চট্টগ্রাম বিভাগ

মতলব-কচুয়া সড়ক যেন মরণ ফাঁদ

মতলব-কচুয়া সড়ক যেন মরণ ফাঁদ

রহিম বাদশা, চাঁদপুর ॥ চাঁদপুর জেলার মতলব-কচুয়া সড়কটি ক্ষত-বিক্ষত হয়ে মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। দীর্ঘ ৪ বছর ধরে সড়কটির এ করুণ দশায় যানবাহনসহ হাজার হাজার জনগণের চলাচলে নিদারুণ সমস্যা হচ্ছে। বিশেষ করে কলেরা ও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত কচুয়া, হাজীগঞ্জ ও কুমিল্লা জেলার মানুষকে এই পথেই মতলব আইসিডিডিআরবি হাসপাতালে যেতে হয়। স্থানীয়রা জানান, ওই সড়কে বাস, সিএনজি অটোরিক্সা, মাইক্রোবাসসহ মালবাহী ট্রাক চলাচলের ক্ষেত্রে চরম ঝুঁকি নিয়ে চলতে হয়। এসব যানবাহন প্রায়’ই দুর্ঘটনার শিকার হয়। বিকল্প সহজসাধ্য কোনো সড়ক না থাকায় বাধ্য হয়েই লোকজন সড়কটি ব্যবহার করছে। মতলব দক্ষিণ উপজেলার দগরপুর, নওগাও, ডুলিয়াপাড়া, দেলদিয়া, চড়পয়ালি, পয়ালি, চাপাতিয়া, জোড়পুল, কাশিমপুর এবং কচুয়ার চৌমুহনি বাজার, দোগর মোড়, গুলবাহার, বাতাবাড়িয়া হয়ে কচুয়া বাজার পর্যন্ত এলাকায় সড়কটির অবস্থা অত্যন্ত করুণ। যানবাহন তো দূরের কথা, ওইসব এলাকায় সড়কটি দিয়ে পায়
ফেনীর মানববন্ধনে বক্তারা জঙ্গিদের মুসলমান বলা যাবেনা

ফেনীর মানববন্ধনে বক্তারা জঙ্গিদের মুসলমান বলা যাবেনা

ফেনী প্রতিনিধি ঃ ০১ আগস্ট'১৬ জঙ্গিদের মুসলমান বলা যাবেনা। তারা ইসলামের শত্রু বলে মন্তব্য করেছেন ফেনীর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। সোমবার সকালে জঙ্গিবাদ নিপাত যাক, যে হয় জঙ্গি তার নাই সঙ্গি। ধর্মীয় উগ্রবাদকে না বলুন। সন্ত্রাস নয় শান্তি চাই, শংকামুক্ত জীবন চাই। এ জাতীয় সচেতনতামুলক ব্যানার, ফেষ্টুন, প্লেকার্ড নিয়ে রাস্তায় নেমেছে ফেনীর সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। সকাল দশটার পর থেকে ফেনী ইউনির্ভাসিটি, ফেনী সরকারী কলেজ, বীকন মডেল কলেজ, রামপুর নাসির মেমোরিয়াল কলেজ, ফেনী সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রাজাপুর ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা, ধলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, ফেনী সেন্ট্রাল হাই স্কুল ও মডেল হাই স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানের সামনে প্লেকার্ড ও ফেস্টুন নিয়ে মানববন্ধন করে। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মানববন্ধন করেছে। বেলা ১১ টায়
আমন ধান রোপনের ধুম ফেনীতে

আমন ধান রোপনের ধুম ফেনীতে

ফেনী প্রতিনিধি : ০১ আগস্ট’১৬ ফেনীতে চলতি মৌসুমে আমন ধান আবাদ শুরু হয়েছে। জেলার সবকটি উপজেলায় মাঠের পর মাঠ জুড়ে আমন ধানের চারা আবাদের ধুম পড়েছে। জেলায় এবার ৬৪ হাজার ১শ ১০ হেক্টর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। তবে গত বছরের তুলনায় এবার আবাদের পরিমাণ কিছুটা বেড়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর অফিস সূত্রে জানা গেছে, আগাম বৃষ্টি না হওয়ায় আমন চাষে কিছুটা বিলম্ব হলেও হাইব্রিড ও উন্নতমানের বীজ ব্যবহারের কারনে স্থানীয় কৃষকরা স্বল্প সময়ে আমন ঘরে তুলতে পারবে। জেলার সর্বাধিক লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন হয়েছে সোনাগাজী উপজেলায়। এখানে উফশী জাতের ১৪ হাজার ১শ ৫২ ও স্থানীয় জাতের ৬ হাজার ৯শ ৪ হেক্টর লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। ইতিমধ্যে ঊফশী জাতের আবাদ হয়েছে ১ হাজার ১শ ৫০ ও স্থানীয় জাতের ১ হাজার ৫শ ২০ হেক্টর। এছাড়া সদর উপজেলায় ১৫ হাজার ৬শ ৯৫ হেক্টর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। এর মধ্যে উফশী জাতের ৭শ হেক্টর আবাদ
মুছাপুর ক্লোজার কোম্পানীগঞ্জের সম্ভাবনাময় প্রকল্প

মুছাপুর ক্লোজার কোম্পানীগঞ্জের সম্ভাবনাময় প্রকল্প

মেছবাহ উদ্দিন, কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) থেকেঃ নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণাঞ্চল দিয়ে বয়ে যাওয়া ছোট ফেনী নদীর উপর নির্মিত মুছাপুর ক্লোজার (নদীর পানি প্রবাহ বন্ধের বিশেষ ব্যবস্থা) সম্ভাবনাময় এক প্রকল্পের বাস্তবায়ন। এর বাস্তবায়নে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)’র হিসেব অনুযায়ী, বছরে অতিরিক্ত ২লাখ ৪৬ হাজার মেট্রিক টন খাদ্য উৎপাদন হবে এবং রক্ষা পাবে ১ লাখ ৩০ হাজার হেক্টর জমি। ক্লোজারের কারণে এ এলাকায় লোনা পানি ঢোকা বন্ধ রয়েছে। ফলে এলাকার আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ঘটতে চলেছে দ্রুত। গড়ে উঠছে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, কৃষি খামার, মৎস্য চাষ। কয়েক মাস আগে বসত: ভিটা, কৃষি ও মৎস্য খামার হারিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়া কৃষক ও খামারীরা ঘুরে দাঁড়াতে পূর্বের চেয়েও উদ্যমী হয়ে উঠেছে। যাতায়াত সুবিধার কারণে ইতোমধ্যে এলাকাটি’র সুন্দর্য্যে বিমোহিত হয়ে ছুটে আসছে পার্শ্ববর্তী জেলা উপজেলার শত শত দর্শনার্থী। পাশেই রয়েছে বনবিভাগের ৩
কক্সবাজার বিজিবি’র বৃক্ষরোপণ অভিযান ও মৎস্য পোনা অবমুক্তকরণ কর্মসূচী অনুষ্ঠিত

কক্সবাজার বিজিবি’র বৃক্ষরোপণ অভিযান ও মৎস্য পোনা অবমুক্তকরণ কর্মসূচী অনুষ্ঠিত

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজার ১৭ বিজিবি’র বৃক্ষরোপণ অভিযান ও মৎস্য পোনা অবমুক্তকরণ কর্মসূচী-২০১৬” অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার সকালে সেক্টর সদর দপ্তরে ১৭ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন-এর ব্যবস্থাপনায় “বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-এর বৃক্ষরোপণ অভিযান ও মৎস্য পোনা অবমুক্তকরণ কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন ১৭ বিজিবি’র অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সেক্টর সদর দপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক, মেজর মোঃ নাজ আখতার হোসেন, সহকারী বন সংরক্ষক মোহাম্মদ হোসেইন, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ডঃ মাইনুদ্দিন আহম্মেদ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর উপ পরিচালক মোঃ শাহরিয়ার ও বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুলের শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীবৃন্দর। বৃক্ষ রোপন ও পোনা অবমুক্ত করার পর দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
দুই লক্ষ তিরাশি হাজার টাকার ইয়াবা উদ্ধার

দুই লক্ষ তিরাশি হাজার টাকার ইয়াবা উদ্ধার

কক্সবাজার প্রতিনিধি: ৯৪৪ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে ১৭ বিজিবি। রবিবার ৩১ জুলাই দুপুরে ১৭ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের রেজুআমতলী বিওপি’র কমান্ডার নায়েব সুবেদার মোহাম্মদ আদিল-এর নেতৃত্বে বান্দরবান পার্বত্য জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের আজুখাইয়া বিশেষ চেকপোষ্ট বসিয়ে তল্লাশীকালে পরিত্যক্ত অবস্থায় নয়শ চুয়াল্লিশ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। যার মূল্য- দুই লক্ষ তিরাশি হাজার দুইশত টাকা। এসব ইয়াবা আটকের কথা স্বীকার করেছেন ১৭ বিজিবি’র অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার। অভিযানে আটককৃত ইয়াবাসমূহ ব্যাটালিয়ন সদর জমা রেখে পরবর্তীতে বিশেষ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ধ্বংস করা হবে বলে বিজিবি সূত্রে জানাগেছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: পূর্ব বিরোধের জেরধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার রামরাইল ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার আনোয়ার হোসেন (আনু) কে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ রোববার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জরিত থাকার দায়ে পুলিশ দুই জনকে আটক করেছে। পুলিশ এবং নিহতের স্বজনেরা জানান, গত ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের বিরোধ নিয়ে রামরাইল ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী ইয়াছিন এবং তার সমর্থকদের সাথে বর্তমান নির্বাচিত মেম্বার আনোয়ার হোসেন (আনু‘র) বিরোধ চলছিল। এই বিরোধের জেরধরে নিজবাড়ীতে ফেরার পথে আজ ভোররাতে মেম্বার প্রার্থী ইয়াছিন এর বাড়ির সামনে পরিকল্পিত ভাবে তাকে ধারালো অস্ত্রদিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে দুর্বৃত্তরা। পরে আশংকা জনক অবস্থায় প্রথমে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপালে নেয়ার পথে কিশোরগঞ্জের ভৈরব এলাকায় ভোর ৬টার দিকে তার মৃত্যুহয়। পরে নিহতের লাশ ব্রাহ্মণবাড়ি

খাগড়াছড়িতে প্রান্তিক চাষিদের মাঝে ফলদ চারা ও কলম বিতরণ

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি॥ খাগড়াছড়িতে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে ফলদ ও কলম বিতরণ করা হয়েছে। খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের উদ্যোগে রবিবার সকালে ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনিস্টিটিউট প্রাঙ্গনে এই ফলদ ও কলম বিতরণ করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, পুলিশ সুপার মোঃ মজিদ আলী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ এটিএম কাউছার হোসেন, জেলা পরিষদের সদস্য এড. আশুতোষ চাকমা, খাগড়াছড়ি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক তরুণ ভট্টাচার্য্য, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান চঞ্চু মণি চাকমা প্রমুখ। এর আগে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে পরিবেশ রক্ষায় গাছ লাগানোর উপর গুরুত্বরোপ করেন বক্তারা। অনুষ্ঠানে দুইশ কৃষকের মাঝে আম,বেল ,তেজপাতার ৫০টি করে চারা বিতরণ করা হয়। জানাগেছে, খাগড়াছড়ির ১৮শ কৃষকের মাঝে ধারাবাহিকভাবে এ চার

হাইমচরে ডাকাতি ॥ সন্দেহভাজন ৩জন আটক

চাঁদপুর প্রতিনিধি॥ চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলার পশ্চিম চরকৃষ্ণপুর গ্রামে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাত দল নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার ও অন্যান্য জিনিসপত্রসহ ৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়েছে বলে জানা গেছে। ডাকাতির ঘটনায় জড়িত সন্দেহভাজন ৩জনকে হাইমচর থানা পুলিশ আটক করেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ৩০ জুলাই রাত ৩টায় পশ্চিমচর কৃষ্ণপুর গ্রামে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ নূর হোসেন পাটওয়ারীর বাড়িতে একদল মুখোশ পরিহিত অ¯্রধারী ডাকাত ঘরে ডুকে চেয়ারম্যানের বড় ভাই নুরুল আমিন মাস্টার ও তার স্ত্রীর মাথায় অস্ত্র ঠেকিয়ে ঘরের কোথায় কী আছে জানতে চায়। একপর্যায়ে প্রাণের ভয়ে নুরুল আমিন ঘরে থাকা বিভিন্ন জিনিসপত্রের সন্ধান দিলে ডাকাত দল নগদ ৮৫ হাজার টাকা, ল্যাপটপ, ৫টি মোবাইল সেট , স্বর্নের কানের দুল ও ৪টি আংটিসহ হাতের কাছে যা পেয়েছে সব কিছু নিয়ে চলে পালিয়ে যায়। পরে তাদের চিৎকারে প্রতিবেশী লোকজন ও পুলিশ এসে

চাঁদপুরে পৌর জামায়াত কর্মী গ্রেফতার

চাঁদপুর প্রতিনিধি॥ চাঁদপুরে মো. শুক্কুর নামের পৌর জামায়াতের এক কর্মীকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। শনিবার সন্ধ্যায় শহরের নিউ ট্রাক রোডের মার্কেটের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি শহরের নিউ ট্রাক রোড মাস্তান বাড়ির মৃত আমজাদ আলীর মাস্তানের ছেলে। চাঁদপুর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আহসানুজ্জামান লাবু জানান, শুক্কুরের বিরুদ্ধে চাঁদপুর মডেল থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে নাশকতার তিনটি ও এলাকায় মারামারির ঘটনায় দু’টি মামলা রয়েছে। চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ওয়ালী উল্যাহ অলি জানান, শুক্কুর স্থানীয় জামায়াত-শিবিরের নেতা-কর্মীদের পৃষ্ঠপোষক। শুক্কর মাস্তানের বিষয়ে চাঁদপুর পৌর জামায়াতের আমির অ্যাডভোকেট শাহজাহান মিয়া জানান, শুক্কুর মাস্তান জামায়াতের একজন সমর্থক। তিনি এলাকায় সমাজসেবক হিসিবে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে যে মামগুলো রয়েছে সেগুলোতে জামিনে আছেন।