এশিয়া

সুদীপকে সিবিআই তলব: ভয় দেখিয়ে নোট বাতিলের লড়াই থামানো যাবে না: মমতা

কলকাতার ডেস্ক :পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল সংসদ সদস্য ও লোকসভায় তৃণমূলের মুখ্য সচেতক সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে রোজভ্যালি অর্থলগ্নি সংস্থায় অনিয়ম তদন্তে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা সিবিআই তলব করায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন, ‘লোকসভায় আমদের নেতাকে সিবিআই ৩ বার ফোন করেছে। বিজেপি এ ধরনের প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে। এ সব করে নোট বাতিলের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াইকে থামানো যাবে না।’   মঙ্গলবার বিকেলে সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে ৩ বার ফোন করা হয় সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে। বিষয়টি  জানার পরেই মুখ্যমন্ত্রী সোশ্যাল মিডিয়াতে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, প্রতিহিংসার রাজনীতি শুরু হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তারা প্রতিবাদ করছেন বলেই সিবিআইকে দিয়ে ভয় দেখানোর কৌশল নিয়েছেন মোদি।   মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে এমনিতেই তেমন বনিবনা নেই কেন্দ্রীয় সরকারের। র
কলকাতায় ‘বাংলাদেশ বিজয় উৎসব’-এ তারা

কলকাতায় ‘বাংলাদেশ বিজয় উৎসব’-এ তারা

কলকাতা ডেস্ক :কলকাতার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে হবে ‘বাংলাদেশ বিজয় উৎসব’। কাল (১৫ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় বিকাল সাড়ে চারটায় এ আয়োজনের উদ্বোধন হবে। এখানে প্রধান অতিথি থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশ  নেবেন বাংলাদেশের সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। অনুষ্ঠানে ‘আমি বাংলার গান গাই’ শীর্ষক নৃত্যালেখ্য পরিবেশন করবেন নৃত্যাঞ্চলের শিল্পীরা। পরিচালনায় নৃত্যশিল্পী শামীম আরা নীপা। তার ও শিবলী মোহাম্মদের সঙ্গে অংশগ্রহণ করবেন নৃত্যাঞ্চলের ৩০জন শিল্পী। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দিনে গান করবেন সাবিনা ইয়াসমিন, কুমার বিশ্বজিৎ, এস আই টুটুল, দিনাত জাহান মুন্নি, ব্যান্ড ফিডব্যাক ও লালন। উৎসবের প্রতিদিনই থাকছে বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পীদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র ও তথ্যচিত্র প্রদর্শনী।
মমতার চুলের মুঠি ধরার কথা বলে বিতর্কে বিজেপি সভাপতি

মমতার চুলের মুঠি ধরার কথা বলে বিতর্কে বিজেপি সভাপতি

কলকাতা ডেস্ক :পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চুলের মুঠি ধরার কথা বলায় রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষকে ‘গুণ্ডা ঘোষ’ বলে অভিহিত করেছেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। রোববার শিক্ষামন্ত্রী ও তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘দিলীপবাবু চাইছেন গরম গরম কথা বলে মোদির নজর কেড়ে দলে নিজের নম্বর বাড়াতে।’ এ নিয়ে আগামী বুধ, বৃহস্পতি এবং শুক্রবার রাজ্যজুড়ে তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকে মিছিল, সমাবেশ ও বিক্ষোভ করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।   তৃণমূলের মুখপাত্র ও সংসদ সদস্য ডেরেক ও’ ব্রায়েন বলেন, ‘বিজেপির রাজ্য সভাপতির মুখে মুখ্যমন্ত্রী সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্যে বেপরোয়া মনোভাবের প্রতিফলন ঘটেছে।’ ওই ঘটনাকে ‘থার্ড ক্লাস পলিটিক্স’ বলেও মন্তব্য করেছেন ডেরেক ও’ ব্রায়েন।   অন্যদিকে, পশ্চিমবঙ্গের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক হুঁশিয়ারি দিয়
সরকারের বিরুদ্ধে একসঙ্গে প্রতিবাদ করার আহ্বান মমতার

সরকারের বিরুদ্ধে একসঙ্গে প্রতিবাদ করার আহ্বান মমতার

কলকাতা ডেস্ক :ভারতে নোট বাতিলের পর দিল্লিতে যা করেছিলেন এবার বিধানসভায় দাঁড়িয়েও সেই অবস্থান বজায় রাখলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নরেন্দ্র মোদি সরকারের জনবিরোধী সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রাজ্যে তার প্রতিপক্ষ শিবিরকেও ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ে আহ্বান জানালেন তিনি।   রাজনীতির ফারাক রেখে বিরোধীরা তৃণমূল নেত্রীর এই আবেদনে শেষ পর্যন্ত সাড়া দিচ্ছে না। কিন্তু সাধারণ মানুষের হয়রানির প্রতিকার চেয়ে রাজনৈতিক সহমত তৈরির চেষ্টা বিধানসভাতেও নথিভুক্ত করে রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী।   জাতীয় স্তরে মোদি-বিরোধী জোট গড়ার জন্য সব দলকেই আহ্বান জানিয়েছিলেন মমতা। কংগ্রেস সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধী থেকে সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরিসহ সবার সঙ্গেই কথা বলেছেন তিনি।   বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনের শুরুতে সোমবার নোট বাতিল নিয়ে ১৬৯ ধারায় সরকারি প্রস্তাবের উপর আলোচনায় যোগ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ত
মোদী-মমতার কলহ ছায়া ফেলছে তিস্তায়

মোদী-মমতার কলহ ছায়া ফেলছে তিস্তায়

তিস্তায় পানি চুক্তি হওয়ার অগ্রগতিকে বাধাগ্রস্ত করবে এমন শঙ্কায় বিজেপি আর তৃণমূল কংগ্রেসের বিবাদ অস্বস্তি নিয়ে পর্যবেক্ষণ করছে বাংলাদেশ।   নোট বাতিলের সিদ্ধান্তে মাসখানেক ধরে চলা কেন্দ্র ও পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের মতপার্থক‌্য এখন বাদানুবাদে ঠেকেছে।   গত সপ্তাহে মমতা কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তাকে হত্যার ষড়যন্ত্রেরও অভিযোগ এনেছেন।   কলকাতায় ফেরার সময় তার বিমানকে ল্যান্ডিংয়ের অনুমতি না দিয়ে অনেকক্ষণ আকাশে রাখা হয় বলে দাবি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর। তাকে বহন করা বিমানটির জ্বালানি ‘প্রায় শেষ হয়ে গিয়েছিল’।   দুদিন আগে তৃণমূলপ্রধান মমতা রাজ্যে সেনাঅভ‌্যুত্থান ঘটানোর চেষ্টা চলছে বলেও অভিযোগ করেন।   তার দাবি, ‘রাজ্যকে না জানিয়ে’ কেন্দ্রের পাঠানো সেনারা ‘জরুরি অবস্থা’ ঘোষণা করতে তৎপর ছিল। ‘গণতন্ত্র বাঁচাতে’ রাজ্য সচিবালয় নবান্ন
অবতরণের অনুমতি না পেয়ে আকাশে চক্কর মমতার বিমান

অবতরণের অনুমতি না পেয়ে আকাশে চক্কর মমতার বিমান

কলকাতা ডেস্ক :পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। বুধবার রাতে মুখ্যমন্ত্রীর বিমানকে কোলকাতা বিমান বন্দরে নামার অনুমতি দিতে বিলম্ব হওয়ায় তিনি ওই অভিযোগ করেছেন।   গতকাল বুধবার নোট বাতিলের প্রতিবাদ জানাতে বিহারের রাজধানী পাটনায় এক সমাবেশ শেষে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম এবং এমপি মুকুল রায়কে নিয়ে কোলকাতায় ফেরার সময় বিপত্তি ঘটে। এসময় বিমানে প্রায় ১৮০ জন যাত্রী ছিলেন।   রাত ৮ টা নাগাদ পাটনা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে নিয়ে আসা বিমানটির কোলকাতা বিমান বন্দরে অবতরণ করার কথা ছিল। কিন্তু এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল অনুমতি না দেয়ায় বিমানটির অতিরিক্ত প্রায় ৪০ মিনিট ধরে আকাশে চক্কর কাটতে হয়। ওই ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রচণ্ড ক্ষ
নোট যুদ্ধে বামভিটের বাকিটুকুও কাড়তে চান মমতা

নোট যুদ্ধে বামভিটের বাকিটুকুও কাড়তে চান মমতা

বিধানসভা ভোটে প্রবল তৃণমূলী ঝড়ে বাংলার রাজনীতিতে এমনিতেই অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়েছেন বামেরা। সদ্যসমাপ্ত উপনির্বাচনের ফলে তা আরও স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। নোট-দুর্ভোগকে সামনে রেখে এ বার কার্যত বামেদের ভিটেমাটির দখল নিতে মাঠে নামছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রের নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সোমবার রাজ্যে ১২ ঘণ্টা হরতালের ডাক দিয়েছে বামদলগুলি। শুক্রবার সন্ধ্যায় আলিমুদ্দিন স্ট্রিট থেকে সেই ঘোষণা হতেই তীব্র আপত্তি জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলে দিয়েছেন, ‘‘বন্‌ধ বরদাস্ত করব না।’’ শুধু সেখানেই থেমে থাকলেন না মমতা। বরং তাঁর কৌশলী সিদ্ধান্ত— বিমান-সূর্যকান্তরা যখন ঘুরেফিরে হরতালের আশ্রয় নিচ্ছেন, তখন নোট-হয়রানির আন্দোলনকে তিনি নিয়ে যাবেন শ্রমিক-মজুরদের মাঝে। বেছে বেছে সেই সব জায়গায় তৃণমূল তাদের এই আন্দোলকে নিয়ে যাবে, যেখানে ঐতিহাসিক ভাবেই এক সময় দুর্জয় ঘাঁটি ছিল বামপন্থীদের। শনিবার দুপুরে
‘তিন দিনে সিদ্ধান্ত বাতিল করুন, না হলে আমি এখনও জীবিত’

‘তিন দিনে সিদ্ধান্ত বাতিল করুন, না হলে আমি এখনও জীবিত’

  রাজধানীর বুকে অরবিন্দ কেজরীবালের মঞ্চ থেকে তীব্র হুঙ্কার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। দেশে নোট সঙ্কট নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণের সুর সপ্তমে চড়িয়ে প্রধানমন্ত্রীকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি, ‘‘তিন দিন সময় দিলাম, তার মধ্যে সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করুন। না হলে, আমরা এখনও বেঁচে আছি।’’ ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোট কেন্দ্রীয় সরকার আচমকা বাতিল ঘোষণা করার পর থেকে বিরোধী দলগুলির মধ্যে সবচেয়ে বেশি সরব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই। সাধারণ মানুষের হয়রানির চিত্র তুলে ধরে মোদী সরকারের সমালোচনায় সরব কংগ্রেস সহ অধিকাংশ বিরোধী দলই। পরিস্থিতি মোকাবিলার প্রস্তুতি না নিয়ে নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন নেওয়া হল, প্রশ্ন বিরোধীদের।  কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরও এক ধাপ এগিয়ে বার বার দাবি করছেন, নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে। বৃহস্পতিবার দিল্লিতে অরবিন্দ কেজরীবালের সমাবেশ মঞ্চে হাজির হয়ে আ
শেষ পর্যন্ত ভাঙন ঠেকানো যাবে তো মুলায়ম সিংহ যাদবের দলে?

শেষ পর্যন্ত ভাঙন ঠেকানো যাবে তো মুলায়ম সিংহ যাদবের দলে?

যুদ্ধে বিরতি! নাকি এটাই সংঘাতের আনুষ্ঠানিক পরিণতি? শেষ  কথা বলার সময় আসেনি। তবে এটা ঘটনা, আজ অন্তত ভাঙল না সমাজবাদী পার্টি। কিন্তু স্পষ্ট হয়ে গেল যাদব কুলে কার ঘা কতটা দগদগে! কতটা গভীর দলের অন্দরের চিড়! যা ধামাচাপা দিতে গভীর রাত পর্যন্ত দলের মাথারা দফায় দফায় বৈঠক চালালেও গোটা পর্বে মোদ্দা যে প্রশ্নটি উঠে এল তা হচ্ছে, শেষ পর্যন্ত ভাঙন ঠেকানো যাবে তো মুলায়ম সিংহ যাদবের দলে? যাদব পরিবারে, দলে ও সরকারে বাপ-ছেলে, কাকা-ভাইপোর লড়াই তীব্র আকার নিয়েছিল আগেই। আজ তার নগ্ন চেহারাটা দেখল গোটা দেশ। ‘নেতাজি’ মুলায়মের উপস্থিতিতেই ভাইপো কেড়ে নিচ্ছেন কাকার মাইক! কাকা প্রকাশ্যেই মিথ্যাবাদী বলে গাল পাড়ছেন মুখ্যমন্ত্রী ভাইপোকে। বাবার মন্তব্যে গর্জে উঠছেন ছেলে। আবার কিছু ক্ষণ পরেই বাবার কথা বলতে গিয়ে অবরুদ্ধ হচ্ছে পুত্রের কণ্ঠ। চলছে গাল, পাল্টা-গাল, মঞ্চেই ধাক্কাধাক্কি, স্লোগান পাল্টা-স্লোগান, কখ
‘ও একটা নপুংসক’, কলকাতায় এসে মন্তব্য অমর সিংহের

‘ও একটা নপুংসক’, কলকাতায় এসে মন্তব্য অমর সিংহের

চলতি যাদব-যুদ্ধের অন্যতম চরিত্র তিনি। তাঁকে ঘিরেই সোমবার উত্তাল হয়েছে লখনউয়ে সমাজবাদী পার্টির সম্মেলন। মঞ্চে দাঁড়িয়ে মুলায়ম সিংহ তাঁকে ছোট ভাই আখ্যা দিয়ে বলেছেন, ‘‘ওকে তাড়ানোর প্রশ্নই ওঠে না! ও আমাকে বাঁচিয়েছে। নইলে জেল খাটতে হতো!’’ যা শুনে বাবার হাত থেকে মাইক প্রায় ছিনিয়ে নিয়ে পাল্টা তোপ দেগেছেন অখিলেশ যাদব, ‘‘ও দালাল! ও নেতাজিকে (মুলায়ম সিংহ) শাজাহান আর আমাকে আওরঙ্গজেব সাজিয়ে খবরের কাগজে গল্প খাইয়েছে! ওর শেষ দেখে ছাড়ব!’’ যাঁর জন্য বাপ-ছেলের এই ঝগড়া, সেই অমর সিংহ তখন হাজার কিলোমিটার দূরে। নিজের পুরনো শহর কলকাতায় চৌরঙ্গির মিষ্টির দোকানে বসে তারিয়ে তারিয়ে কচুরি-আলুর তরকারি খাচ্ছেন। সাত বছর আগে দুটো কিডনিই বাদ গিয়েছে। সিঙ্গাপুরের এক হাসপাতালে কিডনি প্রতিস্থাপনের পর দেশে ফিরে কার্যত বিছানায় শুয়ে কাটাতে হয়েছিল পরের ছ’মাস। নিজেই বললেন, ‘‘এমনকী অন্ত্রেরও তো অনেকটা নেই!’