মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাটর্নি জেনারেল পদে উইলিয়াম বারকে মনোনয়ন দিলেন ট্রাম্প, জাতিসংঘে নতুন রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ দিতে যাচ্ছেন ফক্স নিউজের সাবেক সাংবাদিক হিদার নুয়ার্টকে

যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাটর্নি জেনারেল পদে উইলিয়াম বারকে মনোনয়ন দিলেন ট্রাম্প, জাতিসংঘে নতুন রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ দিতে যাচ্ছেন ফক্স নিউজের সাবেক সাংবাদিক হিদার নুয়ার্টকে

স্টাফ রিপোটার: যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বারকে আবার ওই পদে মনোনয়ন দিলেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। নব্বইয়ের দশকে একবার মার্কিন আইন মন্ত্রণালয়ের প্রধানের এই পদে দায়িত্ব পালন করেছিলেন বার। তিনি এবার জেফ সেশনসের স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন, যাকে গত মাসে ট্রাম্প বরখাস্ত করেন। তিনি জাতিসংঘে নতুন মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ দিতে যাচ্ছেন ফক্স নিউজের সাবেক সাংবাদিক ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হিদার নুয়ার্টকে। এ খবর দিয়েছে বিবিসি। পদাধিকার বলে উইলিয়াম বার ২০১৬ সালের নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের অভিযোগ তদন্তে নিয়োজিত বিশেষ কৌঁসুলি রবার্ট মুয়েলারের নিয়ন্ত্রণে থাকবেন। মার্কিন গণমাধ্যমে এসেছে যে, মুয়েলারের তদন্তের কিছু অংশের সমালোচনা করেছেন বার। রক্ষণশীল আইনজীবী হিসেবে খ্যাতি রয়েছে বারের। তিনি ১৯৯১ থেকে ১৯৯৩ পর্যন্ত সাবেক ও প্রয়াত প্রেসিডেন্ট জর্জ এইচ ড
চিত্র নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনকে নিসচা-যুক্তাষ্ট্রের সংবর্ধনা প্রদান : ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলন বিশ্বব্যাপী জোরদার করতে হবে

চিত্র নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনকে নিসচা-যুক্তাষ্ট্রের সংবর্ধনা প্রদান : ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলন বিশ্বব্যাপী জোরদার করতে হবে

 নিউইয়র্ক সংবাদদাতা : ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনের পথিকৃত জনপ্রিয় চিত্র নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন বলেছেন, সড়ক দূর্ঘটনা শুধু বাংলাদেশ বা যুক্তরাষ্ট্রের সমস্যা নয়। এই সমস্যা বিশ্বের ছোট-বড়, অনুন্নত-উন্নত সকল দেশের সমস্যা। তাই ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলন বিশ্বব্যাপী জোরদার করতে হবে। এজন্য সর্বাগ্রে প্রয়োজন জনসচেতনতার পাশাপাশি আইনের সঠিক প্রয়োগ। তিনি বলেন, মহান আল্লাতায়ালার সৃষ্ট জীব মানুষ হিসেবে প্রত্যেকেরই দায়িত্ব দিয়েই সৃষ্টিকর্তা সবাইকে তৈরী করেছেন। আর এই দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করাও সবার নৈতিক দায়িত্ব। তিনি বলেন, একা কারো পক্ষে ‘নিরাপদ সড়ক’ তৈরী করা সম্ভব নয়। স্ব স্ব দেশের সরকার, জনগণ, আইন-কানুন সহ সংশ্লিস্ট সকলকেই ‘নিরাপদ সড়ক’ তৈরীতে দায়িত্ব পালন করতে হবে। ‘নিরাপদ সড়ক চাই-নিসচা’-এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান, চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ চলতি বছর গণ প্রজাতন্ত্রী
মার্কিন কংগ্রেসে বিল, জামায়াত-শিবিরকে রুখতে বাংলাদেশ সরকারকে আহ্বান

মার্কিন কংগ্রেসে বিল, জামায়াত-শিবিরকে রুখতে বাংলাদেশ সরকারকে আহ্বান

মার্কিন কংগ্রেসে মৌলবাদী সংগঠন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরকে দেশের স্থিতিশীলতা ও ধর্মনিরপেক্ষ গণতন্ত্রের জন্য চলমান হুমকি উল্লেখ করে বাংলাদেশ সরকারকে তাদের রুখে দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে একটি বিল উত্থাপন করা হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের দাফতরিক ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, ইন্ডিয়ানা স্টেটের কংগ্রেসম্যান জিম ব্যাংকস ‘বাংলাদেশে সক্রিয় ধর্ম-রাষ্ট্রিক সংগঠনগুলোর সৃষ্ট গণতন্ত্র ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার প্রতি হুমকির বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ’ শীর্ষক এ বিলটি গত ২০ নভেম্বর হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে উত্থাপন করেন। ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, হাউজ রেজ্যুলেশন-১১৫৬ পার্লামেন্টের পররাষ্ট্র কমিটিতে রেফার করা হয়েছে। বিলটিতে ইউনাইটেড স্টেট এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ইউএসএইড) ও মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরকে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরসহ উগ্র মৌলবাদী সংগঠনের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত
নতুন মার্কিন রাষ্ট্রদূত আসছে মিলার

নতুন মার্কিন রাষ্ট্রদূত আসছে মিলার

রোববার ঢাকা অাসছেন বাংলাদেশে নব নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার। তার ওপর অর্পিত দায়িত্ব গ্রহণের উদ্দেশ্যেই আসছেন তিনি। কূটনৈতিক সূত্র জানায়, রোববার বিকেলে রবার্ট মিলারের ঢাকা পৌঁছানোর কথা রয়েছে। গত মঙ্গলবার মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরে প্রথা অনুযায়ী বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন মিলার। পররাষ্ট্র দপ্তরের চিফ অব প্রটোকল সেন ললার শপথ পরিচালনা করেন। শপথ অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জিয়াউদ্দিন উপস্থিত ছিলেন। রাষ্ট্রদূত জিয়াউদ্দিন, ঢাকায় নিযুক্ত সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজিনা ও মার্শা বার্নিকাট বাংলাদেশে নতুন রাষ্ট্রদূত হিসেবে আর্ল মিলারকে অভিনন্দন জানান ও তার সফলতা প্রত্যাশা করেন। বাংলাদেশের আগে বতসোয়ানায় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করা আর্ল রবার্ট মিলার ১৯৮৭ সালে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরে যোগ দেন। ২০১১ থেকে ২০১
অবৈধ অভিবাসীদের আশ্রয়ে নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব যুক্তরাষ্ট্রের

অবৈধ অভিবাসীদের আশ্রয়ে নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব যুক্তরাষ্ট্রের

যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চলের সীমান্ত দিয়ে প্রবেশকারী অবৈধ অভিবাসীরা আর সেখানে আশ্রয় পাবে না। নতুন নিয়ম অনুসারে তাদেরকে আশ্রয় না দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ট্রা¤প প্রশাসন। জস্টিস এন্ড হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ ঘোষণা দিয়েছে, যারা দেশে প্রবেশের ক্ষেত্রে প্রেসিডেন্ট ঘোষিত নিয়মগুলো লঙ্ঘন করবে, তাদেরকে দেশে আশ্রয় দেয়া হবে না।  প্রেসিডেন্ট দেশের স্বার্থে প্রেসিডেন্ট অভিবাসন থামিয়ে দিতে পারেন বলেও এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে। এ খবর জানিয়েছে অনলাইন বিবিসি। সেন্ট্রাল আমেরিকা থেকে হাজার হাজার অভিবাসী মেক্সিকো হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করছে। এ ঘটনার জেরে প্রেসিডেন্ট ট্রা¤প সীমান্তের সেনাদের কঠোর হবার নির্দেশ দিয়েছেন এবং বলেছেন, অভিবাসীরা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য বাহিরাক্রমণের সামিল। ভারপ্রাপ্ত অ্যাটোর্নি জেনারেল ম্যাথিউ হুইটেকার এবং হোমল্যান্ড সিকিউরিটির প্রধান ক্রিস্টজেন নেইলসেন বৃহ¯পতিবার ইনটেরি
খাশোগি হত্যাকান্ডে জড়িতদের মার্কিন ভিসা বাতিল হচ্ছে

খাশোগি হত্যাকান্ডে জড়িতদের মার্কিন ভিসা বাতিল হচ্ছে

বহুল আলোচিত জামাল খাশোগি হত্যাকান্ডে জড়িতদের ভিসা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দীর্ঘদিনের মিত্র সৌদি আরবের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের এমন শাস্তিমূলক পদক্ষেপের নজির নিকট অতীতে আর নেই বললেই চলে। মঙ্গলবার তুর্কী প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান খাশোগি হত্যাকান্ড নিয়ে বক্তৃতা করার কিছুক্ষণ পরই সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। এসময় তিনি বলেন, সৌদি আরবের কর্তৃপক্ষ ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার সবচেয়ে নিকৃষ্ট নাটক মঞ্চস্থ করেছে। সৌদি আরব খাশোগি হত্যাকান্ডের জন্য দুর্বৃত্তদের দোষারোপ করে যে বিবৃতি দিয়েছিল, গতকাল ট্রাম্প তার বিরুদ্ধেও কথা বলেন। তিনি সরাসরি সৌদি আরবের ওই বিবৃতি প্রত্যাখান করেন। ট্রাম্প বলেছেন, খাশোগি হত্যা ও পরবর্তীতে এ ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে সৌদি আরব চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। এ বিষয়ে সোমবার ক্রাউন প্রিন্সের সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানান ট্র
আগামীকাল আমেরিকার বিরুদ্ধে ইরানের মামলার রায়

আগামীকাল আমেরিকার বিরুদ্ধে ইরানের মামলার রায়

আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে আমেরিকার বিরুদ্ধে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের দায়েরকৃত মামলার রায় ঘোষণা করা হবে আগামীকাল (বুধবার)। তেহরানের বিরুদ্ধে নতুন করে একতরফা অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পর ইরান গত জুলাই মাসে নেদারল্যান্ডের হেগে অবস্থিত আন্তর্জাতিক আদালতে এ মামলা দায়ের করেছে। এরইমধ্যে কয়েক দফায় এর শুনানি সম্পন্ন হয়েছে। ২০১৫ সালে ঐতিহাসিক পরমাণু সমঝোতা বা জেসিপিওএ সই করার পর কিছু নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছিল আমেরিকা। কিন্তু চলতি বছরের ৮ মে ওই সমঝোতা থেকে একতরফাভাবে সরে গিয়ে আবারও কঠোরতম নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে ইরান যে অভিযোগ করেছে তাতে বলা হয়েছে, নতুন করে নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দিয়ে ১৯৫৫ সালে তেহরান-ওয়াশিংটনের মধ্যে স্বাক্ষরিত অর্থনৈতিক সম্পর্ক সংক্রান্ত চুক্তি লঙ্ঘন করেছেন ট্রাম্প। তেহরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কোনো
ইরানকে কোণঠাসা করার জন্য ট্রাম্প ও নেতানিয়াহুর চেষ্টা সফল হয় নি

ইরানকে কোণঠাসা করার জন্য ট্রাম্প ও নেতানিয়াহুর চেষ্টা সফল হয় নি

দখলদার ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে দেয়া ভাষণে আবারো ইরানের পরমাণু কর্মসূচির ব্যাপারে কিছু ছবি তুলে ধরে দাবি করেছেন, রাজধানী তেহরানের দক্ষিণে ইরান গোপন পরমাণু কার্যক্রম চালাচ্ছে। ইরানের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে প্রচেষ্টা চালানোর জন্য তিনি ইউরোপীয় ইউনিয়নেরও সমালোচনা করেন। ইরানের শান্তিপূর্ণ পরমাণু কার্যক্রমের ব্যাপারে ছবি তুলে ধরে বিশ্ববাসীকে ধোঁকা দেয়ার ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর চেষ্টা এটাই প্রথম নয়। এর আগে গত ৩০ এপ্রিল তিনি টেলিভিশনে বেশ কিছু ছবি, সিডি ও কাগজপত্র দেখিয়ে দাবি করেছিলেন, ইরান গোপনে পরমাণু অস্ত্র তৈরির চেষ্টা চালাচ্ছে। এরপর নেতানিয়াহু পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যেতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে রাজি করাতে সক্ষম হন। আমেরিকা প্রায় সাড়ে চার মাস আগে পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেলেও বিশ্ব অঙ্গনে এখন সে নিজেই কোণঠাসা হয়ে পড়েছে। পরমাণু সমঝোতার
মার্কিন ঘাঁটির বিরুদ্ধে রাশিয়ার কড়া হুশিয়ারি

মার্কিন ঘাঁটির বিরুদ্ধে রাশিয়ার কড়া হুশিয়ারি

পোল্যান্ডে স্থায়ী সামরিক ঘাঁটি স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে মার্কিন সরকার। সামরিক ঘাঁটি নিয়ে আমেরিকার তীব্র বিরোধিতা করেছে রাশিয়া। রুশ উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী আলেক্সান্দার গ্রুশকো বলেন, আমেরিকার এ ধরনের পদক্ষেপের ব্যাপারে নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি পোষণ করার যথেষ্ট কারণ রয়েছে। পোল্যান্ডে স্থায়ী ঘাঁটি নির্মাণের মার্কিন প্রচেষ্টা ইউরোপের নিরাপত্তাকে বিঘ্নিত করবে। সেই সঙ্গে রাশিয়ার সীমান্তের কাছে সেনা মোতায়েন না করার ব্যাপারে ন্যাটো জোটের সঙ্গে মস্কোর যে চুক্তি রয়েছে পোল্যান্ডে ঘাঁটি স্থাপন করলে তাও লঙ্ঘিত হবে। আর এটি বাস্তবায়ন হলে পূর্ব ইউরোপের নিরাপত্তা নিশ্চিতভাবে বিঘ্নিত হবে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্প্রতি পোল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেজ দুদার সঙ্গে এক বৈঠক শেষে বলেছেন, পোল্যান্ডে একটি বড় সামরিক ঘাঁটি স্থাপনের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখছে ওয়াশিংটন।