩:০৭

হত্যা মামলায় ৭ আসামির স্বীকারোক্তি

ঢাকার ধামরাইয়ে একই গ্রামে পৃথক দুটি হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার সাত আসামি হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। পরে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়।

মঙ্গলবার রাতে ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা আদালতে আসামিদের স্বীকারোক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, গত ২১ জুলাই দিবাগত রাতে ধামরাইয়ের কৃষ্ণনগর গ্রামে পরকীয়ার জেরে প্রবাস ফেরত আবুল কালাম আজাদ (৩১) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এঘটনায় স্বামী ও স্ত্রীসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা পুলিশকে জানায়, প্রবাস ফেরত আবুল কালামের সাথে একই গ্রামের মুদি দোকানী সাইফুল ইসলামের (৩৫) স্ত্রীর পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে বিষয়টি সাইফুল জানার পর স্ত্রী রোজিনাকে (২৫) দিয়ে কৌশলে আজাদকে গভীর রাতে নিজ বাড়িতে ডেকে আনেন। এরপর সাইফুল ও তার সহযোগীরা আজাদকে পিটিয়ে দিয়ে হত্যা করে ‘ছেলেধরা’ গুজব ছড়ায়।

এঘটনায় গ্রেপ্তারকৃতদের মঙ্গলবার আদালতে পাঠানো হলে তারা হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয় বলে জানান ওসি।

মামলার বিষয়টি উল্লেখ করে ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, এঘটনায় নয়জনের নাম উল্লেখ করেন একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের বাবা ফজর আলী। এদের মধ্যে তিনজন পলাতক রয়েছে বলেও জানান তিনি।

অপরদিকে ধামরাইয়ের আটিমাইঠান গ্রামে শরিফুল ইসলাম (২৬) নামে এক ব্যক্তিকে শ্বাসরোধ করে হত্যার ঘটনায় তার স্ত্রী লিপি আক্তার (২৩) হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে বলে জানান ওসি।

এই সংবাদটি 1,225 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •