এন্টারটেইনমেন্ট

বিজ্ঞাপনে রূপান্তরকামী মডেল

বিজ্ঞাপনে রূপান্তরকামী মডেল

সাধারণত বিজ্ঞাপনের জন্য পুরুষ কিংবা নারী মডেলকে বেছে নেন সবাই। কিন্তু ভারতের কেরালার পোশাক ডিজাইনার শর্মিলা নায়ার তার শাড়ির মডেলের জন্য বেছে নিয়েছেন রূপান্তরকামী মডেলকে। রেড লোটাস নামে শাড়ির মডেলদের ছবি সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগেরমাধ্যমে শেয়ার করেন শর্মিলা। তারপর থেকেই তা ছড়িয়ে পড়ে ইন্টারনেটে।   শাড়ির মডেলিংয়ে অংশ নেন মায়া মেনন এবং গোউরি সাবিত্রী নামে দুজন রূপান্তরকামী মডেল। মাজহাবি নামের সুতির শাড়ি পরে তারা ফটোশুট করেন। মাজহাবি মালায়ালাম শব্দ যার অর্থ রঙধনু। শাড়িগুলো হলুদ, লাল, কমলা এবং সবুজসহ বিভিন্ন রঙের। যা এলজিবিটি পতাকার রঙের সঙ্গে সাদৃশ্য রেখে তৈরি। এ সম্পর্কে সামাজিক যোগাযোগেরমাধ্যমে শর্মিলা নায়ার জানান, দুর্দশাগ্রস্থ সমাজবিচ্ছিন্ন রূপান্তরকামী সম্প্রদায়কে আলোচনায় নিয়ে আসার জন্যই এটি করা হয়েছে।     গত নভেম্বরে কেরালা আনুষ্ঠানিকভাবে রূপান্ত
বলিউডের বিকিনি সুন্দরীরা

বলিউডের বিকিনি সুন্দরীরা

বলিউড সিনেমায় স্বল্প বসনে বা বিকিনি পরে অভিনেত্রীর আর্বিভাব নতুন কিছু নয়। বলিউড তারকাদের বিকিনি পরাকে সাহস কিংবা অন্য যাই কিছু বলুন না কেন এটা অন্য একমাত্রা যোগ করেছে বলিউড চলচ্চিত্রে। তবে সিনেমায় বিকিনি পরার রীতি ইদানিং হরহামেশা দেখা গেলেও এটা কিন্তু অনেক আগেই শুরু হয়েছে । গল্পের চিত্রনাট্য, ফ্যাশন কিংবা অন্য যে কারণেই অভিনেত্রীরা বিকিনি পরেন না কেন এর শুরুটা হয়েছিল ১৯৭২ সালে। অনেকেরই ধারণা বলিউডে বিকিনির প্রথম পাঠ অভিনেত্রী নুতনের হাতে। কিন্তু বিকিনি আর সুইম স্যুটের মধ্যে একটু পার্থক্য রয়েছে। খোলামেলাভাবে সুইম স্যুটে অভিনেত্রী নুতন প্রথম পর্দায় হাজির হলেও বিকিনির দর্শন বলিউড দর্শক প্রথম পায় অভিনেত্রী মুমতাজের মাধ্যমে।  ৪৪ বছর আগে থেকে এ পর্যন্ত অনেক তারকাই বিকিনি পরেছেন। বলিউড সিনেমায় বিকিনি পরেছেন এমন তারকাদের নিয়ে সাজানো হয়েছে এই প্রতিবেদন। ১৯৭২ সালে অপরাধ সিনেমায় বিকিনি পরেছি
গোপনে বিয়ে করলেন মাহি

গোপনে বিয়ে করলেন মাহি

বিনোদন  ডেস্ক : বিভিন্ন জনের সঙ্গে প্রেম নিয়ে নানা গুঞ্জনের অবসান ঘটিয়ে অনেকটা গোপনীয়তার মধ্যে বিয়ে করলেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের এই সময়ের সেরা নায়িকা মাহিয়া মাহি। পাত্র সিলেটের কদমতলীর মাহমুদ পারভেজ অপু, যিনি একজন ব্যবসায়ী। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর উত্তরায় নিজের বাসায় অনেকটা হুট করেই বিয়ে করেন তিনি। গত চার বছর ধরে দুজনের মধ্যে পরিচয় থাকলেও উভয় পরিবারের সম্মতিতেই তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এ সময় উভয় পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। গত ১২ মে মাহিয়া মাহি ও অপু’র বাগদান সম্পন্ন হয়। আগামীকাল বুধবার রাতে উত্তরায় একটি রেস্টুরেন্টে স্বামীকে নিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবেন মাহি। বিয়ে প্রসঙ্গে মাহিয়া মাহি বলেন, ‘পরিবারের পছন্দেই আমাদের বিয়ে হয়েছে। আল্লাহর অশেষ রহমতে খুব ভালো মনের একজন মানুষকে স্বামী হিসেবে পেয়েছি। অপু গ্রামের সহজ সরল সাধারণ মানুষ। এমন একজন মানুষই আমার জীবনে, আমার পাশে চেয়েছিলাম। আল্
মডেল সাবিরার আত্মহত্যা, প্রেমিক নির্ঝর আটক

মডেল সাবিরার আত্মহত্যা, প্রেমিক নির্ঝর আটক

ডেস্ক রিপোর্ট : মডেল সাবিরার আত্মহত্যার ঘটনায় তার প্রেমিক নির্ঝর সিনহা রওনককে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকেলে মিরপুরের একটি বাসা থেকে রওনককে আটক করে পুলিশ। রূপনগর থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ শহীদ আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি জানান, সুইসাইড নোট আমলে নিয়ে নির্ঝরকে আটক করা হয়েছে। তাকে বিস্তারিত ঘটনা সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তবে সাবিরার পরিবারের পক্ষ থেকে আত্মহত্যার প্রচারণার কোনো অভিযোগ করা হয়নি বলে জানান তিনি। এরআগে বিকেল ৪টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সাবিরার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ময়নাতদন্ত শেষে তার মামা হুমায়ন কবির মডেল সাবিরার মৃতদেহ বুঝে নেন। মঙ্গলবার সকালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে আত্মহত্যা করেন মডেল সাবিরা। মিরপুরের রূপনগরের একটি বাসা থেকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। আত্মহত্যার আগে ফেসবুকে একটি সুইসাইড নোট ও ভিডিও বার্ত
ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে আত্মহত্যা করলেন মডেল সাবিরা

ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে আত্মহত্যা করলেন মডেল সাবিরা

মডেল সাবিরা হোসাইন আত্মহত্যা করেছেন। সহকর্মী প্রেমিক নির্ঝর সিনহা রওনকের সঙ্গে অভিমান করে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে তার ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে জানা গেছে। এছাড়া সাবিরা তার মৃত্যুর জন্য প্রেমিক নির্ঝরকে ওই ফেসবুক স্ট্যাটাসে দায়ী করে গেছেন। তিনি ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও বার্তাও আপলোড করেন। মঙ্গলবার ভোর ৫টার দিকে মিরপুরের রূপনগরে সাবলেটের বাসা থেকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সাবিরা বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজের মডেলিংয়ের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন এবং একইসঙ্গে গান বাংলা টেলিভিশনের মার্কেটিং এক্সিজিউটিভ ছিলেন । রূপনগর থানার ডিউটি অফিসার জোহরা আকতার মঙ্গলবার দুপুরে জানান, সাবিরার মরদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেক) মর্গে পাঠানো হয়েছে। সাবিরার তার ফেসবুকে দেয়া সর্বশেষ স্ট্যাটাসে আত্মহত্যার কারণ ও একইসঙ্গে ৯ মিনিটের একটি ভিডিও আপ করেছেন। ভিডিওটিতে একটি ছুরি