Author: banglanewsus.com

রাজশাহীতে পরিবার পরিকল্পনা সেবার বেহাল দশা

রাজশাহীতে পরিবার পরিকল্পনা সেবার বেহাল দশা

ডেস্ক রিপোর্ট :: রাজশাহীতে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর পরিবার পরিকল্পনা সেবা কার্যক্রমে বেহাল দশা বিরাজ করছে। জেলার ৪৫ ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে (এফডব্লিউসি) নেই পর্যাপ্ত জনবল। পরিচালনা কমিটিরও খবর নেই। ফলে সেবা নিতে গিয়ে ফিরে যেতে হচ্ছে অনেককেই। পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতর বলছে, জেলায় তাদের কার্যক্রম সন্তোষজনক। গত এক দশকে সব সূচতেই তাদের উন্নতি হয়েছে। সংকট সত্ত্বেও সেবার পরিধি বেড়েছে। ২ হাজার ৪০৭ বর্গকিলোমিটার আয়তনের রাজশাহী জেলায় মোট জনসংখ্যা ২৮ লাখ ৩৬ হাজার ৬১৩ জন। জেলা পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের হিসেবে, গত বছরের ডিসেম্বরে জেলায় সক্ষম দম্পতি ছিলেন ৬ লাখ ১৩ হাজার ২১০ জন। এদের মধ্যে ৫ লাখ ৪ হাজার ২০৫ জন আসেন পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সেবার আওতায়। শতকরা হিসেবে যা ৮২ শতাংশের উপরে। সূত্র জানায়, জেলার ৭২টি ইউনিয়নের মধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র রয়েছে ৪৫টিতে। এর মধ্যে ভা
পিকআপের ধাক্কায় স্কুলছাত্রীর পা বিচ্ছিন্ন, ক্ষোভে সড়ক অবরোধ

পিকআপের ধাক্কায় স্কুলছাত্রীর পা বিচ্ছিন্ন, ক্ষোভে সড়ক অবরোধ

ডেস্ক রিপোর্ট :: যশোরের নাভারনে বুধবার সকালে স্কুলভ্যানে পল্লী বিদ্যুতের পিকআপের ধাক্কায় মোফতাহুল জান্নাত নিপা নামে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। দুর্ঘটনায় তার একটি পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে এক ঘণ্টা অবরোধ করে রাখে ও একটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। আহত নিপা নাভারন বুরুজবাগান গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শিক্ষার্থীবাহী স্কুলভ্যানটি স্কুলের দিকে যাওয়ার সময় পল্লী বিদ্যুতের একটি পিকআপ সজোরে ধাক্কা দিলে স্কুলভ্যানটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। এ সময় মোফতাহুল জান্নাত নিপা নামে ওই শিক্ষার্থীর এক পা মারাত্মকভাবে জখম হয়। পুলিশ জানায়, একটি ভ্যানে চড়ে তিন ছাত্রী স্কুলে আসছিল। এ সময় যশোর থেকে দ্রুত গতিতে আসা পল্লী বিদ্যুতের একটি পিকআপ ভ্যান ছাত্রীদের বহনকারী ভ্যানে ধাক্কা দেয়। এতে তারা ভ্যান থেকে
জাজিরা পৌঁছেছে পদ্মা সেতুর নবম স্প্যান

জাজিরা পৌঁছেছে পদ্মা সেতুর নবম স্প্যান

ডেস্ক রিপোর্ট :: শরীয়তপুরের জাজিরার নাওডোবা প্রান্তে পৌঁছেছে পদ্মা সেতুর নবম স্প্যান। বুধবার দুপুর ১২টার দিকে স্প্যানটি জাজিরা প্রান্তে এসে পৌঁছায়। আগামীকাল বৃহস্পতিবার পদ্মা সেতুর ৩৪ ও ৩৫ নম্বর পিলারের ওপর স্প্যানটি বসানো হবে। এর ফলে দৃশ্যমান হবে সেতুর ১৩৫০ মিটার (১.৩৫ কিলোমিটার)। পদ্মা সেতু প্রকল্পের উপ-সহকারী প্রকৌশলী হুমায়ূন কবির জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মাওয়ার কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে নবম স্প্যানটি প্রস্তুত করে রাখা হয়েছিল। কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে (সুপার স্ট্রাকচার) ‘৬ডি’ ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্য ও তিন হাজার ১৪০ টন ওজনের স্প্যানটি নিয়ে বুধবার সকাল ৮টা ৫৫ মিনিটে জাজিরার উদ্দেশে রওনা হয় তিন হাজার ৬০০ টন ধারণক্ষমতার ক্রেন ‘তিয়ান ই’। বাংলানিউজ ইউএস ডেস্ক /এস
এখনও কাপড়ে তনুর গন্ধ খুঁজে ফেরেন মা

এখনও কাপড়ে তনুর গন্ধ খুঁজে ফেরেন মা

ডেস্ক রিপোর্ট :: আজ ২০ মার্চ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ইতিহাস বিভাগের ছাত্রী সোহাগী জাহান তনু হত্যাকাণ্ডের ৩ বছর। দীর্ঘ ৩ বছরেও তনুর ঘাতকদের শনাক্ত করতে পারেনি তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি। এ নিয়ে ক্ষুব্ধ ও হতাশ তনুর পরিবার, সহপাঠী ও প্রতিবাদী মহল। তনুর মা আনোয়ারা বেগম বলেন, সিআইডির কর্মকর্তারা প্রথম থেকেই বলে আসছেন তারা সহসা ঘাতকদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসবেন। তাদের এমন আশ্বাসের কথা শুনে শুনে ৩টি বছর পার হয়ে গেল, কিন্তু আশার আলো এখনও দেখছি না, দেখব কিনা তাও জানি না। গত এক বছর ধরে সিআইডি কর্মকর্তাদের কোনো খবর নেই। মৃত্যুর আগে আমি আমার একমাত্র মেয়ের হত্যাকারীদের দেখে যেতে পারব কিনা জানি না। তবে এখন আমার একটাই ইচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে এ বিষয়ে কিছু কথা বলতে চাই। আমার আবেগ ও কষ্টটা ওনার (প্রধানমন্ত্রী) কাছে বলতে চাই। কারণ তিনিও একজন মা। একজন মা বোঝেন সন্তান হারানোর ব
দিন বদলেছে জেলে পল্লীতে

দিন বদলেছে জেলে পল্লীতে

ডেস্ক রিপোর্ট ::  উপকূলীয় জেলা বরগুনার বঙ্গোপসাগর তীরবর্তী উপজেলা পাথরঘাটা। ঝড় আর জলোচ্ছ্বাসের সঙ্গে লড়াই করা এই এলাকার সিংহভাগ মানুষের প্রধান পেশা মৎস্য শিকার। প্রত্যন্ত এ অঞ্চলের স্বল্প শিক্ষিত মানুষগুলোর জীবন এক সময় কুসংস্কারের বেড়াজালে জড়ানো ছিল। সেই কুসংস্কার মিটিয়ে সুখি ও সুস্থ্য দাম্পত্ত জীবন যাপনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতর। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বছর দশেক আগেও জেলে অধ্যুষিত এই এলাকার দম্পতিদের মধ্যে পরিবার পরিকল্পনা সম্পর্কে ধারণা ছিল নামমাত্র। আবার কুসংস্কার ও লোকলজ্জার কারণে অধিকাংশ দম্পতি গ্রহণ করতো না কোনো ধরনের জন্ম নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি। এর ফলে শিশু ও মাতৃমৃত্যুর হারও ছিল বেশ। কিন্তু অক্লান্ত পরিশ্রমে এখানকার শতভাগ দম্পতিকে জন্ম নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতির আওতায় আনতে সক্ষম হয়েছেন পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের মাঠ পর্যায়ের কর্মীরা। এতে একদিকে যেমন অধিদ
কেশবপুরে শিশু অধিকার বিষয়ক অধিবেশন অনুষ্ঠিত

কেশবপুরে শিশু অধিকার বিষয়ক অধিবেশন অনুষ্ঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট ::  কেশবপুরে ন্যাশনাল চিলড্রেনস টাস্কফোর্স (এনসিটিএফ) খুলনা জেলার আয়োজনে ও প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ এবং পরিত্রাণের সহযোগিতায় কেশবপুর উপজেলায় ক্রীড়া সংস্থা সভা কক্ষে ‘‘শিশু অধিকার বাস্তবায়ন সম্পর্কিত জবাবদিহিতা বিষয়ক অধিবেশন-২০১৯’’শীর্ষক বড়দের সাথে শিশুদের এক ব্যতিক্রমধর্মী পাবলিক একাউন্টিবিলিটি সেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এনসিটিএফ কেশবপুর উপজেলার সভাপতি স্মৃতি রানী দাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরকারি কমিশনার (ভূমি) এনামুল হক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জনাব মোঃ রবিউল ইসলাম, ডাঃ সৌমেন বিশ্ব, উপজেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা  বিমল কুমার কুন্ডু, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা পুলোক শিকদার, মোঃ উপজেলা সমবায় অফিসার নজরুল ইসলাম, কেশবপুর থানার তদন্ত (ওসি) শাহাজান আহম্মেদ, কেশবপুর সদর ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক  আলাউদ্দীন, অ
মাদারীপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

মাদারীপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

ডেস্ক রিরপার্ট :: মাদারীপুর সদর উপজেলার পাঁচখোলা গ্রামের ড. মোজাম্মেল হক খান কলেজে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে রবিবার দিন ব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। এ সময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ডা. প্রান গোপাল দত্তসহ বেশ কয়েকজন বিষেজ্ঞ চিকিৎসক রোগী দেখে চিকিৎসা সেবা দেন। জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা) জাইকা এলামনাই এসোশিয়েশন অব বাংলাদেশ এর আয়োজন করে। দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার ড. মোজাম্মেল হক খান এর সভাপতিত্বে  সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শাজাহান খান, বিশেষ বক্তা ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোয়াসু ইজুমি, বাংলাদেশে নিযুক্ত জাইকার প্রধান প্রতিনিধি হিতোশি হিরোতা, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ডা. প্রান গোপাল দত্ত। এ সময় উ
মৌলভীবাজারের ৭ উপজেলার ৪টিতেই বিদ্রোহীরা জয়ী

মৌলভীবাজারের ৭ উপজেলার ৪টিতেই বিদ্রোহীরা জয়ী

ডেস্ক রিপোর্ট :: উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে মৌলভীবাজারের ৭টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। ৭ উপজেলার ৪টিতেই বিদ্রোহী প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। মৌলভীবাজারের ৭টি উপজেলার মধ্য কোন প্রতিদ্বন্ধী না থাকায় সদর আসনে আগেই উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিন হন আওয়ামী লীগের কামাল হোসেন। বড়লেখা উপজেলায় জয়ী হয়েছেন  আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সোয়েব আহমদ  তিনি ঘোড়া প্রতিক নিয়ে ৪৩ হাজার ৪৪ ভোট পেয়েছেন তার নিকটতম প্রতিদন্দ্বী ছিলেন আওয়ামী লীগের রফিকুল ইসলাম সুন্দর তিনি নৌকা প্রতিকে পেয়েছেন ২০ হাজার ৫৭৩ ভোট। জুড়ী উপজেলায় চেয়ারম্যান হিসেবে জয়ী হয়েছেন আ.লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী এম.এ. মহিত ফারুক। তিনি আনারস প্রতিকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ২৮২ টি ভোট। আ.লীগের গুলশান আরা মিলি তিনি নৌকা প্রতিকে পেয়েছেন ৫৭৭৬ ভোট। কুলাউড়া উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে আ.লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী শফি আহমদ সলম
টেকসই উন্নয়ন ও কর্মক্ষম জনশক্তি   মুনতাকিম আশরাফ

টেকসই উন্নয়ন ও কর্মক্ষম জনশক্তি   মুনতাকিম আশরাফ

ডেস্ক রিপোর্ট :: বর্তমানে বাংলাদেশে ১৫ থেকে ৬৪ বছর বয়সী কর্মক্ষম মানুষের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। কোনো দেশে যদি ৬০ শতাংশের বেশি মানুষ কর্মক্ষম থাকে, তাহলে সে দেশকে ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ডের মধ্যে ধরা হয়। বাংলাদেশ এখন ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড বা জনসংখ্যাতাত্ত্বিক বোনাসকালের সুবিধা ভোগ করছে। আর একটি দেশের জনসংখ্যার অর্ধেকের বেশি যখন শ্রমশক্তিতে পরিণত হয়, তখন সেটি নিশ্চয়ই বোঝা হতে পারে না। বিশ্বের উন্নত দেশগুলো যখন কর্মক্ষম জনসংখ্যার অভাবে ভুগছে, তখন বাংলাদেশের জন্য সম্ভাবনার দরজা খুলে গেছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এ সুযোগ গ্রহণ করে এরই মধ্যে সমৃদ্ধ হয়েছে। ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড বলতে বোঝায়- কোনো একটি দেশের মোট জনসংখ্যার অর্ধেকের বেশি জনসংখ্যার শ্রমশক্তিতে পরিণত হওয়া। অর্থাৎ ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড হল, একটি দেশের ১৫ থেকে ৬৫ বছর বয়স্ক কর্মক্ষম জনশক্তি যখন কর্মে অক্ষম জনশক্তির চেয়ে বেশি থাকে।
আজ বিশ্ব ঘুম দিবস, ওষুধ ছাড়াই ঘুমের নানা সমস্যাকে জব্দ করুন এ ভাবে

আজ বিশ্ব ঘুম দিবস, ওষুধ ছাড়াই ঘুমের নানা সমস্যাকে জব্দ করুন এ ভাবে

লাইফ ষ্টাইল ডেস্ক :: উপরের দিকে তাকিয়ে আর কড়িবরগা গুনতে হয় না। এ কালে ঘুম না হলে বেশির ভাগ মানুষই মোবাইলের স্ক্রিনের দিয়ে তাকিয়ে লাইক গোনেন। ঘুম কেড়ে নেয় এই মোবাইলের নেশাই। আজকের দিনে কিশোর-কিশোরী থেকে বয়স্ক মানুষ সকলেরই ঘুমের ঘাটতির মূল কারণ সোশ্যাল মিডিয়া। এ ছাড়াও আরও নানা কারণে ঘুমের অসুবিধে হয়। অনেকে আবার দাবি করেন, কম ঘুমিয়েই নাকি ভাল থাকা যায়। কিন্তু জেনে রাখুন, কম ঘুম মানেই হাজারো রোগভোগ। আর এই বিষয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে আজ, ১৫ মার্চ পৃথিবী জুড়ে পালন করা হচ্ছে ওয়ার্ল্ড স্লিপ ডে। ‘ওয়ার্ল্ড অ্যাসোসিয়েশন অব স্লিপ মেডিসিন’ ২০০৮ সালে প্রথম স্লিপ ডে পালন করার সিদ্ধান্ত নেয়। ঘুমের প্রয়োজনীয়তার পাশাপাশি ঘুম সংক্রান্ত নানা সমস্যা রেস্টলেস লেগ সিনড্রোম, সোমনামবুলজিম-সহ নানান বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতেই এই পদক্ষেপ। ‘ওয়ার্ল্ড স্লিপ সোসাইটি’-র পক্ষে ঘুম বিশেষজ্ঞ সৌরভ দাস এবং উত্তম আগরওয়াল