Day: October 20, 2018

বাংলাদেশ ৪১, জিম্বাবুয়ে ২৮

বাংলাদেশ ৪১, জিম্বাবুয়ে ২৮

বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ শুরু হচ্ছে কাল। মিরপুর শেরে বাংলা জাতয়ি স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর আড়াইটায়। এই ম্যাচটি হবে বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ৭০তম ওয়ানডে ম্যাচ। এর আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশ যে ৬৯টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে তার মধ্যে ৪১টি ম্যাচ জিতেছে। বাকি ম্যাচগুলোতে জয় পেয়েছে জিম্বাবুয়ে। ১৯৯৭ সালে প্রথমবারের মতো জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ। ওই ম্যাচে বাংলাদেশ হেরেছিল ৪৮ রানে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ১০টি ওয়য়ানডে ম্যাচে হারে বাংলাদেশ। ১১ ও ১২তম ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিল। ১৩তম ম্যাচে জয় পেয়েছিল টাইগাররা। ২০০৪ সালে হারারেতে হওয়া ওই ম্যাচে বাংলাদেশ জয় পায় ৮ রানে। এই একটি ম্যাচে জয় পাওয়ার পর টানা চার ম্যাচে হারে বাংলাদেশ। কিন্তু পরে টানা তিনটি জয় পায় টাইগাররা। এরপর থেকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আধিপত্য বিস্তার করে একের পর এ
‘ক্ষমতায় গেলে ৭ দিনের মধ্যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল’

‘ক্ষমতায় গেলে ৭ দিনের মধ্যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল’

বিএনপি ক্ষমতায় গেলে ৭ দিনের মধ্যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করা হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল এর আয়োজনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ২১ শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় প্রত্যাহারের দাবিতে এক মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন। মওদুদ আহমদ বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে একের পর এক কালাকানুন তৈরী করছে। সর্বশেষ ডিজিটার নিরাপত্তা আইন তৈরী করেছে। এই আইনের মাধ্যমে গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করা হয়েছে। এখন সাংবাদিকরা স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারবেন না। আদালতের কোন অনুমতি ছাড়া পুলিশ কোন সংবাদ পত্রের অফিসে গিয়ে তল্লাসী চালাতে পারবেন। তিনি বলেন, সরকার পতনের আন্দোলনের জন্য এতো বড় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট দেখে আজকে সরকারের গাত্রদাহ শুরু হয়েছে। তারা ভাবছে এতো বড় ঐক্যফ্রন্ট কি করে হল
উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে শিক্ষকদের সমর্থন চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে শিক্ষকদের সমর্থন চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে উন্নয়নের বর্তমান ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখার স্বার্থে আগামী নির্বাচনে জয়লাভের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের সহযোগিতা প্রত্যাশা করেছেন। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমি আপনাদের সহযোগিতা চাই, যাতে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের চলমান গতি বজায় থাকে এবং আমাদের শুরু করা উন্নয়ন কর্মকান্ডগুলো শেষ করা যায়। কারণ, ২০০১ সালে ক্ষমতায় আসতে না পারার কারণে আমাদের উন্নয়ন কর্মকান্ডগুলো পরবর্তী বিএনপি-জামায়াত সরকার বন্ধ করে দিয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ফেডারেশন (এফবিইউটিএ) আয়োজিত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সম্মেলনে প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন। তিনি বলেন, নির্বাচনে জনগণ যদি ভোট দেয় তাহলে হয়তো নির্বাচিত হয়ে আসবো। আর যদি নাও দেয় তাহলেও কোন আফসোস থাকবে না কারণ, বাংলাদেশে উন্নয়নের যে ধারাটা আমরা শুরু করেছি

ঋণখেলাপির সংখ্যা বেড়েছে ১০৯ গুণ

বিচার না হওয়া, সীমাহীন দুর্নীতি এবং ক্ষমতার অপব্যবহার কারণে প্রতি বছর বাড়ছে ঋণখেলাপির সংখ্যা ও পরিমাণ। চলতি বছরের জুন পর্যন্ত বাংলাদেশে ঋণখেলাপির সংখ্যা ছিল দুই লাখ ৩০ হাজার ৬৫৮ জন। আর ১৯৯৭ সালে দেশে ঋণখেলাপির সংখ্যা ছিল মোট দুই হাজার ১১৭ জন। অর্থাৎ ২০ বছরের ব্যবধানে দেশে ঋণখেলাপির সংখ্যা বেড়েছে ১০৯ গুণ। সম্প্রতি সংসদে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ঋণখেলাপির তথ্য প্রকাশ করেছে। এ সময় তিনি বলেন, চলতি বছরের জুন পর্যন্ত বাংলাদেশে ঋণখেলাপির সংখ্যা ছিল দুই লাখ ৩০ হাজার ৬৫৮ জন; তাদের কাছে অনাদায়ী অর্থের পরিমাণ এক লাখ ৩১ হাজার ৬৬৬ কোটি টাকা। আর ১৯৯৭ সালে তৎকালীন অর্থমন্ত্রী শাহ এমএস কিবরিয়া সংসদে ঋণখেলাপির তথ্য প্রকাশ করেছিলেন। তাদের দেখা যায়, সেই সময়ের দেশে মোট দুই হাজার ১১৭ জন ঋণখেলাপি ছিল। আর সে সময় খেলাপি ঋণের পরিমাণ ছিল ২১ হাজার কোটি টাকা। এটি বিস্ময়কর বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন
ঐক্যবদ্ধ থাকলে মাদরাসা শিক্ষকদের সকল দাবি-দাওয়া পূরণ হবে -এ এম এম বাহাউদ্দীন

ঐক্যবদ্ধ থাকলে মাদরাসা শিক্ষকদের সকল দাবি-দাওয়া পূরণ হবে -এ এম এম বাহাউদ্দীন

বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের সাথে মাদরাসা শিক্ষকরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে সকল দাবি-দাওয়া পূরণ হবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির সভাপতি এ এম এম বাহাউদ্দীন। তিনি বলেন, অতীতে মাদরাসা শিক্ষকদের অনেক দাবি-দাওয়া পূরণ হয়েছে। রাস্তায় কোন আন্দোলন ছাড়াই ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়, মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর, শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিরসন, স্কুল-কলেজের ন্যায় মাদরাসা শিক্ষকদের মর্যাদা, ইবতেদায়ী নীতিমালা ও নিয়োগ কাঠামো হয়েছে। এগুলো সবই হয়েছে জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের অধীনে সকল মাদরাসা শিক্ষক ঐক্যবদ্ধ থাকার কারণে। এখনো যে দাবি-দাওয়াগুলো আছে সকলে ঐক্যবদ্ধ থাকলে আগামী দিনেও তা পূরণ হবে কোন আন্দোলন ছাড়াই। শনিবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর মহাখালীস্থ গাউসুল আজম কমপ্লেক্সে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। দেশের মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের পেশাজীবী অরাজনৈতিক সংগঠন বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীন জাতীয় নেতৃবৃন্দদের নি

সুষ্ঠু নির্বাচন হলে সরকারের একজন মন্ত্রীও জিততে পারবেন না -আলোচনা সভায় ব্যারিস্টার মওদুদ

দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে বর্তমান সরকারের একজন মন্ত্রীও জিততে পারবেন না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ। তিনি বলেন, সরকারের মন্ত্রীরা নিজেরাও জানে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তাদের একজনও জিততে পারবেন না। এজন্য সরকার এককভাবে নির্বাচন করতে চায়। তারা সুষ্ঠু নির্বাচন করতে চান না। আর তিন মাসও নেই, কিন্তু সরকারের আচরণ দেখে বোঝা যায় তারা আজকে কতটা ভীত। অথচ সরকারের উচিত ছিল নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করা। কিন্তু উল্টো প্রমাণ করেছে, তারা একক নির্বাচন করতে চায়। শুধু এই লক্ষ্যে তারা কাজ করছে। সরকারই ইচ্ছেকৃতভাবে পরিবেশ নষ্ট করছে। গতকাল (শুক্রবার) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ইয়ুথ ফোরাম আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, সময় কম, অল্প সময়ের মধ্যে এই সরকারের বাঁধ ভাঙতে হবে। মাঠে নামতে হবে যাতে সরকার আলোচনায় বসতে বাধ্য হয়। তিনি বলেন, সরকার মনে