বাংলাদেশ

ইলেকট্রনিক মাধ্যমে ভাষার ব্যবহার

ইলেকট্রনিক মাধ্যমে ভাষার ব্যবহার

ড. সাখাওয়াৎ আনসারী :: ভাষা সম্পর্কে এ দেশের মানুষের যে ধারণা, তা অনেকটাই ভ্রান্ত। ভাষা বলতে এ দেশের মানুষ বাচনকে (স্পিচ) যেমন বোঝে, তেমনই বোঝে লেখাকেও। বস্তুত আমরা যা বলি, তা-ই ভাষা। আমরা যা লিখি, সেটি ভাষা নয়। এটি লেখা (রাইটিং)। বলা প্রয়োজন, লেখা হলো ভাষাকে সংরক্ষণের একটি কৌশল (রাইটিং ইজ এ টেকনিক অব রেকর্ডিং ল্যাংগুয়েজ)। এ কারণেই বাংলা ভাষায় রচিত ভাষার ধারণা-নির্দেশক যে বক্তব্য- ভাষার দুই রূপ :একটি কথ্য এবং অন্যটি লেখ্য- ভুল। আসলে ভাষার রূপ একটিই, আর সেটি হলো আমাদের মুখনিঃসৃত কথা। স্মর্তব্য, 'ভাষা' শব্দটির মূলও সংস্কৃত 'ভাষ্‌' থেকে, যা মুখনিঃসৃত বাচনকেই নির্দেশ করে। ভাষাই মুখ্য, লেখা গৌণ। লেখা গৌণ বলেই যে লেখাকে গুরুত্বহীন ভাবতে হবে- এমন নয়। লেখা গৌণ হওয়া সত্ত্বেও লেখার সৃষ্টি কিন্তু ভাষার সীমাবদ্ধতা থেকেই। ভাষার রয়েছে দুটি প্রধান সীমাবদ্ধতা :এক. স্থানগত সীমাবদ্ধতা এবং দুই. কালগত সীমাব
মুক্ত পরিবেশ ছাড়া মুক্ত সাংবাদিকতা করা যায় না

মুক্ত পরিবেশ ছাড়া মুক্ত সাংবাদিকতা করা যায় না

সংবিধানের ৩৯ ধারায় প্রদত্ত নাগরিকের অধিকার হলো স্বাধীনভাবে মতপ্রকাশ ও খবর প্রচার করা। খবরের ব্যাখ্যা এবং প্রকাশিত খবর ও মতের বিশ্লেষণ করাও এর অন্তর্ভুক্ত। এ জন্য দরকার গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক পরিবেশ ও পরমতসহিষ্ণুতা। নাগরিকের এ অধিকার সংরক্ষণের জন্য মুক্ত পরিবেশ ও আইনি ধারামুক্ত পরিবেশ নিশ্চিত করা জরুরি। এটা করার প্রাথমিক দায়িত্ব রাষ্ট্রের ও সরকারের। মুক্ত গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক পরিবেশ না হলে মুক্ত সাংবাদিকতা করা যায় না। এমনিতে সংবিধানের ৩৯ ধারায় কতগুলো শর্ত সাপেক্ষে স্বাধীন সাংবাদিকতা নিশ্চিত করা হয়েছে। এই শর্তগুলো (যুক্তিসংগত বিধিনিষেধ) হলো, যেমন রাষ্ট্রের নিরাপত্তা, বন্ধুরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়ন ও সম্পর্ক বজায় রাখা, জননিরাপত্তা, নৈতিকতা ও আদালত অবমাননার বিষয়গুলো মেনে চলতে হবে। সংবিধানের এসব শর্ত নিয়ে কোনো কথা বলছি না; কথা বলতে হয় যখন এই শর্তগুলো বিশেষ উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হয়।
আমিরাতের ক্রাউন প্রিন্সকে শেখ হাসিনার উপহার

আমিরাতের ক্রাউন প্রিন্সকে শেখ হাসিনার উপহার

আবুধাবির যুবরাজ এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের সশস্ত্র বাহিনীর ‘ডেপুটি সুপ্রিম কমান্ডার’ শেখ মুহম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাজধানী আবুধাবির প্রেসিডেন্সিয়াল প্যালেসে স্থানীয় সময় বিকেল চারটায় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় প্রধানমন্ত্রী ১৯৭৪ সালে বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের আবুধাবি সফরকালে আমিরাতের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রথম প্রেসিডেন্ট প্রয়াত শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের সঙ্গে তোলা বঙ্গবন্ধুর একটি দুর্লভ ছবি যুবরাজকে উপহার দেন। বৈঠকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন ও সায়মা ওয়াজেদ হোসেন পুতুল উপস্থিত ছিলেন। এর আগে দেশটির প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট প্রয়াত শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের স্ত্রী শাইখা ফাহিমা বিনতে মুবারক আল কেতবির সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর আগে এদিন সকালে
সমুদ্রে গ্যাসের উপস্থিতি নিয়ে সমীক্ষা চালাবে সরকার

সমুদ্রে গ্যাসের উপস্থিতি নিয়ে সমীক্ষা চালাবে সরকার

ডেস্ক রিপোর্ট :: বঙ্গোপসাগরে বাংলাদেশের অধিকৃত জলসীমায় ‘গ্যাস হাইড্রেট’ বা জমাট বরফের স্ফটিক থেকে জ্বালানি গ্যাসের উপস্থিতি, অবস্থান, প্রকৃতি ও মজুত বিষয়ে নতুন করে সমীক্ষা করতে চায় সরকার। এ জন্য পূর্বে সম্পাদিত জরিপ থেকে প্রাপ্ত তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করার জন্য সরাসরি ক্রয়পদ্ধতি অনুসরণের মাধ্যমে একটি ডেস্কটপ স্টাডি সম্পাদন-সংক্রান্ত পেশাগত সেবা করতে চায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এ সেবা ক্রয়ে নীতিগত অনুমোদনের জন্য অর্থনৈতিক বিষয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে একটি প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। আগামীকাল সোমবার সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলনকক্ষে কমিটির আহ্বায়ক অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। বৈঠকে এটির নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়ে পারে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। সূত্র জানায়, ভারত ও মিয়ানমারের সঙ্গে সমুদ্রসীমা নির্ধারণের পর বাংলাদেশ মূল ভূখণ্ডের ন্যায় ৮
চট্টগ্রামসহ ৬ জেলায় ভূমিকম্প

চট্টগ্রামসহ ৬ জেলায় ভূমিকম্প

হঠাৎ রোববার সকালে ভূমিকম্পে চট্টগ্রামসহ ছয় জেলা কেঁপে উঠল। সকাল ৮টা ৫৮ মিনিট ৫০ সেকেন্ডে এই ভূকম্পন অনুভূত হয় বলে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে। আবহাওয়া অধিদফতরের কর্তব্যরত কর্মকর্তা আয়েশা খাতুন জানান, সকাল পৌনে ১০টায় চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন এলাকা কেঁপে উঠে। ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল ভারতের মিজোরাম। চট্টগ্রামে ৪ দশমিক ৭ রিখটার স্কেল মাত্রার ভূমিকম্প রেকর্ড করা হয়। ভূমিকম্পের স্থায়িত্বকাল কতক্ষণ ছিল জানতে চাইলে তিনি বলেন, তারা স্থায়িত্বকাল রেকর্ড করেন না। চট্টগ্রাম জেলা ছাড়াও রাঙামাটি, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি, কক্সবাজার ও কুমিল্লায় একইসময়ে ভূমিকম্প হয়। এখনও পর্যন্ত কোনো ক্ষয়ক্ষতির সংবাদ পাওয়া যায়নি। কক্সবাজার শহরের বাজারঘাটা এলাকা গৃহবধূ আফরোজা জামান বলেন, পারিবারিক কাজ করছিলাম- এমন সময় দেখি ভবনটি দুলছে। ভূমিকম্প বুঝতে পেরে সবাইকে নিয়ে দ্রুত বাইরে চলে যায়। এদিকে রাজধানীতে সকা
নাসার প্রতিযোগিতায় বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

নাসার প্রতিযোগিতায় বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

ডেস্ক রিপোর্ট :: বিশ্বের সবচেয়ে বড় হ্যাকাথন প্রতিযোগিতা নাসার ‘ইন্টারন্যাশনাল স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জে’ অংশ নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্বকারী দল হিসেবে এবারই প্রথম মূল ক্যাটাগরিতে শীর্ষ চারে জায়গা করে নেওয়ার পর চ্যাম্পিয়ন হলো শাবির দল ‘সাস্ট অলিক’। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া, মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর ও জাপানের তিনটি দলকে হারিয়ে এই গৌরব অর্জন করে দলটি। ‘বেস্ট ইউজ অব ডাটা’ ক্যাটাগরিতে চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। এছাড়া ‘বেস্ট ইউজ অব হার্ডওয়ার’ ক্যাটাগরিতে শীর্ষ দশে জায়গা করে নিয়েছে ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘প্ল্যানেট কিট’। চ্যাম্পিয়ন ‘সাস্ট অলিক’ দলের সদস্যরা হলেন- শাবির সিএসই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী (মেন্টর), পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৩-১৪ সেশনের শিক্ষার্থী এসএম রাফি আদনান, ভূগোল ও পরিবেশ বিদ্যা বিভাগের ২০১৩-১৪ সেশ
ঢাকার একাংশে ২৪ ঘণ্টার জন্য গ্যাস বন্ধ

ঢাকার একাংশে ২৪ ঘণ্টার জন্য গ্যাস বন্ধ

যান্ত্রিক ত্রুটি মেরামতের জন্য ঢাকার আজিমপুর থেকে ধানমন্ডি হয়ে মিরপুর পর্যন্ত এলাকায় বাসাবাড়ি ও সিএনজি ফিলিং স্টেশনে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রয়েছে।   শনিবার সকালে এই পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর আগামী ২৪ ঘণ্টা তা বিরাজ করবে বলে গ্যাস সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান তিতাসের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে।   মোহাম্মদপুর এলাকার বাসিন্দা এক বাসিন্দা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, সকালে ঘুম থেকে উঠে চুলা জ্বালাতে গিয়ে দেখেন যে মিটমিট করে আগুন জ্বলছে। কিছুক্ষণ পর গ্যাস পুরোপুরি চলে যায়।   এরপর ধানমন্ডি, আজিমপুর থেকেও অনেকে তাদের ঘরে গ্যাস না থাকার বিষয়টি জানায়। একই কথা বলেন মিরপুর এলাকার অনেক বাসিন্দা।     ফাইল ছবি   চুলা না জ্বলায় এসব এলাকার বাসিন্দাদের ছুটতে দেখা যায় রেস্তোরাঁগুলোতে। কিন্তু সেখানেও গ্যাস না থাকায় খাবার অনেককে খাবার না পেয়েই ফিরে আসতে হয়।
আমবয়ানের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমা শুরু

আমবয়ানের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমা শুরু

ডেস্ক রিপোর্ট :: তুরাগ নদীর তীরে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মুসলিম জমায়েত চার দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমা শুক্রবার বাদ ফজর থেকে আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে। বিশ্ব ইজতেমার আয়োজক কমিটির মুরুব্বি প্রকৌশলী মো. মাহফুজুর রহমান জানান, শুক্রবার বাদ ফজর উর্দুতে চূড়ান্ত আম বয়ানের মধ্য দিয়ে এবারের বিশ্ব ইজতেমার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পাকিস্তানের মাওলানা জিয়াউল হক শুল বয়ান শুরু করেন। আর বাংলাদেশের নোয়াখলীর মাওলানা নূরুর রহমান তা বাংলায় তরজমা করেন। ইজতেমাস্থলের বয়ান মঞ্চ থেকে মূল বয়ান উর্দূতে হলেও তাৎক্ষণিকভাবে ২৪টি ভাষায় তা তরজমা হচ্ছে। শনিবার মাওলানা জোবায়ের পন্থীদের আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। মোনাজাত শেষে জোবায়ের পন্থীরা ময়দান ছেড়ে চলে গেলে রোববার থেকে মাওলানা সা’দ পন্থীদের পরিচালনায় ইজতেমা ফের শুরু হবে। সোমবার মাওলানা সাদ পন্থীদের আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে এ পর্বের চার দিনের বিশ্ব ইজতেমা।
ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী আজ

ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী আজ

ডেস্ক রিপোর্ট :: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী ও দেশবরেণ্য পরমাণু বিজ্ঞানী প্রয়াত ড. এম.এ ওয়াজেদ মিয়ার ৭৭তম জন্মবার্ষিকী আজ। তিনি ১৯৪২ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার লালদিঘীর ফতেহপুর গ্রামের মিয়া পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের অধিকারী এই বিজ্ঞানী ২০০৯ সালের ৯ মে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুর পর ওয়াজেদ মিয়ার শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী পীরগঞ্জ উপজেলার ফতেহপুর গ্রামে তার বাবা-মায়ের কবরের পাশে তাকে দাফন করা হয়। ড. ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী পালন উপলক্ষে ড. ওয়াজেদ স্মৃতি সংসদ এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে ফাতেহা পাঠ, কবর জিয়ারত, দোয়া মাহফিল, গরিবদের মাঝে খাবার বিতরণ ও স্মরণসভাসহ নানা কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। বাবা আবদুল কাদের মিয়া ও মা ময়জুনেসার চার ছেলে ও তিন মেয়ের মধ্যে ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন সবার ছোট। ১৯৬১ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগ
পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বিবৃতি ভুয়া ফেইসবুক আইডি বন্ধ না করলে আইনি ব্যবস্থা

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বিবৃতি ভুয়া ফেইসবুক আইডি বন্ধ না করলে আইনি ব্যবস্থা

ডেস্ক রিপোর্ট :: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে নিজের নামে খোলা ভুয়া আইডি ব্যবহারকারিদের সতর্ক করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এমপি। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, যে বা যারা আমার নামে ফেইসবুকে একাধিক পেইজ ও আইডি খুলে ব্যবহার করছেন, তা আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এহেন কর্মকান্ড আমার জন্য অত্যন্ত বিব্রতকর। ড. মোমেন বলেন, আমার নামে একটি ফেইসবুক পেইজ রয়েছে যা ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ ভেরিফাই করেছে। এছাড়া আমার নিজের কোন ফেইসবুক পেইজ নেই। ভুয়া আইডি বন্ধের আহ্বান জানিয়ে বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমার নামে তৈরি এসব ভুয়া আইডি ব্যবহারকারীগণ নিজ থেকে তা বন্ধ করে নিন। অন্যথায়, সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।