মধ্যপ্রাচ্য

সৌদি আরবে অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে বাংলাদেশীরা

মো: শফি উল্লাহ রিপন : সৌদি আরবে কর্মরত বাংলাদেশি শ্রমিকরা বিভিন্ন ধরনের অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। সৌদি সরকারের কাছেও বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। সামপতিক সময়ে সৌদি আরবের বিভিন্ন জায়গায় চুরি, ডাকাতি , অপহরন ও নারী মাদক ব্যবসাসহ বাংলাদেশীদের জড়িত থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সৌদি আরবের রিয়াদের বাথা এবং হারায় এ ধরনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) মিজানুর রহমান বলেন, ডাকাতি, অপহরণসহ আইন পরিপন্থি যে কোনো অপরাধ রোধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করা হয়েছে। এ ধরনের কোনো ঘটনার মুখোমুখি হলে প্রবাসী বাংলাদেশী অথবা তাদের স্বজনদের দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন ।তিনি বলেন, আমরা সৌদি প্রশাসনকে বিষয়টি জানিয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করব। কোনো অপরাধীকে আমরা প্রশ্রয় দেবো না, সে যেই হোক। সৌদি আরবে বা

সৌদি প্রবাসী অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সভাপতির পিতার মৃত্যুতে শোক ও দোয়া

মো: শফি উল্লাহ : সৌদি আরব বাংলানিউজ২৪ প্রতিনিধি ও সৌদি আরব প্রবাসী অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সভাপতি মোহাম্মদ আল আমীনের বাবা আলহাজ আব্দুল হাকিমের মৃত্যুতে শোক, দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। রিয়াদের বাথা আল মারজান কফি হাউজে এ দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। প্রবাসী অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম নিহনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম রনি। উপস্থিত ছিলেন ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক এম এইচ প্রিন্স আহমেদ, প্রচার সম্পাদক সাইফুল ইসলাম অপূর্ব, সহ প্রচার সম্পাদক শরিফুল ইসলাম স্বপন, সহ সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ ইয়াছিন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সাজু আহমেদ, মামুন, সফিক, আজমল প্রমুখ। অনুষ্ঠানে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ মোহাব্বত উল্লাহ। এ সময় বক্তারা শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা ও মরহুমের বিদেহি আত্মার
সৌদিতে বরিশালের ৫ যুবক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

সৌদিতে বরিশালের ৫ যুবক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

মো:আরিফ,সুমন,বরিশাল ব্যুরো : সৌদি আরবে মাইক্রোবাস দূর্ঘটনায় দুই ভাইসহ ৬ বাংলাদেশী শ্রমিক নিহত ও একজন গুরুতর আহত হয়েছেন। এরমধ্যে নিহত ৫ জনসহ আহতের বাড়ি বরিশালে। গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে আটটার দিকে দামাম শহরের আল জুবাইল-ডাহারান সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সহদরদের স্বজন সৌদিতে কর্মরত জেলার গৌরনদী পৌর এলাকার দিয়াশুর মহল্লার শাহজালাল মোবাইল ফোনে নিশ্চত করে, বৃহস্পতিবার সৌদি আরবের সময় ভোর ৫টার দিকে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার ছয়গ্রামের বাসিন্দা হাকিম হাওলাদারের পুত্র বাবুল ও শহিদুল, উজিরপুরের জল্লা ইউনিয়নের বাসিন্দা শহিদ হাওলাদারের পুত্র রফিকুল ও সাইফুল ইসলাম, ভোলার সাহাবুদ্দিন, পটুয়াখালী বাচ্চু ও পাবনার রানা মাইক্রোবাসযোগে কর্মস্থলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। পথিমধ্যে দামাম শহরের আল জুবাইল-ডাহারান সড়কে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ছয়জন নিহত ও সাইফুল ইসলাম গুরুতর আহত হয়। আহতকে সৌদির কাতিপ হ

সৌদি আরবে হজ্জ ওমরা ও ভিজিট ভিসার নতুন আইন

মো শফি উল্লাহ রিপন : আগামী ১ মহররম বা ২ অক্টোবর থেকে সৌদি আরবে হজ্জ ওমরা ও ভিজিট ভিসার নতুন আইন চালু হচেছ । এ আইন অনুযায়ীই যে কোন ব্যক্তি জীবনে মাএ একবার ফি ভিসা পাবেন। এবং পরবতী প্রতিবারেব জন্য দুই হাজার সৌদি রিয়াল বা ৪১ হাজার টাকা জমা দিতে হবে। ভিজিট ভিসার ক্ষেত্রে প্রথম ৬ মাসের জন্য ৩ হাজার রিয়াল বা ৬৫ হাজার টাকা , ১ বছরের জন্য ৫ হাজার রিয়াল বা ১১০ হাজারটাকা এবং দুই বছরের জন্য ৮ হাজার রিয়াল বা ১৭০ হাজার টাকা । তবে ভিজিট ভিসার ক্ষেতে পভাসিবরা মাল্টি ভিসা পাবেন। এছাড়াও ট্রানজিট ভিসার ক্ষেতে প্রতিজনকে ৩০০ রিয়াল বা সাডে ৬ হাজার টাকা দিতে হবে।

সৌদি আরবের রিয়াদে সোফা তৈরির কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৩ জনের লাশ দেশে ফেরত

মো: শফি উল্লাহ ::: সৌদি আরবের রিয়াদে সোফা তৈরির কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৪ বাংলাদেশির মধ্যে ৩ জনের লাশ বুধবার তাদের গ্রাম নাটোরের নলডাঙ্গার খাজুরায় তাদের গ্রামের বাডীতে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার ৪০ দিন পর লাশের প্রতীক্ষার অবসান হয়েছে। বুধবার রাতে ৩ প্রবাসী নলডাঙ্গা উপজেলার খাজুরা শ্রীপুরপাড়া গ্রামের সৈয়দ আলী ছেলে শামিউল ইসলাম ওরফে সাদ্দাম হোসেন (২২), খাজুরা জর্দ্দানবাটি গ্রামের গফুর মোল্লার ছেলে জামাল হোসেন মোল্লা (৪২), আজাহার আলীর ছেলে ওয়াহিদুর রহমান ওয়াসিম (৩০) এর লাশ নাটোরের পাটুলে পাঠানো হয়। এদিকে অগ্নিকাণ্ডে নিহত খাজুরা ভাটোপাড়া গ্রামের সেকেন্দার আলীর ছেলে আমিনুর রহমান (৩০) কাগজপত্রে জটিলতার কারণে আগামীকাল পাঠানোর কথা রয়েছে। নিহতরা সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের পুরাতন শহর হারাজ বিন কাশেম মানফুহা এলাকায় একটি কারখানায় সোফা তৈরির কারখানায় কাজ করতেন। নিহতদের আত্মীয় সুত্রে

সৌদিতে কর্মরত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের ইসলাম গ্রহণ ও হজ্জ পালন।

মধ্যপ্রাচ্য সংবাদদাতা ::: ইসলাম গ্রহনের পর সৌদি আরবে কর্মরত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত সিনম কলিস হজব্রত পালন করেন। সৌদি আরবের ইতিহাসে এই প্রথম কোন ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত হজ্জ পালন করল। সৌদি আরবে নিয়োজিত ব্রিটিশ কূটনৈতিক সিমন কলিস এই বছর হজ্জ পালন করেন। তিনি হলেন প্রথম ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত যিনি মুসলিম হয়ে এই প্রথম হজ্জ পালন করলেন। মিঃ কলিস ২০১৫ সালের জানুয়ারি মাসে সৌদিআরবের রাষ্ট্রদূত নিয়োজিত হন। তিনি সাম্প্রতিক সময়ে ইসলাম গ্রহন করেন।  টুইটারে প্রকাশিত এক ছবিতে মিঃ কলিস এবং তার সহধর্মিণী হুদা মুজারকেচ কে সাদা ইহরাম পরিহিত অবস্থায় দেখা যায়। রাষ্ট্র দূত মিঃ কলিস তাঁদের ইহরাম পরিহিত ছবি টুইটারে প্রকাশ করায় ফাওজিয়াহ আলবকর নামক এক তরুনিকে ধন্যবাদ জানান। সেই তরুনি এক টুইটার বার্তায় বলেন, “সৌদিআরবে নিয়োজিত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত এই প্রথম হজ্জ পালন করলেন। যিনি সাম্প্রতিক সময়ে ইসলাম গ্রহন করেছেন আলহামদুলিল্লাহ্‌।

হয়ে গেল কাতার জাতীয় পার্টির অভিষেক ২০১৬

সারোয়ার আহমদ শপু, দোহা প্রতিনিধি :::  কাতারের রাজধানী দোহা’র রমনা রেষ্টুরায় বৃহস্পতিবার রাতে হয়ে গেল কাতার জাতীয় পার্টির অভিষেক ২০১৬ । শাহজাহান চৌধুরীর সঞ্চালনায় ও হাজী মোঃ বাসার সরকারের সভাপতিত্বে, এতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন জাহাঙ্গীর আলম। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সভাপতি নজরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, মোঃ কফিল উদ্দিন, সিরাজুল ইসলাম শাহিন, মোঃআলাল খাঁন, আব্দুল মান্নান, মখবুল হোসেন, সামসউদ্দীন, আব্দুল আউয়াল, মিসবা উদ্দীন, শামীম আহমেদ, আব্দুল সালাম ফুল, এনামুল হক টিটু, আব্দুর রহিম, আলী করিম, আহমেদ জায়েদ, জাকির হোসেন, বদরুল আলম, আহমেদ মালেক, আবু তাহের সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্ধ। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ থেকে টেলিকনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, হাজী মোঃ বাসার সরকারকে সভা

লাব্বাইক ধ্বনিতে মুখরিত পবিত্র আরাফাতের ময়দান

‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, লা শারিকা লাকা লাব্বাইক, ইন্নাল হামদা, ওয়ান নিয়ামাতা, লাকা ওয়াল মুল্‌ক, লা শারিকা লাকা।’ অর্থাৎ- হাজির হে আল্লাহ হাজির, আপনার মহান দরবারে হাজির। আপনার কোনো শরিক নেই। সব প্রশংসা, নিয়ামত এবং সব রাজত্ব আপনারই। হজযাত্রীদের সমস্বরে এ উচ্চারণে প্রকম্পিত হলো পবিত্র, ঐতিহ্যবাহী আরাফাতের ময়দান। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে যাওয়া হজযাত্রীরা সব ভেদাভেদ ভুলে মহান আল্লাহর ডাকে সমবেত হন সেখানে। এই সেই আরাফাতের ময়দান যেখানে দাঁড়িয়ে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) বিদায় হজের ভাষণ দিয়েছিলেন। সেই স্মৃতি বুকে ধরে হজযাত্রীরা এখানে ইবাদত বন্দেগিতে কাটিয়ে দেন সূর্যাস্ত পর্যন্ত। এই ময়দানে তারা একসঙ্গে আদায় করেন জোহর ও আসরের নামাজ। তার আগে খুৎবা দেয়া হয় পবিত্র মসজিদে নামিরা থেকে। খুৎবা দেন গ্রান্ড মসজিদের ইমাম শেখ আবদুল রহমান আল-সুদাইস। টানা ৩৫ বছর এই ময়দানে খুৎবা দিয়েছেন গ্রান্ড