ইন্টারভিউ

হেফাজতের সঙ্গে সরকারের কোনো সমঝোতা হওযার প্রশ্নই উঠে না :: আলাপচারিতায় তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু

আ.ফ.ম. সাঈদ :: তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু দৃঢ়কন্ঠে বললেন, হেফাজতে ইসলাম বা আল্লামা আহমদ শফির সঙ্গে সরকারের কোনো গোপন সমঝোতা নেই, হয়নি এবং হওয়ার কোনো প্রশ্নই উঠে না। এটা সম্পূর্ণ অমূলক অপপ্রচার। গত শনিবার সিলেট সার্কিট হাউসে এ প্রতিদেকের সঙ্গে আলাপচারিতায় তিনি এ কথা বলেন। হাসানুল হক ইনু বাংলাদেশের অন্যতম আলোচিত রাজনীতিবিদ। একাত্তরের বীর মুক্তিযোদ্ধা স্বাধীনতা পরবর্তীকালে ছিলেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ)-এর প্রথম সারির অন্যতম সংগঠক। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে অনেক জেল-জুলুমের শিকার হয়েছেন। এখন পর্যন্ত জাসদের হাল ধরে আছেন। আওয়ামী লগী সভানেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় সর্বদলীয় জোট গঠিত হয়। যা পরবর্তীকালে পরিণত হয় মহাজোটে। হাসুনুল হক ইনুর নেতৃত্বাধীন জাসদ মূল থেকেই ১৪ দলীয় জোট ও মহাজোটের সঙ্গে আছে। ২০১৩ সাল থেকে তিনি তথ্য মন্ত
সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রেখে চলেছেন যে নারী

সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রেখে চলেছেন যে নারী

স্বপন কুমার কুন্ডু ; ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ মাহজেবিন শিরিণ পিয়া শিক্ষানুরাগী ও সমাজ উন্নয়নের একজন রূপকার। নারী উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখায় পাবনা জেলায় ইতোমধ্যেই তাঁর খ্যাতি ছড়িয়ে পড়েছে। ছাত্র জীবনে ছাত্র লীগ থেকে তাঁর পথচলা শুরু। পাড়া-মহল্লায় যেখানেই নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে, সেখানেই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। এলাকার জননেতা শামসুর রহমান শরীফের কণ্যা হওয়ার সুবাদে পারিবারিক ভাবেই আন্দোলন সংগ্রামে তিনি সবসময়ই অগ্রগামী। অসহায় ও নির্যাতিতা নারীদের আশ্রয়দান, শালিসী ও আইনী ব্যবস্থার মাধ্যমে পূর্ণবাসনের ব্যবস্থার ব্রত নিয়ে তিনি এগিয়ে চলেছেন। ২০০৪ সালে দেশ মহিলা উন্নয়ন সমিতি গঠন করে পিয়া দরিদ্র-অসহায়, নির্যাতিতা, যৌতুকের শিকার, তালাকপ্রাপ্তসহ সর্বস্তরের নারীদের সহযোগিতা করছেন। যার মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো নারী নির্যাতন প্রতিরোধে এবং সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা। এছাড়া বাল্য বিবাহ বন্ধ, ই