টপ নিউজ

অ্যাটর্নি জেনারেলকে বরখাস্ত করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

অ্যাটর্নি জেনারেলকে বরখাস্ত করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

অভিবাসন নীতি নিয়ে প্রশ্ন তোলায় অ্যাটর্নি জেনারেলকে বরখাস্ত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি জেনারেল স্যালি ইয়েটসকে বারাক ওবামার সময়কালে নিয়োগ করা হয়েছিল। অভিবাসন বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে নির্বাহী আদেশ জারী করেছিলেন সেটিকে বলবৎ না করতে জাস্টিস ডিপার্টমেন্টের কর্মকর্তাদের আদেশ দিয়েছিলেন মিস ইয়েটস। সেজন্য তাকে বরখাস্ত করলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। হোয়াইট হাউজের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, অ্যাটর্নি জেনারেল তার দফতরের সাথে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’ করেছেন। এর আগে এক চিঠিতে মিস ইয়েটস বলেছিলেন, অভিবাসন বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে আদেশ জারী করেছিলেন সেটি আইন সংগত হয়নি বলেই তার মনে হয়। তিনি বলেছিলেন, ‘আমি যতক্ষণ ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে আছি, ততক্ষণ পর্যন্ত জাস্টিস ডিপার্টমেন্ট প্রেসিডেন্টের নির্বাহী আদেশের পক্ষে কোন যুক্তি
যা কিছু প্রয়োজন, আল্লাহকেই বলুন

যা কিছু প্রয়োজন, আল্লাহকেই বলুন

‘আর হে নবী! আমার বান্দা যদি তোমার কাছে আমার সম্পর্কে জিজ্ঞেস করে, তাহলে তাদেরকে বলে দাও, আমি তাদের কাছেই আছি। যে আমাকে ডাকে আমি তার ডাক শুনি এবং জবাব দেই, কাজেই তাদের আমার আহ্বানে সাড়া দেয়া এবং আমার ওপর ঈমান আনা উচিত, এ কথা তুমি তাদের শুনিয়ে দাও, হয়তো সত্য-সরল পথের সন্ধান পাবে।’(সূরা বাকারা : ১৮৬) ‘পৃথিবী ও আকাশমণ্ডলে যা-ই আছে সবাই তাঁর কাছে নিজের প্রয়োজন প্রার্থনা করছে। প্রতি মুহূর্তে তিনি নতুন নতুন কর্মকাণ্ডে ব্যস্ত।’(সূরা আর রাহমান:২৯) মহাবিশ্বের এ কর্মক্ষেত্রে প্রতি মুহূর্তে তাঁরই কর্মতৎপরতার এক সীমাহীন ধারাবাহিকতা চলছে। কাউকে তিনি মারছেন আবার কাউকে জীবন দান করছেন। কারো উত্থান ঘটাচ্ছেন আবার কারো পতন ঘটাচ্ছেন, কাউকে আরোগ্য দান করছেন আবার কাউকে রোগাক্রান্ত করেছেন, কাউকে ডুবন্ত অবস্থা থেকে রক্ষা করেছেন আবার সাঁতার কেটে চলা কাউকে নিমজ্জিত করেছেন। সীমা সংখ্যাহীন সৃষ্টিকে নানাভাবে রিজিক দা
প্রথা ভেঙে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ওবামার বিবৃতি

প্রথা ভেঙে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ওবামার বিবৃতি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নতুন অভিবাসন নীতি নিয়ে সারা বিশ্বে এখন সমালোচনার ঝড় বইছে। আমেরিকা ছাড়াও ব্রিটেনের বেশ কয়েকটি শহরে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী ট্রাম্প-বিরোধী বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। এরকম প্রেক্ষাপটে রেওয়াজ ভেঙ্গে একটি বিবৃতি দিয়েছেন সদ্য-সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। রেওয়াজ অনুযায়ী কোন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট তার উত্তরসূরিদের কর্মকাণ্ড নিয়ে কখনো মন্তব্য করেন না। মি. ওবামা অবশ্য হোয়াইট হাউজ ত্যাগ করার আগে বলেছিলেন, তিনি যদি মনে করেন মি. ট্রাম্প আমেরিকানদের মূল মূল্যবোধের উপর হুমকি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন, তাহলে হয়তো তিনি এটা নিয়ে কথা বলবেন। তার মুখপাত্র কেভিন লুইস বলেছেন, সাবেক নেতা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অভিবাসন বিষয়ক নীতির সাথে একমত পোষণ করেন না।
সুনামগঞ্জে ইজিবাইকে ওড়না পেঁচিয়ে এক নারীর মৃত্যু

সুনামগঞ্জে ইজিবাইকে ওড়না পেঁচিয়ে এক নারীর মৃত্যু

সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার সুনামগঞ্জ-ডলুরা সড়কে ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকের চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তার নাম মাসুমা বেগম (৪০)। তিনি সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের তেরাপুর গ্রামের জয়নাল আবেদিনের স্ত্রী। স্থানীয় মঙ্গলকাটা বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আবদুর রব জানান, মাসুমা বেগম একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে (এনজিও) চাকরি করতেন। সোমবার সকাল ১০টার দিকে তিনি নিজ গ্রাম থেকে একটি ইজিবাইকে চড়ে মঙ্গলকাটা বাজারে তার কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। পথে ভৈষারপাড় নামক এলাকায় তার গলায় থাকা ওড়নাটি ইজিবাইকের চাকায় আটকে যায়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। মাসুমা বেগমের ছোট বোনের স্বামী আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘খবর পেয়ে আমরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। মাসুমা বেগমের স্বামী জয়নাল আবেদিন একজন স্কুলশিক্ষক।
আরেকটি পুরস্কারে ভূষিত মোস্তাফিজ

আরেকটি পুরস্কারে ভূষিত মোস্তাফিজ

বাংলাদেশ ক্রীড়ালেখক সমিতি (বিএসপিএ) আয়োজিত ২০১৫ ও ১৬ সালের বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদের পুরস্কার লাভ করেছেন যথাক্রমে ক্রিকেটার মোস্তাফিজুর রহমান ও সাঁতারু মাহফুজা খাতুন শিলা। দর্শকদের সরাসরি ভোটে পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ডও লাভ করেছেন মোস্তাফিজুর। প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত এমপি। কুল-বিএসপিএ স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক ক্রীড়া সাংবাদিক সংস্থা এআইপিএস এশিয়ার প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ কাশিম ও স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেডের হেড অব মার্কেটিং মালিক মোহাম্মদ সাঈদ। অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন বিএসপিএ সভাপতি মোস্তফা মামুন। অনুষ্ঠানে ২০১৫ সালের সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কাল লাভ করেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। সেরা দাবাড়–র পুরস্কার পেয়েছেন ফাহাদ রহমান। এছাড়া সেরা আর্চ্যার
রাজধানীতে পৃথক ৩ সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু

রাজধানীতে পৃথক ৩ সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু

রাজধানীতে পৃথক তিনটি সড়ক দুর্ঘটনায় চার জনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার রাতে এসব ঘটনা ঘটে। গতকাল সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর খিলক্ষেতে হোটেল লা মেরিডিয়ানের সামনে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় আবু বকর সিদ্দিক নিলয় (২২) নামে এক কলেজছাত্র নিহত হয়েছেন। নিহত নিলয় পুরান ঢাকার গেন্ডারিয়া এসকে দাস রোড এলাকার শাহাদত আলীর ছেলে। জানা যায়, সন্ধ্যায় খিলক্ষেত লা মেরিডিয়ানের সামনে রাস্তা পার হওয়ার সময় চলন্ত একটি বাস তাকে ধাক্কা দেয়। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হলে রাত সাড়ে ৮টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক নিলয়কে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে খিলগাঁওয়ের বনশ্রীর নাগদারপাড়ায় স্বাধীন পরিবহনের একটি বাস রাস্তার পাশে খাদে পড়ে দু’জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানিয়
প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে নতুন প্রজন্মকে এগিয়ে নিতে হবে

প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে নতুন প্রজন্মকে এগিয়ে নিতে হবে

আধুনিক বিশ্বের জ্ঞান-বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে যুগোপযোগী শিক্ষার মাধ্যমে নতুন প্রজন্মকে এগিয়ে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, জাতীয় বাজেটে শিক্ষায় যে বরাদ্দ দেয়া হয়, তা ব্যয় নয়, আমার কাছে মনে হয় বিনিয়োগ। কারণ এই অর্থ ব্যয়ে আমরা আমাদের প্রজন্মকে গড়ে তুলছি। রোববার সকালে ‘জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৭’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।
স্ত্রীর মৃত্যুর মামলায় ৬ বছর লড়ে জিতলেন স্বামী

স্ত্রীর মৃত্যুর মামলায় ৬ বছর লড়ে জিতলেন স্বামী

ভারতে চিকিৎসায় গাফিলতিতে স্ত্রীর মৃত্যুর অভিযোগে দায়ের করা এক মামলায় ছয় বছর ধরে আইনি লড়াই চালিয়েছেন এক স্বামী। কলকাতার অ্যাপোলো হাসপাতাল ও দুই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে তিনি এ মামলায় লড়েন। মামলাটি কলকাতা থেকে দিল্লি পর্যন্ত গড়ায়। স্বামী নিজেই ছিলেন এ মামলার আইনজীবী। অন্য কোনো আইনজীবী তিনি নিয়োগ দেননি। ছয় বছর পর অবশেষে তার জয় হয়। ওই স্বামীর নাম শুভ্রশঙ্কর মুখোপাধ্যায়। এ মামলায় দিল্লির আদালত অভিযুক্ত এক চিকিৎসককে ১২ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে। অার অ্যাপোলো হাসপাতালটিকে দিতে হবে ৪ লাখ টাকা। অন্য চিকিৎসক আপাতত জামিন দেয়া হয়েছে। ছয় বছরের এই ‘অসম’ লড়াই জিতে যাওয়ার পরে কান্নায় ভেঙে পড়েন স্বামী শুভ্রশঙ্কর । এ সময় তিনি বলেন, ‘মৃত্যুশয্যায় শুয়ে চিরকুটে কাঁপা হাতে আমার স্ত্রী শর্মিষ্ঠা লিখেছিল—ডাক্তাররা আমাকে দেখেনি। এখানে ফেলে গেছে। শর্মিষ্ঠার যন্ত্রণার কিছুটা উপশম হয়তো হলো।’ তবে অন্
অভিবাসীদের নিয়ে ট্রাম্পের আদেশ সাময়িকভাবে স্থগিত

অভিবাসীদের নিয়ে ট্রাম্পের আদেশ সাময়িকভাবে স্থগিত

সিরিয়া, ইরাক, ইরানসহ সাতটি মুসলিম প্রধান দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে নির্বাহী আদেশ জারি করেছিলেন তা সাময়িকভাবে স্থগিত করে দিয়েছেন স্থানীয় একজন বিচারক। বৈধ ভিসা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছানোর পরও মুসলিমপ্রধান কয়েকটি দেশের নাগরিকদের বিমানবন্দর থেকে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়াও শুরু করে দিয়েছিল দেশটির কর্তৃপক্ষ। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশের বিরুদ্ধে শনিবার একটি মামলা করে আমেরিকান সিভিল লিবার্টিস ইউনিয়ন বা এসিএলইউ। তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে নিউ ইয়র্কের স্থানীয় এক আদালতের বিচারক স্থানীয় সময় শনিবার রাতে এ স্থগিতাদেশটি দেন। আবেদনটি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত মি: ট্রাম্পের অভিবাসী সংক্রান্ত নির্বাহী আদেশ বাস্তবায়ন আপাতত স্থগিত থাকবে। যুক্তরাষ্ট্রের জেলা জজ আদালতের বিচারক অ্যান ডানলি এই আদেশটি দেন। ফলে যারা বৈধ ভিসা
যুক্তরাষ্ট্র মুখ ফেরালেও শরণার্থীদের নেবে কানাডা

যুক্তরাষ্ট্র মুখ ফেরালেও শরণার্থীদের নেবে কানাডা

যুক্তরাষ্ট্র মুখ ফিরিয়ে নিলেও শরণার্থীদের ফিরিয়ে দেবে না যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো শরণার্থীদের প্রতি এক বার্তায় জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্র যেসব শরণার্থীদের প্রত্যাখ্যান করেছে তাদের গ্রহণ করবে কানাডা। কানাডার শরণার্থী নীতি নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ট্রুডো। সাতটি মুসলিম দেশের শরণার্থী এবং অভিবাসীদের ওপর ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে শনিবার এক টুইট বার্তায় ট্রুডো বলেন, ‘নিপীড়ন, সন্ত্রাস এবং যুদ্ধ থেকে পালিয়ে বেড়ানো এসব মানুষকে স্বাগত জানাবে কানাডা। কেননা বৈচিত্র্যই আমাদের বৈশিষ্ট্য।’ ২০১৫ সালে টোরোন্টো বিমানবন্দরে এক শরণার্থী শিশুর সঙ্গে তোলা ছবিও পোস্ট করেছেন ট্রুডো। সেবছর অনেক শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছিল কানাডা। এছাড়া ট্রুডো নির্বাচনে জয়ী হবার পর থেকে এ পর্যন্ত ৩৯ হাজারের বেশি শরণার্থীকে আ