হাতিয়ায় অস্বাভাবিক জোয়ারে ২০টি গ্রাম প্লাবিত

প্রকাশিত:রবিবার, ২৭ সেপ্টে ২০২০ ০৯:০৯

হাতিয়ায় অস্বাভাবিক জোয়ারে ২০টি গ্রাম প্লাবিত

হাতিয়া প্রতিনিধি :
দূর্যোগপূর্ন আবহাওয়ার কারনে ৩নং স্থানীয় সতর্ক সংকেত বিরাজ করছে। এতে অস্বাভাবিক জোয়ারে নোয়াখালী দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার ৪টি ইউনিয়নের ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়। ফলে এসব ইউনিয়নে বসবাসকরা প্রায় ১০ হাজার মানুষের দূর্ভোগ চরমে উঠেছে।
জানাযায়, গত তিনদিন ধরে অব্যাহত অস্বাভাবিক জোয়ারে হাতিয়ার সূখচর, নলচিরা , চরঈশ্বর ও তমরদ্দি ইউনিয়নের ২০টি গ্রাম ৫ফুট উচ্চতায় পানিতে প্লাবিত হয়। এতে ভেসে গেছে এসব এলাকার নিন্মাঞ্চলে বসবাসকরা মানুষের ঘরবাড়ী, গবাধিপশু, পুকুরের মাছ ও ফসলি জমি। গত শুক্রবার থেকে প্রতিদিন দিনে ও রাতে জোযারের পানিতে অধিকাংশ সময় পানিতে তলিয়ে থাকছে এসব এলাকা। অনেকের দৈনন্দিন রান্নার কাজ ব্যহত হওয়ায় অনাহারে অর্ধাহারে দিন যাপন করতে দেখা যায়।
উপজেলার চরঈশ্বর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কামরুল ইসলাম মহব্বত জানান, আম্পানে আমার এলাকার কলেজ গেইট থেকে মাইজচা মার্কেট রাস্তাটি ভেঙ্গে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। এলাকাবাসীর সহযোগীতায় তা মেরামত করে চলাচলের উপযোগী করা হয়েছে। গত রাতের অস্বাভাবিক জোয়ারে তা আবার ভেঙ্গে যায়। একই অবস্থা সূখচর ও নলচিরা ইউনিয়নে।
সূখচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন জানান, গত একমাস পূর্বের জোয়ারে ইউনিয়নের সকল রাস্তা ভেঙ্গে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। তা এখনো মেরামত করা হয়নি। এখন আবার জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে। কেউ কেউ ঘরবাড়ী মেরামত করেছে কেউ প্রস্তুতি নিচ্ছে এ অবস্থায় পুনরায় পুরো সূখচর ৫-৬ফুট পানির নিছে তলিয়ে গেছে। একাধিকবার ভেড়ীবাঁধ মেরামতের জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডকে বলার পরও কাজ হচ্ছে না।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রেজাউল করিম জানান, জোয়ারের পানিতে অনেক এলাকা তুলিয়ে গেছে । আমরা এটি প্রতিবেদন আকারে উধর্¦তন কর্তপক্ষকে জানিয়েছি।

এই সংবাদটি 1,228 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •