গ্রেট বৃটেন

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র পদত্যাগের ঘোষণা

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র পদত্যাগের ঘোষণা

ব্রেক্সিট ইস্যুতে ব্যর্থতার দায় নিয়ে পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। ৭ জুন তিনি পদত্যাগ করতে যাচ্ছেন। শুক্রবার লন্ডনে ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনের সামনে এক আবেগপূর্ণ বিবৃতিতে মে তার বিদায়ের কথা জানান।   বিবিসির খবরে বলা হয়, পদত্যাগ করলেও কনজারভেটিভ পার্টির একজন নতুন নেতা নির্বাচিত না হওয়া পর্যন্ত তিনি অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাবেন।   ব্রেক্সিট অর্থাৎ ব্রিটেনের ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগের ব্যাপারে তার নতুন পরিকল্পনা মন্ত্রীসভায় ও পার্লামেন্টে অনুমোদিত হবে না এটা স্পষ্ট হওয়ার পরই তিনি পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন।     দুঃখভরাক্রান্ত কণ্ঠে মে বলেন, ‘আমি খুব শিগগিরই আমার দায়িত্ব ছেড়ে দিচ্ছি। এই দায়িত্ব আমার আমার জন্য সম্মানের ছিল।’   তিনি আরো বলেন, ‘আমি আমার দেশকে ভালোব
বৃটেনে শহীদ মিনার নির্মানের জন্যে প্রায় ৬৬ হাজার পাউন্ড দান করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বৃটেনে শহীদ মিনার নির্মানের জন্যে প্রায় ৬৬ হাজার পাউন্ড দান করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বদরুল মনসুর:: বৃটেনের ওয়েলসের রাজধানী কার্ডিফ শহরের বে এলাকার ঐতিহ্যবাহী গ্রেইঞ্জমোর পাকে এখানকার বেড়ে উটা নব প্রজন্মের সন্তানদের সামনে আমাদের ভাষা. কৃষ্টি. সংস্কৃতি. ঐতিহ্য.সাফল্য সম্ভাবনা ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরা সহ বাংলাদেশের বিভিন্ন জাতীয় দিবস উদযাপনে বৃটেনের কাডিফে ইন্টারন্যাশনাল মাদার ল্যাংগুয়েজ মনুমেন্ট তথা শহীদ মিনার প্রতিষ্ঠার যে উদ্দোগ নেওয়া হয়েছিলো তাহা আজ সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। ফাউন্ডার ট্রাষ্টি. লাইফ ও সাধারন মেম্বার এবং ফ্রেন্ডস অব মনুমেন্ট এর মাধ্যমে সংগ্রহকৃত কালেকশন সহ বাংলাদেশ সরকার ও কার্ডিফ কাউন্টি কাউন্সিল এর সাবিক সহযোগীতায় আজ শহীদ মিনার পুরাপুরি দৃশ্যমান.। ওয়েলসের মাটিতে প্রথম এই শহীদ মিনার প্রজেক্ট বাস্তবায়নের মাধ্যমে ওয়েলসবাসী এক নব ইতিহাসের সূচনা করেছে। ওয়েলসের এই মহতি কাজে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে প্রায় ৬৬ হাজার পাউন্ড অনুদান প্রদ
ব্রেক্সিট নেতার গায়ে লাচ্ছি ছুঁড়লো প্রতিবাদকারী

ব্রেক্সিট নেতার গায়ে লাচ্ছি ছুঁড়লো প্রতিবাদকারী

ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বের হয়ে যাওয়া (ব্রেক্সিট) পক্ষের ডানপন্থি নেতা নাইজেল ফারাজের দিকে দুধের লাচ্ছি ছুঁড়ে মেরেছে এক ব্যক্তি। মঙ্গলবার পুলিশ এ তথ্য জানিয়েছে।   সোমবার ইংল্যান্ডের উত্তরে নিউক্যাসল শহরে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট নির্বাচনের পক্ষে প্রচার চালাচ্ছিলেন ইউ কে ইন্ডিপেন্ডেস পার্টি বা ইউকিপ দলের নেতা ফারাজ। এসময় পল ক্রাউথার নামের ৩২ বছরের এক ব্যক্তি ফারাজের দিকে লাচ্ছি ছুঁড়ে মারেন। পুলিশ ক্রাউথারকে গ্রেপ্তার করেছে। তাকে মঙ্গলবার আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে।   ইউরোপীয় ইউনিয়ন বিরোধীদের মধ্যে ফারাজই সর্বশেষ  নেতা যিনি ব্রেক্সিট বিরোধীদের হামলার শিকার হলেন।   নর্থুমব্রিয়া পুলিশ এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘দুপুর ১টার দিকে সিটি সেন্টারে ৫৫ বছরের এক ব্যক্তিকে লক্ষ্য করে লাচ্ছি ছোড়া হয়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ৩২ বছরের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে।’   ঘটনার
লন্ডনে গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউকের কমিটি

লন্ডনে গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউকের কমিটি

লন্ডনে গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউকের কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। ১৯ মে রোববার স্থানীয় সময় বিকেল ৭টায় পূর্ব লন্ডনে হোয়াইট চ্যাপেলের মক্কা গ্রিল রেস্টুরেন্টে ইফতার আয়োজিত হয়।   এ সময় সংগঠনটির কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হয়। গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউকের কর্ণধার অধ্যাপক আবুল হাসেম সংগঠনের নতুন কমিটির অনুমোদন দেয়। সর্ব সম্মতিক্রমে অধ্যাপক আবুল হাসেমকে সভাপতি ও সৈয়দ এহসানুল হককে সাধারণ সম্পাদক করে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়।   কার্যনির্বাহী কমিটির বাকি সদস্যরা হলেন সহ-সভাপতি পদে ব্যারিস্টার মনির জামান শেখ, অ্যাডভোকেট হাফিজুর রহমান মিনার, ড. বিএম রাজ্জাক; যুগ্ম সম্পাদক পদে আজহারুল ইসলাম শিপের, ফারুক আহমেদ, মো. মেহেদী হাসান, মনোয়ার হোসাইন; সাংগঠনিক সম্পাদক পদে সাইফুল ইসলাম (দুদু); দফতর সম্পাদক পদে হাসিব আহমেদ চৌধুরী।       এ ছাড়া
সৃজনশীল লোক খুঁজছেন রানি এলিজাবেথ

সৃজনশীল লোক খুঁজছেন রানি এলিজাবেথ

ফিরোজ আহম্মেদ (বিপুল), লন্ডন   ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রানির হয়ে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রক্ষার জন্য ডিজিটাল কমিউনিকেশনস অফিসার পদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।   রানির বাসভবন বাকিংহাম প্যালেস, যেখানে প্রতিটি কাজের জন্য ভিন্ন ভিন্ন লোক কাজ করে এমনকি রানির কুকুর দেখভালের জন্যও রয়েছেন একাধিক ব্যক্তি, সেখানে ইন্টারনেটের এই যুগে তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোর তদারকি করার কেউ থাকবে না তা কী করে হয়?   ব্রিটিশ রানি এলিজাবেথ সৃজনশীল এমন কাউকে খুঁজছেন যে তার ইমেইল চেক করাসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখবেন।   তাছাড়া তাকে রাজপরিবারের ওয়েবসাইট সামলানো থেকে শুরু করে রানির দৈনন্দিন কর্মতৎপরতার ওপর ফিচার লেখা এবং রানির বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগদানের খবরাখবর রাজপরিবারের সুবিস্তৃত নেটওয়ার্কে যারা যুক্ত আছেন তাদের
পদত্যাগ করতে পারেন থেরেসা মে

পদত্যাগ করতে পারেন থেরেসা মে

আগামী জুনের প্রথম সপ্তাহে ব্রেক্সিট নিয়ে আবারও ভোট হবে। ওই ভোটে ব্রেক্সিট পরিকল্পনা সফল না হলে পদত্যাগ করতে পারেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। পরবর্তী নির্বাচনের সময়সীমা জানিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।   ব্রেক্সিট ইস্যুতে প্রবল চাপের মুখে এই ঘোষণা দিলেন প্রধানমন্ত্রী মে। টোরি এমপিদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মের এক বৈঠকের পরই এ বিষয়ে সম্মতি জানিয়েছেন তিনি। অনেকদিন ধরেই ডাউনিং স্ট্রিট থেকে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করে আসছেন ওই এমপিরা।   ব্রেক্সিট ইস্যুতে এবারও হেরে গেলে থেরেসা মে পদত্যাগ করবেন। ইতোমধ্যেই তিনবার বেক্সিট ভোটে হেরে গেছেন মে। এদিকে, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন জানিয়েছেন, থেরেসা মে পদত্যাগ করার পর তিনি নির্বাচনে লড়বেন।   গত বছর শেষের দিকে একটি আস্থা ভোটে থেরেসা মের দল কনজারভেটিভ পার্টির এমপিদের ভোটে কোন রকমে উতরে গিয়েছিলেন তিনি। সাম
ব্রেক্সিট হলেই পদত্যাগ করবেন মে

ব্রেক্সিট হলেই পদত্যাগ করবেন মে

ব্রেক্সিটের প্রথম ধাপ সম্পন্ন হলেই ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। রবিবার দেশটির কারাগার বিষয়ক মন্ত্রী রবার্ট বাকল্যান্ডের বরাত দিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।   রয়টার্সের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, কনজারভেটিভ পার্টির এক মন্ত্রী রবার্ট বাকল্যান্ড জানান, 'পদত্যাগের বিষয়ে তার (থেরেসা মে) কোনো ব্যাখ্যা দেওয়ার প্রয়োজন নেই।'   ইতিপূর্বে থেরেসা মে প্রস্তাব করেছিলেন যে, যদি শেষ পর্যন্ত ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের সরে যাওয়ার (ব্রেক্সিট) বিষয়ে তার সম্পাদিত চুক্তিটি সংসদে পাস হয় তবে তিনি প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করবেন। এছাড়াও তার দলের শীর্ষস্থানীয় আইনপ্রণেতারাও নেতৃত্বে পরিবর্তন চাচ্ছেন বলে ওই প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হয়।     তবে গত বছর মার্কিন সংবাদ মাধ্যম স্কাই নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎ
লন্ডনের মেয়র সাদিক খানকে হত্যার হুমকি, নিরাপত্তা জোরদার

লন্ডনের মেয়র সাদিক খানকে হত্যার হুমকি, নিরাপত্তা জোরদার

লন্ডনের মেয়র সাদিক খান জানিয়েছেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। হুমকি পাওয়ার পর নিজের জন্য ২৪ ঘণ্টা পুলিশ পাহারা নেয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি। খবর পার্স ট্যুডে।   গত বছরের শেষের দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মেয়র সাদিক খানকে ২৩৭ বার হত্যার হুমকি দেয়া হয়। এসব হুমকি পাওয়ার পর ১৭ টি মামলা করা হয়েছে। এরপর থেকেই মেয়রের নিরাপত্তা জোরদার করেছে লন্ডন পুলিশ।   লন্ডন থেকে প্রকাশিত টাইমস পত্রিকাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এই মুসলিম মেয়র দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, একটি শহরের মেয়র হওয়ার কারণে নিজের ব্যক্তিগত জীবনে পুলিশি নিরাপত্তার মধ্যে থাকতে হবে একথা তিনি কখনো ভাবেননি।   টাইমসের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সাদিক খানকে যেসব হুমকি দেয়া হয়েছে তার ভাষা অত্যন্ত অশোভন এবং আপত্তিকর। সাদিক খান মনে করেন, ২০১৬ সালে ব্রিটেনে ব্রেক্সিটবিষয়ক গণভোট অনুষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে দ
পূর্ব লন্ডনে তারাবির সময় মসজিদে গুলি

পূর্ব লন্ডনে তারাবির সময় মসজিদে গুলি

পূর্ব লন্ডনের বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকা ইলফোর্ডের সেভেন কিংস মসজিদে তারাবির নামাজের সময় গুলির ঘটনা ঘটেছে।   বৃহস্পতিবার রাত ১১টার (বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টা) দিকে এ ঘটনা ঘটে।   লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র জানান, গুলাগুলির ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। পুলিশ ধারণা করছে ঘটনাটির সঙ্গে জঙ্গি হামলার সম্পৃক্ততা নেই। এ ঘটনায় মসজিদটি বন্ধ এবং বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।   ঘটনাটি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয়দের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে।   লন্ডনের ক্রয়োডন এলাকার একটি মসজিদের মুসল্লি জাকারিয়া খান বলেন, হামলার ঘটনায় লন্ডনজুড়ে মুসলমানদের মধ্যে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে।
ব্রিটেনে আবারও নীরব মোদির জামিন আবেদন খারিজ

ব্রিটেনে আবারও নীরব মোদির জামিন আবেদন খারিজ

এবার নিয়ে তিনবার জামিনের আবেদন খারিজ হয়ে গেল। ব্যাংক প্রতারণা মামলায় নীরব মোদির জামিন আবেদন খারিজ করে দিয়েছে ব্রিটিশ আদালত। ব্রিটেনের ওয়েস্ট মিনিস্টার আদালতে নীরব মোদির জামিন আবেদন খারিজ করে দেয়া হয়েছে।   ওই মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ৩০ মে। এর আগে আরও দু'বার তার জামিনের আবেদন খারিজ করা হয়েছে। গত ১৯ মার্চ নীরব মোদিকে স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড থেকে গ্রেফতার করা হয়।   তার বিরুদ্ধে ভারতের পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক থেকে ১৩ হাজার কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ রয়েছে। যদিও বরাবরই এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন নীরব মোদি।   তার জামিন যেন না হয় তা নিশ্চিত করতে লন্ডনে গিয়েছিল ভারতের ইডির কর্মকর্তাদের একটি দল। নীরব মোদির জামিনের আবেদন নিয়ে শুনানির আগে ব্রিটিশ সরকারের আইন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন তারা। ব্রিটিশ কর্মকর্তাদের কাছে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য