মধ্যপ্রাচ্য

সিনেমা ও গানের কনসার্ট মানুষের মনকে কলুষিত করে -গ্র্যান্ড মুফতি শেখ আব্দুল আজিজ

সিনেমা ও গানের কনসার্ট মানুষের মনকে কলুষিত করে -গ্র্যান্ড মুফতি শেখ আব্দুল আজিজ

  মো: শফি উল্লাহ রিপন: সৌদি আরবের শীর্ষ ধর্মীয় নেতা গ্র্যান্ড মুফতি শেখ আব্দুল আজিজ আল আল-শেখ সিনেমা ও গানের কনসার্টকে ক্ষতিকর ও তা মানুষের মনকে কলুষিত করে বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি এমন সময় এই মন্তব্য করলেন যখন রক্ষণশীল দেশটিতে সাংস্কৃতিক সংস্কার আনার চেষ্টা করছে সরকার। ফলে সংস্কারের বিষয়টি আরও জটিল হয়ে পড়তে পারে। গ্র্যান্ড মুফতির নিজের ওয়েব সাইটেই মন্তব্যগুলো প্রকাশ করা হয়েছে। তিনি বলেছেন, “সিনেমা ও দিন-রাতব্যাপী বিনোদন “নিরীশ্বরবাদী ও পচা” বিদেশি ফিল্মের দ্বার উন্মুক্ত করে দিতে পারে ও নারী-পুরুষের মেলামেশাকে উৎসাহিত করতে পারে। রক্ষণশীল সংস্কৃতির এই দেশটিতে সিনেমা ও প্রকাশ্য কনসার্ট আগে থেকেই নিষিদ্ধ। তবে ডেপুটি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান বিন আব্দুল আজিজ গত বছর দেশের সাংস্কৃতিক অবস্থা পাল্টানোর ঘোষণা দেন। এর জন্য ‘ভিসন ২০৩০’ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে সৌদি সরকার। গত সপ্তাহে
  মো:শফি উল্লাহ রিপন: সৌদি আরবের জেদদায় বাংলাদেশী ক্ষুদ্দে বিজ্ঞানীরা কেবল যন্ত্রপাতি আবস্কারই করেনি, পরিবেশ এবং জলবায়ুর ভারসাম্য রক্ষা বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টির প্রকল্পও উপস্থাপন করেছে। নানা সীমাবদ্ধতার মাঝেও প্রবাসের এই বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা আধুনিক চিন্তা-চেতনায় মেধাবি হয়ে গড়ে উঠছে। বিজ্ঞান মেলায় তিনি মুগ্ধ হয়েছেন জানিয়ে আগামী দিনের ক্ষুদে বিজ্ঞানীদের জ্ঞান-বিজ্ঞানে নিজেদের প্রতিভার বিকাশের আহ্বান জানান। বিজ্ঞান মেলার সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন উপাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আবদুল কাইয়ূম। সৌদি আরবের জেদ্দায় বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ইংরেজি মাধ্যমে বিজ্ঞান মেলা ২০১৭ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত ২ দিনের এই বিজ্ঞান মেলায় গত ১১ জানুয়ারি (বুধবার) প্রথম শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি এবং ১২ জানুয়ারি ছিলো ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত ছাত্রছাত্রীদের জন্য। ষুদে
আমরা কি কখনো তাদের সমস্যাগুলো শোনার চেষ্টা করেছি? সৌদি লেখক তারেক আল মাঈলা

আমরা কি কখনো তাদের সমস্যাগুলো শোনার চেষ্টা করেছি? সৌদি লেখক তারেক আল মাঈলা

  মো:শফি উল্লাহ রিপন: সৌদি আরবের মোট জনসংখ্যার তিন ভাগের এক ভাগই প্রবাসী। মধ্যপ্রাচ্যের অন্য দেশগুলোতে আবার এ চিত্র ভিন্ন। কোন কোন দেশে প্রবাসীর সংখ্যাই তুলনামূলকভাবে বেশি। সৌদি আরবে বেশিরভাগ প্রবাসীই এসেছে এমন সব কাজ করার জন্য যে কাজগুলোতে সৌদি নাগরিকরা আগ্রহী নয় বা বেতনের হিসেবেও তাদের কাছে আকর্ষণীয় নয়। এশিয়া এবং আফ্রিকার দেশগুলো থেকে আসা প্রবাসী শ্রমিকরা অদৃশ্য কেউ নয়। তাদেরকে যেখানে সেখানে দেখা যায়। সেসব প্রবাসীর অনেকেই তীব্র গরমের মধ্যে রাস্তার পাশে কষ্টকর কাজগুলো করে। মানুষ যখন গাড়ির জানালার দিয়ে আবর্জনা ফেলে দেয়, তারা তা পরিষ্কার করে। বিভিন্ন বাসাবাড়ি বা রাস্তার মোড়ের ময়লা-আবর্জনাও তারা তুলে নেয় কোন অভিযোগ ছাড়াই। আরেক ধরণের প্রবাসীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উঁচু উঁচু ভবনে বা নির্মাণ খাতে কাজ করে যা সৌদি নাগরিকরা কল্পনাই করতে পারে না। প্রবাসী শ্রমিকরাই আমাদের বাড়ি এবং ভবনগুলো ত

শিগগিরই সৌদিতে কর্মী প্রেরণ

খুব শিগগিরই সৌদি আরবে আগের মতই স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় কর্মী প্রেরণ করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি। তিনি বলেন, 'চলতি বছরের আগস্ট থেকে সৌদি আরবের শ্রমবাজার সকল শ্রেণীর কর্মী প্রেরণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে।' তিনি মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে সরকারি দলের সদস্য সেলিম উদ্দিনের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন। সৌদির সাথে বর্তমানে বাংলাদেশের অত্যন্ত সুসম্পর্ক রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, 'সৌদি বাংলাদেশের প্রধান শ্রমবাজার হিসেবে বিবেচিত। বর্তমান সরকারের অব্যাহত শ্রম কূটনৈতিক প্রচেষ্টার ফলে সৌদি আরবের একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল ২০১৫ সালের ৮ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সফর করেন।' সফরকালে সৌদির সঙ্গে গৃহকর্মের পেশায় কর্মী প্রেরণের বিষয়ে দু'দেশের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয় বলেও তিনি জানান। তিনি বলেন, 'এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ
সৌদি আরবের হজ্জের কোটা পদ্ধতি প্রত্যাহার

সৌদি আরবের হজ্জের কোটা পদ্ধতি প্রত্যাহার

  সৌদি আরব প্রতিনিধি: সৌদি আরব হজ্জ মন্ত্রণালয় কোটা পদ্ধতি প্রত্যাহার করায় এ বছর থেকে জনসংখ্যার অনুপাতে শতভাগ হজপ্রত্যাশী হজজ পালন করতে পারবেন। সৌদি আরব মক্কায় পবিত্র হারাম শরিফের সম্প্রসারণ কাজের জন্য বিভিন্ন দেশ থেকে আসা এবং অভ্যন্তরীণ হাজীদের জন্য কোটা নির্ধারণ করেছিল সৌদি আরব হজ্জ মন্ত্রণালয় । এর ফলে ইচ্ছা থাকলেও এতদিন সবাই হজে অংশ নিতে পারতেন না। ১০ শতাংশ কোটা পদ্ধতি থাকার কারণে গত বছর এক লাখ এক হাজার বাংলাদেশি পবিত্র হজ পালনের সুযোগ পেয়েছিলেন। কোটা পদ্ধতি না থাকায় এ বছর এক লাখ ২৭ হাজার বাংলাদেশি হজ পালন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।
সৌদি আরবে মসজিদে নববীতে হামলার পরিকল্পনাকারী পুলিশের গুলিতে নিহত ২

সৌদি আরবে মসজিদে নববীতে হামলার পরিকল্পনাকারী পুলিশের গুলিতে নিহত ২

  সৌদি আরব প্রতিনিধি : সৌদি আরবে মসজিদে নববীতে হামলার পরিকল্পনাকারী সহ রাজধানী রিয়াদে পুলিশের গুলিতে ২জন নিহত হয়েছেন। আরও একজন গুলিতে নিহত হয়েছেন। হামলার পরিকল্পনাকারীর নাম তায়েয়া সালেম ইয়াসলাম আল সায়ারি। নিহত অপর ব্যক্তি হলেন তালাল বিন সামরান আল-সায়েদি। রিয়াদের দক্ষিণাঞ্চলীয় জেলা ইয়াসমিনে এক অভিযানে তারা নিহত হন বলে সৌদি গেজেটের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। সৌদি বংশোদ্ভূত সায়ারি ও সায়েদির অবস্থানের খবর পেয়ে শনিবার সকাল থেকে নিরাপত্তা বাহিনী ওই এলাকা ঘিরে রাখে। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা তাদের আত্মসমর্পণ করতে বললে তারা আত্মঘাতী জ্যাকেটে থাকা বোমার বিস্ফোরণ ঘটানোর চেষ্টা করে। এ সময় নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত হয় তারা। নিরাপত্তা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নিহত আল সায়েরি আত্মঘাতী বিস্ফোরক বেল্ট এবং অন্যান্য ডিভাইসের নকশা তৈরি করতেন। তার তৈরি বিস্ফোরকের সাহায্যেই গত
সৌদি আরবের হজ্জের  কোটা পদ্ধতি প্রত্যাহার

সৌদি আরবের হজ্জের কোটা পদ্ধতি প্রত্যাহার

  সৌদি আরব প্রতিনিধি: সৌদি আরব হজ্জ মন্ত্রণালয় কোটা পদ্ধতি প্রত্যাহার করায় এ বছর থেকে জনসংখ্যার অনুপাতে শতভাগ হজপ্রত্যাশী হজজ পালন করতে পারবেন। সৌদি আরব মক্কায় পবিত্র হারাম শরিফের সম্প্রসারণ কাজের জন্য বিভিন্ন দেশ থেকে আসা এবং অভ্যন্তরীণ হাজীদের জন্য কোটা নির্ধারণ করেছিল সৌদি আরব হজ্জ মন্ত্রণালয় । এর ফলে ইচ্ছা থাকলেও এতদিন সবাই হজে অংশ নিতে পারতেন না। ১০ শতাংশ কোটা পদ্ধতি থাকার কারণে গত বছর এক লাখ এক হাজার বাংলাদেশি পবিত্র হজ পালনের সুযোগ পেয়েছিলেন। কোটা পদ্ধতি না থাকায় এ বছর এক লাখ ২৭ হাজার বাংলাদেশি হজ পালন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

সৌদি আরবে বাংলাদেশী স্কুল অ্যান্ড কলেজে নতুন বই বিতরন

মো: শফি উল্লাহ রিপন: ঢাকা শিক্ষা বোর্ড কারিক্যুলামে ও বাংলাদেশি ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত সৌদি আরবের রিয়াদ এবং জেদ্দায় বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে ২০১৭ শিক্ষা-বর্ষের শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হয়েছে। ৬ষ্ঠ শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের মাঝে বই বিতরণ করা হয়। নতুন বই হাতে পেয়ে খুশির জোয়ারে ভাসতে দেখা যায় ছাত্রছাত্রীদের। নতুন বছরের প্রথম দিন রবিবার সকালে বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় এই বই উৎসব ২০১৭। জেদ্দা স্কুল প্রাঙ্গনে আয়োজিত বই বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হামদুর রহমান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটের ভারপ্রাপ্ত কনসাল জেনারেল আমিনুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন স্কুল পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান মার্শেল কবির পান্নু, ভাইস-চেয়ারম্যান খন্দকার আবুল কালাম আজাদ, সদস্য গোলাম মোরশেদ আলম, আবু বকর কৌরা

সৌদি জোটের প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা হচেছন পাকিস্তানের অবসরপ্রাপ্ত সেনা প্রধান রাহিল শরিফ

মো: শফি উল্লাহ রিপন: সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন ৩৯ দেশের সামরিক জোটের প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা হিসেবে খুব শিগগির দেখা দেবেন পাকিস্তানের অবসরপ্রাপ্ত সেনা প্রধান রাহিল শরিফকে। সৌদি রাজ পরিবারের আমন্ত্রণে বর্তমানে রিয়াদে তিনি। সেখানে যৌথ সামরিক বাহিনীর সদর দপ্তরে পাকা কথা সেরে ফেলবেন। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে ইয়েমেনের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট আব্দ্রাব্বু মনসুর হাদির সরকারকে উৎখাত করে শিয়া ধর্মাবলম্বী হাউদিরা। প্রায় দুই মাস গৃহবন্দী থাকার পর ২৫ মার্চ ইয়েমেন ছেড়ে পালিয়ে যান তিনি। পরদিন রিয়াদে হাজির হন। তাঁর সরকারকে পুনর্বহাল করতে ইয়েমেনে বোমা বর্ষণ করতে শুরু করে সৌদি আরব এবং আরব বিশ্বের সুন্নী মুসলিম অধ্যুষিত ৮ রাষ্ট্র। তাদের সমর্থন জোগায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন এবং ফ্রান্স। গত দেড় বছরে সেখানে মৃতের সংখ্যা ৭০০০ ছাড়িয়েছে। আহত হয়েছেন প্রায় ৩৫,০০০ মানুষ। তার পরেও সমাধান মেলেনি। সৌদি সরকারের দাবি, আইএস এ

সৌদি আরবের ৩ কোটি টাকা মুল্যের শিল্পকর্ম

মো: শফি উল্লাহ রিপন: মিলিয়ন রিয়াল পোট্রেট' শিরোনামের ওই শিল্পকর্মের বর্তমান আর্থিক মূল্য তিন লাখ ৫০ হাজার ডলার বা ৩ কোটি টাকা। আলী আমের নামের ইরাকি বংশোদ্ভূত এক আমেরিকানের আঁকা শিল্পকর্ম নিয়ে আলোচনা চলছে সৌদি আরবে। শিল্পকর্মটি সম্পূর্ণ করতে আলী আমেরের প্রায় তিন বছর সময় লেগেছিল। ছবিটিতে সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠাতা বাদশাহ আব্দুল আজিজ রয়েছেন। তার পেছনে পরস্পর হাত ধরে দাঁড়িয়ে আরও ১১ জন। এ ১১ জন ভ্ন্নি ভিন্ন এলাকার প্রতিনিধি। যারা আব্দুল আজিজের নেতৃত্বে একতাবদ্ধ হয়েছেন। শিল্পকর্মটি দৈর্ঘ্য ও প্রস্থে চিত্রকর্মটি যথাক্রমে ৩.৫ ও ২.৫ মিটার। সম্প্রতি সৌদি আরবে পুরোনো শিল্পকর্ম নিয়ে প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। বিশেষ করে এমন সব শিল্পকর্ম যেগুলোর কাজ সম্পূর্ণ করতে চার মাস কিংবা তার চেয়ে বেশি সময় লেগেছে। ওই প্রদর্শনীতেই সবার আলোচনায় জায়গা করে নেয় বিশেষ ওই চিত্রকর্মটি।