Day: October 18, 2018

বিদায় রুপালি গিটারের ফেরিওয়ালা আইয়ুব বাচ্চু

বিদায় রুপালি গিটারের ফেরিওয়ালা আইয়ুব বাচ্চু

নীল বেদনা নিয়ে চলে গেলেন রুপালি গিটারের ফেরিওয়ালা। দূরে, বহুদূরে। দরজার ওপাশে। তার গানের কথাই যেন সত্য হলো-এই রুপালি গিটার ফেলে একদিন চলে যাবো দূরে, বহু দূরে। কে জানতো সেই একদিন এত দ্রুত চলে আসবে। হঠাৎ করেই তার এই চলে যাওয়া। গতকাল সকাল সাড়ে ৮টায় মগবাজারের নিজ বাসায় অসুস্থ হয়ে পড়েন গিটার লিজেন্ড, কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী, ব্যান্ড সংগীতের বটবৃক্ষ আইয়ুব বাচ্চু। এরপর দ্রুত রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি... রাজিউন)। চিকিৎসকরা তাকে সকাল ১০টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন। তার বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর। আজ জাতীয় ঈদগাহে বাদ জুমা প্রথম জানাজা শেষে তার লাশ নিয়ে যাওয়া হবে চট্টগ্রামে। সেখানে দ্বিতীয় জানাজা শেষে আগামীকাল পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে তাকে। কিংবদন্তি এই সংগীতশিল্পীর মৃত্যুতে সংস্কৃতি অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে আসে। প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী
এক নজরে আইয়ুব বাচ্চু

এক নজরে আইয়ুব বাচ্চু

জন্ম: ১৬ই আগস্ট ১৯৬২, চট্টগ্রাম মৃত্যু: ১৮ই অক্টোবর ২০১৮, ঢাকা সংগীত জীবন শুরু: ১৯৭৭ প্রথম গান: হারানো বিকেলের গল্প ব্যান্ড: প্রথম ব্যান্ড ফিলিংস (১৯৭৮)। এরপর যোগ দেন সোলসে। ১৯৮০ থেকে পরবর্তী একদশক এই ব্যান্ডে যুক্ত ছিলেন। সোলস ছাড়ার পর ১৯৯১ সালে নিজে গঠন করেন নতুন ব্যান্ড এলআরবি। প্রথমে এলআরবির পূর্ণ অর্থ ছিল লিটল রবিনস ব্যান্ড। পরে এই নাম বদলে করা হয় লাভ রানস ব্লাইন্ড। প্রথম একক অ্যালবাম: রক্তগোলাপ (১৯৮৬) এলআরবির প্রথম অ্যালবাম: এলআরবি (১৯৯২) সংগীত জীবন : ব্যান্ড অ্যালবাম এলআরবি (১৯৯২), সুখ (১৯৯৩), তবুও (১৯৯৪), ঘুমন্ত শহরে (১৯৯৫), ফেরারী মন (১৯৯৬), স্বপ্ন (১৯৯৬), আমাদের বিস্ময় (১৯৯৮), মন চাইলে মন পাবে (২০০০), অচেনা জীবন (২০০৩), মনে আছে নাকি নেই, (২০০৫), স্পর্শ (২০০৮), যুদ্ধ (২০১২)। একক অ্যালবাম: রক্তগোলাপ (১৯৮৬), ময়না (১৯৮৮), কষ্ট (১৯৯৫), সময় (১৯৯৮), একা (১৯৯৯), প্রেম তু
নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র আরেকটি কমিটি : সভাপতি দিদার, সেক্রেটারি কামরু

নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র আরেকটি কমিটি : সভাপতি দিদার, সেক্রেটারি কামরু

প্রকৃত ব্যবসায়ীদের কাছে জেবিবিএ (জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশী বিজনেস এসোসিয়েশন)’র নেতৃত্ব ফিরিয়ে আনার অভিপ্রায়ে বিশেষ এক সাধারণ সভায় ১৯ সদস্যের নতুন কার্যকরী কমিটি গঠন করা হলো। এর সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন যথাক্রমে আবুল ফজল দিদারুল ইসলাম এবং মো. জামান কামরু। ১৭ অক্টোবর বুধবার সন্ধ্যায় পালকি পার্টি সেন্টারে সর্বস্তরের ব্যবসায়গণের এ সভায় জেবিবিএর পরিচালনা পর্ষদ এবং উপদেষ্টা পরিষদের তালিকাও চ’ড়ান্ত করা হয় ব্যাপক আলোচনা-পর্যালোচনার ভিত্তিতে। উল্লেখ্য, উত্তর আমেরিকায় বাংলাদেশী তথা দক্ষিণ এশিয়ানদের বাণিজ্যিক রাজধানী হিসেবে খ্যাত নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের এই সংগঠনের নেতৃত্বে স্বচ্ছ্বতা ও জবাবদিহিতা পুন:প্রতিষ্ঠার সংকল্প ব্যক্ত করেন নবগঠিত কমিটির কর্মকর্তারা। কার্যকরী কমিটির অপর কর্মকর্তারা হলেন : সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট-মুনসুর এ চৌধুরী এবং ভাইস প্রেসিডেন্