Month: October 2018

মির্জা ফখরুলের সঙ্গে বৈঠক করেছেন কাদের সিদ্দিকী

মির্জা ফখরুলের সঙ্গে বৈঠক করেছেন কাদের সিদ্দিকী

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে বৈঠক করেছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী। মঙ্গলবার (৩০ অক্টোবর) রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে কাদের সিদ্দিকীর বাসভবনে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় দেড় ঘণ্টার চলমান বৈঠকে সংলাপ ও সর্বশেষ রাজনৈতিক পরিস্থিতির আলোকে করণীয় বিষয়ে দুই নেতার মধ্যে আলোচনা হয়। বিএনপির পক্ষ থেকে মির্জা ফখরুল জাতীয় ঐক্যের সাথে থাকতে কাদের সিদ্দিকীর প্রতি আহ্বান জানান। এছাড়া তিনি বঙ্গবীরের কাছে জাতীয় ঐক্যের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য তুলে ধরেন। একটি সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কী করতে চায় বিএনপি, তাও তুলে ধরেন মির্জা ফখরুল। কাদের সিদ্দিকী জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের আজ তার বাসায় নৈশভোজের দাওয়াত দেয়। এর আগে বেলা ১২ টায় মতিঝিল অফিসে সংবাদ সম্মেলন করেন বঙ্গবীর।  
যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আকায়েদ উল্লাহ’র বিচার শুরু

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আকায়েদ উল্লাহ’র বিচার শুরু

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটনে সন্ত্রাসী হামলার চেষ্টার অভিযোগে আটক আকায়েদ উল্লাহ’র বিচার শুরু হয়েছে। তার বিরুদ্ধে গত বছর একটি সাবওয়ে স্টেশনের কাছে পাইপ বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেকে উড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগ এনেছে কর্তৃপক্ষ। তবে মঙ্গলবার ম্যানহাটনের আদালতে আকায়েদের আইনজীবীরা জানিয়েছেন, জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের সঙ্গে তার কোনও সংশ্লিষ্টতা নেই। তারা তাকে একজন হতাশ ব্যক্তি হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। ২৮ বছরের আকায়েদ উল্লাহ ব্রুকলিনের একজন সাবেক ক্যাব ড্রাইভার। আইএসের হয়ে আত্মঘাতী হামলা চেষ্টার দায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে তার। আড়াই সপ্তাহ ধরে তার বিচারকাজ চলবে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। আদালতে দেওয়া সূচনা বক্তব্যে আকায়েদ উল্লাহ’র আইনজীবী ওই বিস্ফোরণে তার মক্কেলের জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেননি। তবে আকায়েদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে তালিকাভুক্ত জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস’কে সমর্থনের যে অভিয
জন্মসূত্রে নাগরিকত্ব বাতিলের পরিকল্পনায় ট্রাম্প কতটা সফল হবেন?

জন্মসূত্রে নাগরিকত্ব বাতিলের পরিকল্পনায় ট্রাম্প কতটা সফল হবেন?

নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে জন্মসূত্রে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব পাওয়ার চলতি নিয়ম বাতিলের পরিকল্পনা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জনপ্রিয় ওয়েবসাইট এক্সিওস এর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন। কিন্তু তিনি কি তা করতে পারেন? এই প্রশ্ন অনেকে তুলেছেন। ট্রাম্প বলেন, ‘আমেরিকার নাগরিক নন, এমন যে কেউ এসে সন্তান জন্ম দিলেই সেই সন্তান আমেরিকার নাগরিকত্ব দাবি করতে পারে। এই নিয়ম অত্যন্ত হাস্যকর, এটি বন্ধ হওয়া উচিত।’তবে এটি দেড়শ বছরের পুরোনো নীতি। তাতে বলা হয়েছে, আমেরিকার মাটিতে জন্মগ্রহণ করলেই দেশটির নাগরিকত্ব পাবে। এই ব্যবস্থা পরিবর্তনের জন্য সংবিধান সংশোধন প্রয়োজন বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন।ট্রাম্পের বক্তব্য হচ্ছে, তার আইন বিশেষজ্ঞরা তাকে নিশ্চিত করেছেন যে, তেমন কোনও সংশোধনীর প্রয়োজন নেই। নির্বাহী আদেশের মাধ্যমেই এটা করা সম্ভব। প্রেসিডেন্ট তার একক ক্ষমতাবলে এমন পদক্
‘বাংলাদেশ : কামিং টু আমেরিকা’

‘বাংলাদেশ : কামিং টু আমেরিকা’

নিউইয়র্ক থেকে : মিশিগান অঙ্গরাজ্যের বাংলা টাউনে উদ্বোধন হল বাংলাদেশের লাল-সবুজে আঁকা সর্ববৃহৎ ম্যুরাল ‘বাংলাদেশ ঃ কামিং টু আমেরিকা’। বাংলা টাউন খ্যাত হামট্রামিক ও ডেট্রয়েট শহরের সীমানায় বিশাল দেয়াল জুড়ে লাল সবুজে বাংলাদেশ। এ টাউনের প্রবেশ দ্বারে চোখ আটকে যাবে বিশাল এ চিত্রকর্মে। আর এর মধ্যদিয়েই বহুজাতিক এ সিটিতে ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশের জয়গান ধ্বনিত হবে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে। এ টাউনের এক তৃতীয়াংশ অধিবাসীই বাংলাদেশি। কয়েক দশকে এ শহরে গড়ে উঠেছে বাংলাদেশি অভিবাসীদের আবাস। শহরে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, দোকানপাট গড়ে তুলেছেন বাংলাদেশিরা। স্থানীয় অর্থনীতি ও রাজনীতিতে বাংলাদেশীদের অংশগ্রহন বাড়লেও বাংলার এ ম্যুরাল বৃহৎ জনগোষ্ঠীর কাছে বাংলাদেশি অভিবাসীদের খুব ভালোভাবেই উপস্থাপন করবে। অভিবাসন বিরোধী সরকারের সময় আঁকা এ বিশাল ম্যুরাল নিজেদের অধিকারের, মর্যাদার, ও
ইউরোপে যাওয়ার পথে নিখোজ নবীগঞ্জের টগবগে এই যুবক

ইউরোপে যাওয়ার পথে নিখোজ নবীগঞ্জের টগবগে এই যুবক

মুজাহিদ চৌধুরী, নবীগঞ্জ :সুন্দর ভবিষ্যত ও সোনালি দিনের স্বপ্ন নিয়ে অবৈধভাবে ইউরোপ যাওয়ার নিখোজ হয়েছেন নবীগঞ্জের আবু তাহের নামে এক যুবক। ইউরোপ যাওয়ার পর ৫ দিন অতিবাহিত হলেও কোন খোজ না পেয়ে নিহতের আশংকা করছেন তার পরিবারের লোকজন। সে নবীগঞ্জ উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের মুড়ার পাঠলী গ্রামের আতাব উল্লার পুত্র। সোমবার দুপুরে তার বাড়িতে খবর আসে সড়ক দূর্ঘটনায় সে মারা গেছে। মূহুর্তেই এমন খবর ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। তার বাড়িতে শুরু হয় কান্না ও মাতম। সরেজমিনে তার পিতাসহ আত্মীয় স্বজনদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, স্বপ্নের দেশ ফ্রান্সে যাবে এমন স্বপ্ন নিয়ে গত ১০ অক্টোবর বাড়ি থেকে রওয়ানা দেয় সে। একই উপজেলার দেওপাড়া গ্রামের দালাল ফজলু মিয়ার মাধ্যমে ৫ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ওই দিন বিকেল ৪ টায় একটি ফ্লাইটে ইরানে যায় আবু তাহের। ইরানে কয়েক দিন থাকার পর গত বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় আরেক দালা
গারো পাহাড়ে মাল্টা ও লেবু চাষ

গারো পাহাড়ে মাল্টা ও লেবু চাষ

ভারত সীমান্তঘেঁষা শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার গারো পাহাড়ি অঞ্চলের মাটি সুনিষ্কাশিত, উর্বর, মধ্যম থেকে দোঁ-আশ এবং এখানকার আবহাওয়া শুষ্ক ও উষ্ণ হওয়ায় এখানে সাইট্রাস (লেবু) জাতীয় ফল চাষের প্রচুর সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা। আর এ জাতীয় ফল বিশেষ করে লেবু ও মাল্টা চাষ করে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার পাশাপাশি বিপুল পরিমাণ অর্থ আয় ও একইসঙ্গে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা সম্ভব। গত তিন বছর আগে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সাইট্রাস ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় লেবু ও মাল্টা চাষ করে সফলতা পেয়েছেন উদ্যোক্তা আব্দুল বাতেন। তিনি হলদীয়া গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে। পেশায় সরকারি গাড়ি চালক। আরো নতুন উদ্যোক্তা তৈরি হলে এবং সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা পাওয়া গেলে এ অঞ্চলে লেবু ও মাল্টা চাষে বিপ্লব ঘটবে। একই সঙ্গে এ অঞ্চল অর্থনৈতিক ভাবে সমৃদ্ধ হওয়ার নতুন দ্বার উন্মোচন হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ
বাঘার পদ্মায় ফের ইলিশ ধরা শরু ঃ জেলেদের মধ্যে কর্মতৎপরতা

বাঘার পদ্মায় ফের ইলিশ ধরা শরু ঃ জেলেদের মধ্যে কর্মতৎপরতা

রাজশাহীর বাঘার পদ্মায় গতকাল সোমবার থেকে ইলিশ ধরা ২২ দিন নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়েছে। তারপর থেকে জেলেরা জাল নৌকা নিয়ে ইলিশ ধরতে ফের পদ্মা নদীতে শরু করেছে। ফলে জেলেদের মধ্যে প্রান চাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। ৬ অক্টোবর রাত ১২টা থেকে শরু করে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত বাঘার পদ্মা নদীতে ২৬ কিলোমিটার ২২ দিন মাছ ধরা নিষেধাজ্ঞা ছিল। ফলে এ সময় মাছ ধরা সংরক্ষণ, ক্রয়, বিক্রয় পরিবহন, বাজারজাতকরণ নিষিদ্ধ ছিল। ফলে দীর্ঘদিন বাছ ধরা থেকে জেলেরা বিরত ছিলেন। চকরাজাপুর গ্রামের জেলে ওলিউর রহমান বলেন, নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার পর বর্তমানে পদ্মা নদীতে ছোট বড় দিয়ে অর্ধশতাধিক জেলে মাছ শিকার করছেন। বর্তমানে তিনি পদ্মা নদীর মধ্যে প্লেনপাড়া এলাকায় মাছ শিকার করছেন। তিনি সকাল থেকে ১০ কেজি ইলিশ ধরেছেন। এছাড়া সবাই মিলে প্রায় সাড়ে চার থেকে পাঁচ মন ইলিশ ধরেছেন। বাঘা উপজেলা মৎস্য অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় মোট এক হাজার ৩০৭ জন জেলে রয়েছে। এরমধ্য
কলকাতায় বাংলাদেশ বইমেলা শুরু ২ নভেম্বর

কলকাতায় বাংলাদেশ বইমেলা শুরু ২ নভেম্বর

কলকাতায় বাংলাদেশ বইমেলা শুরু হচ্ছে ২ নভেম্বর শুক্রবার থেকে। ৯ দিনব্যাপী এই মেলা চলবে ১১ নভেম্বর পর্যন্ত। মেলা এবারেরও বসবে কলকাতার রবীন্দ্র সদনের কাছে ঐতিহ্যবাহী মোহরকুঞ্জ প্রাঙ্গণে। বাংলাদেশে প্রকাশিত বিভিন্ন বই নিয়ে প্রতিবছর আয়োজিত এই বইমেলা এবার ৮ম বারের মতো আয়োজিত হচ্ছে। এবারের বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায়, বাংলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান। সভাপতিত্ব করবেন কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের উপ-হাইকমিশনার তৌফিক হাসান। থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের শিল্পসাহিত্য মহলের অনেকেই। প্রতিদিন এই মেলা চলবে বেলা ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। তবে শনি ও রোববার মেলা চলবে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত। বাংলাদেশের বিভিন্ন শীর্ষস্থানীয় সৃজনশীল প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান এই মেলায় অংশগ্রহণ
প্রিয়াঙ্কার বিয়েতে আমন্ত্রিত নন শাহরুখ!

প্রিয়াঙ্কার বিয়েতে আমন্ত্রিত নন শাহরুখ!

ডিসেম্বরেই বিয়ে করতে যাচ্ছেন নিক জোনাস এবং প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। রাজস্থানের উমেদ ভবনে বসবে নিক-প্রিয়াঙ্কার বিয়ের আসর। তবে এই বিয়েতে কারা আমন্ত্রিত হবেন, সেটা নিয়ে বলি মহলে চলছে তুমুল জল্পনা। ভারতীয় সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, বিয়ের পিঁড়িতে বসে কোনওরকম অস্বস্তির মধ্যে পড়তে চান না প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। আর সেই কারণেই প্রাক্তন প্রেমিকদের বিয়েতে নিমন্ত্রণ দেবার তালিকা থেকে ছেটে ফেলতে চাইছেন এ অভিনেত্রী। আর সে কারণেই প্রিয়াঙ্কার বিয়ের আমন্ত্রণপত্র থেকে বাদ পড়তে পারেন অক্ষয় কুমার, শাহিদ কাপুর, হরমন বাওয়েজাদের মতো তারকারা। এমনকি এ ক্ষেত্রে বাদ পড়তে পারেন শাহরুখ খানও। শাহরুখের ব্যাপারে স্পষ্ট করে কিছু না জানা গেলেও, নিক-প্রিয়াঙ্কার বিয়েতে আমন্ত্রিতদের তালিকা নিয়ে নাকি ইতিমধ্যেই ঝাড়াইবাছাই শুরু করে দিয়েছে চোপড়া পরিবার। বিয়ের আসরে বসে মেয়েকে যাতে কোনওভাবে অস্বস্তিকর পরিবেশের মধ্যে না পড়তে হয়, তার জন
কোনও সংলাপ ব্যর্থ হয় না, সম্ভাবনার সৃষ্টি হয়: আ স ম রব  ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ১৬ সদস্য যারা যাচ্ছেন

কোনও সংলাপ ব্যর্থ হয় না, সম্ভাবনার সৃষ্টি হয়: আ স ম রব ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ১৬ সদস্য যারা যাচ্ছেন

ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ১৬ সদস্যের প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সংলাপ করতে যাবেন বলে জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব। তিনি বলেন, ‘কোনও সংলাপ ব্যর্থ হয় না। একটি সম্ভাবনার সৃষ্টি হয়।’ মঙ্গলবার (৩০ অক্টোবর) মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন। আ স ম রব বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংলাপে ঐক্যফ্রন্টের সব দলের প্রতিনিধি থাকবেন। আজ প্রধানমন্ত্রী সংলাপের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। এর মাধ্যমে আলোচনা হচ্ছে হবে এবং চলবে। ’ আ স ম রব আরও বলেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে আমাকে মুখপাত্র করা হয়েছে। ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করা ছাড়া কেউ ঐক্যফ্রন্টের কথা বলবে না।’ তিনি আরও বলেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন যাতে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হতে পারে, সব