এশিয়া

ইন্দোনেশিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণা শুরু

ইন্দোনেশিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণা শুরু

ইন্দোনেশিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণা রোববার শুরু হয়েছে। আগামী বছর ১৭ এপ্রিল এ নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে।   এ নির্বাচনী লড়াইয়ে ক্ষমতাসীন জোকো উইদোদোকে সেনাবাহিনীর সাবেক এক জেনারেলের মুখোমুখি হতে হচ্ছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।       মতামত জরিপে দেখা গেছে, উইদোদো তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী প্রাবোয়ো সুবিয়ান্তোর বিরুদ্ধে বেশ ভালো ব্যবধানে এগিয়ে আছেন।   তবে দ্বিতীয়বারের মতো প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়তে যাওয়া উইদোদোকে অর্থনৈতিক সংকট মোকাবেলা করতে হচ্ছে।   বিশ্বের বৃহত্তম মুসলিম দেশটিতে ১৭ এপ্রিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচনে প্রায় ১৮ কোটি ৬০ লাখ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। নির্বাচনে ভোটারা জাতীয় ও স্থানীয় পার্লামেন্ট সদস্যও বেছে নিবেন। বিশ্লেষকরা বলছেন, ইন্দোনেশিয়ায় অর্থনীতি, বৈষম্য ও ক্রমবর্ধমান অসহিষ্ণুতার বিষয়গুলোই এই প্রচারণায় গুরুত্ব
রোহিঙ্গা ইস্যুতে অক্টোবরে আসছে মিয়ানমারের প্রতিনিধিদল

রোহিঙ্গা ইস্যুতে অক্টোবরে আসছে মিয়ানমারের প্রতিনিধিদল

আগামী অক্টোবরে মিয়ানমার থেকে জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের একটি প্রতিনিধিদল ঢাকায় আসবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এ তথ্য জানান। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমারের প্রতিনিধিদল প্রথমবারের মতো রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবে। আমরা আশা করছি, সঙ্কট সমাধানের ক্ষেত্রে এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। গত বছরের ২৫ আগস্টের পর রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর জাতিগত নির্মূল অভিযানে ৭ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। সব মিলিয়ে বাংলাদেশে এখন রোহিঙ্গাদের সংখ্যা ১১ লাখের বেশি। এদিকে, মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগের বিষয়ে প্রাথমিক তদন্ত শুরু করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)।
রায় স্থগিত, মুক্তি পাচ্ছেন নওয়াজ শরীফ

রায় স্থগিত, মুক্তি পাচ্ছেন নওয়াজ শরীফ

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ, তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ ও জামাই অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ সফদারের বিরুদ্ধে অ্যাভেনফিল্ড মামলার রায় স্থগিত করেছে ইসলামাবাদ হাই কোর্ট। ফলে দ্রতই তারা এখন মুক্তি পাবেন। এই মামলায় জবাবদিহিতা বিষয়ক আদালত তাদেরকে জেলে পাঠিয়েছিল। ফলে মৃত্যুর সময় নিজের স্ত্রী কুলসুম নওয়াজের পাশে থাকতে পারেন নি নওয়াজ। মার পাশে থাকতে পারেন নি মরিয়ম। তার মৃত্যুর পর তাদেরকে প্যারোলে মুক্তি দেয় সরকার।
ভুটানের প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন ময়মনসিংহ মেডিকেলের ছাত্র

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন ময়মনসিংহ মেডিকেলের ছাত্র

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন বাংলাদেশের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করা ডা. লোটে শেরিং। তিনি কলেজের ১৮তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন। এমবিবিএস পাসের পরে বাংলাদেশে জেনারেল সার্জারি বিষয়ে তিনি এফসিপিএসও করেন। ২০১৩ সালে ভুটানের সিভিল সার্ভিস থেকে অব্যাহতি নিয়ে রাজনীতিতে যোগ দেন লোটে শেরিং। গত ১৫ সেপ্টেম্বর ভুটানে অনুষ্ঠিত প্রথম দফা নির্বাচনে তার ডিএনটি দল জয়লাভ করে চমক সৃষ্টি করে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে প্রথম দফা নির্বাচনে হেরে ছিটকে পড়েন। পরে তিনি পরাজয় মেনে নিয়েছেন। ডা. লোটে শেরিং প্রধানমন্ত্রী হওয়ার চূড়ান্ত ফলাফল জানা যাবে আগামী ১৮ই অক্টোবর। ভুটানে দুই দফায় ভোট হয়। প্রথম দফায় ভোটাররা রাজনৈতিক দলগুলোকে ভোট দেয়। দ্বিতীয় দফায় ডা. লোটে শেরিং মুখোমুখি হবেন ডিপিটির ফেনসাম সগবার। কিন্তু ইতোমধ্যে বিপুল ভোটে ডা. লোটে শেরিংয়ের ডিএনটি জয়ী হয়েছে। ডা. লোটে শেরিংয়ের প্রোফাই
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভারতীয় হাইকমিশনার

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভারতীয় হাইকমিশনার

রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারে গেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা। হাইকমিশন সূত্র জানায়, হর্ষ বর্ধন শ্রিংলার নেতৃত্বে ১০ সদস্যের ভারতীয় দল পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করবে। সোমবার ঢাকা থেকে একটি ফ্লাইটযোগে সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে কক্সবাজার বিমানবন্দরে পৌঁছায় শ্রিংলার নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলটি। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মেরিন ড্রাইভ (সৈকতঘেঁষা সড়ক) দিয়ে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের উদ্দেশে গাড়িযোগে যাত্রা করেন শ্রিংলা। গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে মিয়ানমার সেনাবাহিনী নিধনযজ্ঞ শুরু করলে বাংলাদেশ অভিমুখে শরণার্থীদের ঢল নামে। এ পর্যন্ত এদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গার সংখ্যা ১১ লাখেরও বেশি বলে হিসাব বিভিন্ন সংস্থার। রোহিঙ্গাদের সসম্মানে প্রত্যাবাসনে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সহযোগিতায় কাজ করছে বাংলাদেশ। এ সংকট নিরসনে বরাবরই বাংলাদেশের পাশে থাক
সবচেয়ে বেশি উদ্ভাবনী দেশ সিঙ্গাপুর, কম বাংলাদেশ

সবচেয়ে বেশি উদ্ভাবনী দেশ সিঙ্গাপুর, কম বাংলাদেশ

এশিয়ায় সবচেয়ে বেশি উদ্ভাবনী (ইনোভেটিভ) দেশ সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান। আর সবচেয়ে কম উদ্ভাবনী দেশ পাকিস্তান ও বাংলাদেশ। গ্লোবাল ইনোভেশন ইনডেক্স-২০১৮ শীর্ষক রিপোর্টে এ কথা বলা হয়েছে। এ খবর দিয়েছে ডাটা লিডস। আগামী এক দশকের বিদ্যুত বা জ্বালানি খাতের পরিস্থিতি, বিশেষ করে বিদ্যুত উৎপাদন, ঘাটতি, বিতরণ ও ব্যবহারের মতো বিষয়কে বিশ্লেষণ করে ওই রিপোর্ট প্রণয়ন করা হয়েছে। এতে দেখা হয়েছে কিভাবে তৃণমূল পর্যায়ে উদ্ভাবনী নতুন নতুন বড় সাফল্য আসে। একই সঙ্গে বর্ণনা করা হয়েছে কিভাবে ছোট আকারের নবায়ণযোগ্য সিস্টেমের উত্থান ঘটছে। ডাটা লিডস লিখেছে, বৈশ্বিক উদ্ভাবনী টার্মের আওতায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া। আর এ অঞ্চলে সব সূচকে সর্বোচ্চ স্কোর করেছে সিঙ্গাপুর। এতে তারা শীর্ষস্থানে রয়েছে। বিশ্বব্যাপী সূচকে আগের বছরের চেয়ে সিঙ্গাপুর দুই পয়েন্ট বেশি অর্জন করেছে। অন্যদিকে দক্ষিণ কোরিয়া উচ্চ আয়ের
‘মহাভারত’ নিয়ে সিনেমা বানাবেন না আমির?

‘মহাভারত’ নিয়ে সিনেমা বানাবেন না আমির?

বলিউড অভিনেতা আমির খান। অনেকদিন থেকেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, ‘মহাভারত’ অবলম্বনে সিনেমা নির্মাণ করবেন এই অভিনেতা। এটি নাকি তার ড্রিম প্রজেক্ট। সিনেমাটির বাজেট কত হবে এবং এতে কারা অভিনয় করবেন তা নিয়ে হয়েছে নানা জল্পনা-কল্পনা। এদিকে কয়েকদিন আগে শোনা যায়, ‘মহাভারত’ নিয়ে সিনেমা নাকি ওয়েব সিরিজ তৈরি করবেন তা নিয়েও দ্বিধায় আমির। তবে শেষ পর্যন্ত সিনেমাটি নির্মাণ করবেন না বলিউডের মিস্টার পারফেক্টশনিস্ট। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম এ তথ্য জানিয়েছে। এ প্রসঙ্গে একটি সূত্র সংবাদমাধ্যমটিতে বলেন, “সকল সুবিধা-অসুবিধার কথা চিন্তা করে আমির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ‘মহাভারত’ নিয়ে কোনো সিনেমা অথবা সিরিজ নির্মাণ করবেন না। যেমন-এটা নিয়ে কোনো বিতর্ক তৈরি হতে পারে। কিন্তু সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, সিনেমাটি যে আকৃতিতে তৈরির পরিকল্পনা হয়েছে সেটি বাণিজ্যিকভাবে বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। তাকে এ জন্য পাঁচ বছর সময় ব্যয় করতে হবে। তার
১৫ আগস্ট কেন ভারতের স্বাধীনতা দিবস?

১৫ আগস্ট কেন ভারতের স্বাধীনতা দিবস?

দুইশ’ বছরের ব্রিটিশ শাসন থেকে ভারতীয় উপমহাদেশের মুক্তি মিলে ১৯৪৭ সালে। ওই বছর ব্রিটেনের কাছে থেকে স্বাধীনতা লাভ করে ভারত ভাগের মাধ্যমে ভারত এবং পাকিস্তান নামে দুটি দেশের জন্ম হয়। তখন থেকে ১৫ আগস্টকে ভারতের স্বাধীনতা দিবস হিসেবে উদযাপন করা হয়।   উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে এবার ৭২তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করছে ভারত। স্বাধীনতা সংগ্রামীদের আত্মত্যাগ ও প্রাণদানের ইতিহাস রয়েছে। সেই ইতিহাসকে জানতে বসলেই যে প্রশ্ন সবার আগে উঠে আসে, তা হলো ভারতের স্বাধীনতা দিবস কেন ১৫ আগস্ট পালন করা হয়? কেন এই দিনটিকে বেছে নেয়া হলো?   ভারতের শেষ ভাইসরয় লর্ড মাউন্টব্যাটেনকে ১৯৪৭ সালের ৩০ জুন ক্ষমতা হস্তান্তরের আদেশ দেয় ব্রিটিশ পার্লামেন্ট। কিন্তু সেই ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে আগস্ট মাস পর্যন্ত লেগে যায়।   তৎকালীন ভারতীয় রাজনীতিবিদ সি রাজাগোপালাচারি বলেন, যদিও ১৯৪৮
ভারতের সবচেয়ে গরিব মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ভারতের সবচেয়ে গরিব মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ভারতের ২৯ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে সবচেয়ে ধনী হলেন এন চন্দ্রবাবু নাইডু। অন্যদিকে, সবচেয়ে গরিব মুখ্যমন্ত্রী হলেন পশ্চিমবঙ্গের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।   দেশটির বেসরকারি সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফর্মসের (এডিআর) তথ্য অনুযায়ী, অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী এন চন্দ্রবাবু নাইডুর মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১৭৭ কোটি টাকার সমপরিমাণ। মন্ত্রীত্বের পাশাপাশি এনটিআর রামা রাও-এর হাতে তৈরি তেলেগু দেশম পার্টির সভাপতির দায়িত্বেও রয়েছেন অবিভক্ত তেলেঙ্গানার এই নেতা।   ধনীদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন প্রেমা খান্ডু। ভারতীয় জনতা পার্টি শাসিত অরুণাচল প্রদেশ সরকারের মুখ্যমন্ত্রী তিনি। তার মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১২৯ কোটি টাকার।   ধনীদের তালিকায় তৃতীয় স্থানেই রয়েছেন পঞ্জাবের কংগ্রেস দলীয় মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরেন্দর সিং। তার সস্পত্তির পরিমাণ ৪৮ কোটা টাকার। এই তালিকায় শেষের
কুরবানির পশু আমদানি করছে সৌদি

কুরবানির পশু আমদানি করছে সৌদি

পবিত্র ঈদ-উল-আযহাকে কেন্দ্র করে সৌদি আরব ইতোমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ৩ লাখ ৫৯ হাজার গবাদিপশু আমদানি করেছে। গত ১৪ জুলাই থেকে ১ আগস্ট পর্যন্ত এসব গবাদিপশু আমদানি করা হয়।   সৌদি আরবের পরিবেশ, পানি ও কৃষি মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে দেশটির ইংরেজি দৈনিক আরব নিউজ এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।       এতে বলা হয়েছে, পবিত্র হজ পালন করতে আসা হজযাত্রী ও স্থানীয়দের চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে পশু আমদানি করা হচ্ছে।   আরব নিউজ বলছে, ইসলামি উন্নয়ন ব্যাংকের আধাই প্রকল্পের আওতায় প্রথম ধাপে ২ লাখ এবং স্থানীয় বাজারের জন্য ১ লাখ ৫৯ হাজার গবাদিপশু আমদানি করা হয়েছে।   আরো ২৫ লাখ গবাদিপশু আমদানি করা হবে বলে প্রত্যাশা করছে সৌদি পরিবেশ, পানি ও কৃষি মন্ত্রণালয়। এরমধ্যে ১৫ লাখ স্থানীয় বাজারের জন্য এবং বাকি ১০ লাখ আধাই প্রকল্পের জন্য আমদানি করা হবে। &nbs