গ্রেট বৃটেন

জন্মসূত্রে নাগরিকত্ব বাতিলের পরিকল্পনায় ট্রাম্প কতটা সফল হবেন?

জন্মসূত্রে নাগরিকত্ব বাতিলের পরিকল্পনায় ট্রাম্প কতটা সফল হবেন?

নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে জন্মসূত্রে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব পাওয়ার চলতি নিয়ম বাতিলের পরিকল্পনা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জনপ্রিয় ওয়েবসাইট এক্সিওস এর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন। কিন্তু তিনি কি তা করতে পারেন? এই প্রশ্ন অনেকে তুলেছেন। ট্রাম্প বলেন, ‘আমেরিকার নাগরিক নন, এমন যে কেউ এসে সন্তান জন্ম দিলেই সেই সন্তান আমেরিকার নাগরিকত্ব দাবি করতে পারে। এই নিয়ম অত্যন্ত হাস্যকর, এটি বন্ধ হওয়া উচিত।’তবে এটি দেড়শ বছরের পুরোনো নীতি। তাতে বলা হয়েছে, আমেরিকার মাটিতে জন্মগ্রহণ করলেই দেশটির নাগরিকত্ব পাবে। এই ব্যবস্থা পরিবর্তনের জন্য সংবিধান সংশোধন প্রয়োজন বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন।ট্রাম্পের বক্তব্য হচ্ছে, তার আইন বিশেষজ্ঞরা তাকে নিশ্চিত করেছেন যে, তেমন কোনও সংশোধনীর প্রয়োজন নেই। নির্বাহী আদেশের মাধ্যমেই এটা করা সম্ভব। প্রেসিডেন্ট তার একক ক্ষমতাবলে এমন পদক্
জন্মসূত্রে মার্কিন নাগরিকত্ব প্রাপ্তির সুযোগ বন্ধ করছে ট্রাম্প প্রশাসন

জন্মসূত্রে মার্কিন নাগরিকত্ব প্রাপ্তির সুযোগ বন্ধ করছে ট্রাম্প প্রশাসন

যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব নেই এমন অধিবাসীদের সন্তানরা জন্মসূত্রে মার্কিন নাগরিকত্ব লাভের যে সুযোগ ভোগ করছে তা বন্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। মঙ্গলবার এইচবিও টিভি চ্যানেলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেন, সরকার অবৈধ অভিবাসী ও নাগরিকত্ব নেই এমন অধিবাসীর সন্তানদের জন্মসূত্রে মার্কিন নাগরিকত্ব লাভের সুযোগ বন্ধ করার পরিকল্পনা করছে। ১৯৬৮ সাল থেকে কার্যকর এই আইন বন্ধে তিনি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে পরামর্শ করছেন। ওই আইন অনুসারে, যেসব শিশু মার্কিন ভূ-খন্ডে জন্ম গ্রহণ করে, তাদের সবাইকে জন্মসূত্রে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব দেয়া হয়। এ বিষয়ে ট্রাম্প বলেন, আমরাই বিশ্বের একমাত্র দেশ যেখানে একজন ব্যক্তি আগমন করবে, শিশুর জন্ম দিবে এবং ওই শিশু অবধারিতভাবে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক হবে। যুক্তরাষ্ট্রে তাকে সব ধরণের সুযোগ-সুবিধা দেয়া হবে। এটা হাস্যকর।
যুক্তরাষ্ট্রে ইহুদিদের সিনাগগে অস্ত্রধারীর হামলা, নিহত ১১

যুক্তরাষ্ট্রে ইহুদিদের সিনাগগে অস্ত্রধারীর হামলা, নিহত ১১

যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যে ইহুদি ধর্মাবলম্বীদের উপসনালয় সিনাগগে এক অস্ত্রধারীর হামলায় অন্তত ১১ জন নিহত হয়েছে। এতে আহত হয়েছে আরো ছয় জন। শনিবার সেখানকার পিটাসবার্গ শহরে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ সন্দেহভাজন হামলাকারীকে আটক করেছে। এ খবর দিয়েছে আল জাজিরা। হামলার বিষয়ে শহরের জননিরাপত্তা পরিচালক ওয়েন্ডেল হিসরিক বলেন, শনিবারের হামলায় সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। সে একাধিক গুলিবিদ্ধ হয়েছে। পুলিশি হেফাজতে একটি হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে। গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই’র স্পেশাল এজেন্ট বব জোনস বলেন, হামলাকারী একটি রাইফেল ও তিনটি হ্যান্ডগান নিয়ে সিনাগগের মধ্যে হামলা শুরু করে। এসময় উপাসনালয়ের মধ্যে বিপুল সংখ্যক মানুষ ছিল। স্থানীয় টিভি চ্যানেলের খবরে বলা হচ্ছে, হামলাকারী একজন শ্বেতাঙ্গ পুরুষ। একজন নিরাপত্তাকর্মী বার্তা সংস্থা এপিকে জানিয়েছেন, গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তির নাম রবার্ট বাওয়ার্স। তা
বাংলাদেশে স্থিতিশীলতা দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র : বার্নিকাট

বাংলাদেশে স্থিতিশীলতা দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র : বার্নিকাট

গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য গ্রহণযোগ্য বিরোধীদলের অংশগ্রহণ দরকার বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শিয়া বার্নিকাট। তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্থিতিশীলতা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রত্যাশা করে। বাংলাদেশের মানুষের প্রত্যাশা পূরণে সরকার আন্তরিক বলে বিশ্বাস করি। সব দলের অংশ গ্রহণে, নিরপেক্ষ, শান্তিপূর্ণ নির্বাচন সবার প্রত্যাশা। দেশের গণতন্ত্র সমুন্নত রাখতে সব রাজনৈতিক দল আন্তরিক হবেন বলে আশাকরি। বাংলাদেশের আগামী নির্বাচন নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক হোক, এটাই চায় যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার (২২ অক্টোবর) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শিয়া বার্নিকাট বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব সুভাশিষ বসু ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মুন্সী সফিউল হকসহ সিনিয়র কর্মকর
যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার সাঈদা মুনা তাসনিম

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার সাঈদা মুনা তাসনিম

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার হিসেবে পেশাদার কূটনীতিক সাঈদা মুনা তাসনিমকে নিয়োগ দিয়েছে সরকার। অন্যদিকে নাজমুল কাওনাইনকে থাইল্যান্ডের বাংলাদেশ দূতাবাসের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। গতকাল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বহিঃপ্রচার অনুবিভাগের এক বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ এ দুই মিশনের নেতৃত্বে রদবদলের সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। বিসিএস একাদশ ব্যাচের কর্মকর্তা তাসনিম এর আগেও লন্ডনে বাংলাদেশ মিশনে দায়িত্ব পালন করেছেন। গুরুত্বপূর্ণ এই মিশনের প্রধান পদে তিনিই হচ্ছেন প্রথম নারী। ২০১৪ সালে রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব নিয়ে থাইল্যান্ডে যাওয়ার আগে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে জাতিসংঘ ও বহিঃপ্রচার অনুবিভাগের মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। এ ছাড়া জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশনেও তিনি ছিলেন। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে লেখাপড়ার পর তাসনিম ইউনিভার্সিটি অব অব ল
যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি তুলে ধরতে বিরাট ম্যুরাল

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি তুলে ধরতে বিরাট ম্যুরাল

যুক্তরাষ্ট্রে হ্যামট্র্যাক এলাকার বাসিন্দারা রবিবার সকালে দেখতে পাবেন একটি চমৎকার বড় আকারে ম্যুরাল। যাতে দেখা যাবে চা বাগানের উপর দিয়ে উড়তে থাকা বাংলাদেশের লাল-সবুজ রঙয়ের পতাকা গায়ে একটি হাস্যোজ্জ্বল মেয়ে। সঙ্গে রয়েছে রয়েল বেঙ্গল টাইগারের গর্বিত পদচারণা। যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে খোলা স্থানে বাংলাদেশি সংস্কৃতি, ইতিহাস নিয়ে এটাই প্রথম ম্যুরাল বলে মনে করা হচ্ছে। এই ম্যুরালে বাংলাদেশিদের পরিচয় তুলে ধরা হয়েছে। বাংলা গান ও বাঙালি সংস্কৃতির বিভিন্ন আয়োজনে স্থানীয় সময় রবিবার দুপুরে ম্যুরালটির উদ্বোধন করা হবে। ম্যুরালটি আঁকার কাছে স্থানীয় কমিউনিটির সঙ্গে কাজ করেছেন চিকিৎসক ফারহান হক। তিনি বলেন, এটি আমাকে বাংলাদেশি ঐতিহ্যে গর্বিত করে এবং যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে বড় কিছু করার কথা মনে করিয়ে দেয়। ৫৫ ফুট প্রস্থ ও ৪৬ ফুট উচ্চতার ম্যুরালটি এঁকেছেন মেক্সিকান-আমেরিকান চিত্রশিল্পী ভিক্টর কুইনোনেজ। তিনি মা
বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক চায় যুক্তরাষ্ট্র : এলিস ওয়েলস

বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক চায় যুক্তরাষ্ট্র : এলিস ওয়েলস

বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক চায় বলে জানিয়েছেন, ঢাকা সফররত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক প্রধান উপসহকারী পররাষ্ট্র মন্ত্রী এলিস ওয়েলস।রবিবার (২১ অক্টোবর) পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হকের সঙ্গে বৈঠকে তিনি একথা বলেন। পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক গণমাধ্যম কর্মীদের বলেন, বৈঠকে বাংলাদেশের আগামী নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন দেখতে চায়।বৈঠকে এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে কৌশলগত সম্পর্কের বিষয়েও আলোচনা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের কৌশলগত সম্পর্কের বিষয়ে বাংলাদেশের শক্তিশালী অংশগ্রহণ চায়। প্রসঙ্গত, গতকাল ঢাকায় এসেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক প্রধান উপসহকারী পররাষ্ট্র মন্ত্রী এলিস ওয়েলস চারদিনের সফেরে। আজ কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যাচ্ছেন তিনি। সেখা
যুক্তরাজ্যে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশি রেস্টুরেন্টের জন্য সম্মাননা

যুক্তরাজ্যে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশি রেস্টুরেন্টের জন্য সম্মাননা

যুক্তরাজ্যে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশি রেস্টুরেন্টগুলোর জন্য সম্মাননার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। মোহাম্মদ মুনিম নামের একজন ব্রিটিশ বাংলাদেশি উদ্যোক্তা এ উদ্যোগ নিয়েছেন। এর নাম দেওয়া হয়েছে এশিয়ান রেস্টুরেন্ট অ্যান্ড টেকওয়ে অ্যাওয়ার্ড (এআরটিএ)। দেশটিতে এশীয় কমিউনিটির রেস্টুরেন্টগুলোর জন্য এ ধরনের উদ্যোগ এটিই প্রথম। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে বাংলাদেশি খাবারের স্বাদ উদযাপন এবং একইসঙ্গে শেফ ও রেস্তোরাঁ মালিকদের সম্মানিত করা। এছাড়া যুক্তরাজ্যে এশীয় খাবারকে আরও জনপ্রিয় করে তোলাও এর অন্যতম উদ্দেশ্য। মোহাম্মদ মুনিম এই সম্মাননাকে যুক্তরাজ্যের আতিথেয়তা খাতের জন্য একটি ইতিবাচক উদ্যোগ হিসেবে বর্ণনা করেছেন। সম্মাননার জন্য সারাদেশ থেকে বিপুল সংখ্যক রেস্টুরেন্ট ও তাদের হাজার হাজার ক্রেতাদের অভিমতের বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ। সেক্ষেত্রে সারাদেশ থেকে বাছাইকৃত রেস্তোরাঁ নির্বাচনে টেকনোলজি পার্টনারদের সহায়তা নেওয়া হবে।
জাতিসংঘের মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হেলির পদত্যাগ

জাতিসংঘের মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হেলির পদত্যাগ

জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হেলি পদত্যাগ করেছেন। তিনি দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে তার পদত্যাগপত্র পেশ করেছেন। এ খবর জানিয়েছে সিএনএন। এর আগে হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি সারাহ সেন্ডার্স টুইট বার্তায় বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও রাষ্ট্রদূত নিকি হেলি ওভালের কার্যালয়ে সকাল সাড়ে ১০টায় বৈঠক করবেন। জাতিসংঘে দায়িত্ব পালনের আগে সাউথ ক্যারোলাইনার গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন নিকি হেলি। নিকি হেলি ছিলেন সাউথ ক্যারোলাইনার প্রথম নারী ও দেশটির সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর মধ্য থেকে আসা গভর্নর। তার বাবা-মা উভয়ই ভারতীয়। কূটনীতি ও পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ে অত্যন্ত স্বল্প অভিজ্ঞতা সম্পন্ন মিসেস হেলির নিয়োগ ঘোষণার পর কূটনৈতিক অঙ্গনে তাকে নিয়ে প্রথম দিকেই ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়। পরবর্তীতে ফিলিস্তিন ইস্যুতে তার দায়িত্বজ্ঞানহীন ও অসম্মানজনক বক্তব্যের কারণে আবারও বিশ্বব্যাপী

যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত বাংলাদেশের সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার ‘দুর্নীতির’ বিচার দাবিতে নিউইয়র্কে আওয়ামী লীগের সমাবেশ

যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত বাংলাদেশের সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার ‘দুর্নীতির’ বিচার দাবিতে নিউইয়র্কে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী পরিবারের ব্যানারে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্থানীয় সময় ৩ অক্টোবর বুধবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে ডাইভার্সিটি প্লাজায় এ র‌্যালির আয়োজন করা হয়। এসকে সিনহা তার নতুন বই ‘অ্যা ব্রোকেন ড্রিম: রুল অব ল, হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেমোক্রেসি’ বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যেরও প্রতিবাদ জানান হয় র‌্যালি থেকে। বক্তারা বলেন, ব্যক্তিস্বার্থে এসকে সিনহা কল্পনাপ্রসূত, মিথ্যা ও উদ্দেশ্যমূলক বই প্রকাশের মাধ্যমে বাংলাদেশের বিচার ব্যবস্থা তথা সরকারের বিরুদ্ধে নানা কল্পকাহিনী রটাচ্ছেন। বাংলাদেশকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছেন। এটা দেশদ্রোহিতার সামিল। তারা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বিচারপতি সিনহা এবং তার পেছনে মদদদাতাদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার দা