মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলবেন বারাক ওবামাও

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলবেন বারাক ওবামাও

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ডেস্ক : ক্ষমতা ছেড়ে দেয়ার পর যদি দেখেন নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার মূল চেতনাবোধের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াচ্ছেন, তাহলে তিনি এর বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলবেন বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। যুক্তরাষ্ট্রের প্রচলিত রীতি অনুসারে, সাবেক প্রেসিডেন্টরা সাধারণত ক্ষমতা হস্তান্তরের পর রাজনৈতিক বাদানুবাদ এড়িয়ে চলেন এবং উত্তরসূরিদের সম্পর্কে সমালোচনা থেকে বিরত থাকেন। তবে এই প্রথা ভাঙ্গারই ইঙ্গিত দিলেন ওবামা। পেরুর লিমায় অ্যাপেক সম্মেলনের সমাপ্তি উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ওবামা জানান, তিনি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে তার রূপকল্পের নকশা তৈরির জন্য সময় দিতে চান এবং এ কাজে তাকে সহায়তাও করতে চান। তবে দেশের একজন নাগরিক হিসেবে তিনি কিছু কিছু বিষয়ে প্রতিবাদও করতে পারেন। বারাক ওবামা বলেন, “আমি চাই প্রেসিডেন্ট অফিসের প্রতি সম্মান ধরে রাখতে এবং নবনির্ব
যুক্তরাষ্ট্র-চীন সম্পর্ক অনিশ্চিত

যুক্তরাষ্ট্র-চীন সম্পর্ক অনিশ্চিত

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ডেস্ক :নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কট্টর রক্ষণশীলতার কারণে পরাশক্তিধর দুই দেশ যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের সম্পর্ক অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে। গত শনিবার পেরুতে এপেক সম্মেলনের এক ফাঁকে দ্বীপক্ষীয় বৈঠকে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে এভাবেই হুঁশিয়ার করেছেন। তবে এ সময় সরাসরি ট্রাম্পের নাম উল্লেখ করেননি তিনি। একই দিনে ট্রাম্পের মুক্তবাণিজ্য নীতি থেকে মুখ ফিরিয়ে নেওয়ার যে ঝোঁক, তা প্রত্যাখ্যান করেছে ট্রান্স-প্যাসিফিক পার্টনারশিপের (টিটিপি) সদস্য দেশগুলো। এদিকে গতকাল রোববার এপেকের সম্মেলনেও সদস্য দেশের নেতারা মুক্তবাণিজ্যের পক্ষে অবস্থান নেন। খবর :এএফপি ও দ্য স্ট্রেইট টাইমসের।   তবে ওই বৈঠকে চীনের প্রেসিডেন্ট আশা প্রকাশ করেন, যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষমতা হস্তান্তর কোনো বাধাবিঘ্ন ছাড়াই সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হবে। এ সময় তিনি ব
গণতন্ত্র হতাশার হতে পারে : ওবামা

গণতন্ত্র হতাশার হতে পারে : ওবামা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ডেস্ক :গণতন্ত্র হতাশাজনক হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। স্থানীয় সময় শনিবার পেরুর রাজধানী লিমায় ইয়াং লিডার্স অব আমেরিকাস ইনিশিয়েটিভি (ওয়াইএলএআই) আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। ওবামা বলেন, নতুন প্রেসিডেন্ট হলে ডোনাল্ড ট্রাম্প লাতিন আমেরিকা-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কে নীতিগত তেমন কোনো পরিবর্তন আনবেন না। তবে তিনি বলেন, বাণিজ্য বিষয়ে উত্তেজনা বাড়বে। যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন নতুন প্রশাসন সম্পর্কে বারাক ওবামা বলেন, ‘তারা সিদ্ধান্ত নেবে, আসলে যুক্তরাষ্ট্র ও তার বাণিজ্য অংশীদার উভয়ের জন্যই ভালো হবে।’ ওবামা কিছুদিন আগে একই বিষয়য়ে উপদেশ দেন ইউরোপীয় নেতাদের। ওবামা বলেন, ‘গণতন্ত্র নির্বাচনের চেয়ে বেশি কিছু।’ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘গণতন্ত্র হতাশাজনক হতে পারে কারণ আপনি যা চান, তা সব সময় শতভাগ পাবেন না। গণতন্ত্রের অর
যে কারণে ট্রাম্পকে কড়া হুশিয়ারি ওবামার

যে কারণে ট্রাম্পকে কড়া হুশিয়ারি ওবামার

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ডেস্ক :মার্কিনিদের ক্ষতি হতে পারে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে এমন সম্পর্কে না জড়াতে নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে কড়া হুশিয়ারি দিয়েছেন বারাক ওবামা।   প্রেসিডেন্ট হিসেবে জার্মানির বার্লিনে শেষ সফরে এসে বৃহস্পতিবার তিনি এ পরামর্শ দেন।   জার্মান চ্যান্সেলর     অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের সঙ্গে বৈঠকের পর বক্তব্যে ওবামা বলেন, 'তিনি চান না যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রে আদর্শ ও মূল্যবোধকে পাশ কাটিয়ে শুধু পরিস্থিতিকে বিবেচনায় নেবেন।'   রাশিয়া সিরিয়া ও ইউক্রেনের মতো ইস্যুগুলোতে ওয়াশিংটনের সঙ্গে ‘সাংঘর্ষিক অবস্থানে’ যাবে বলেও মন্তব্য করেন ওবামা। এ সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যকার ঘনিষ্ঠ সহযোগিতা অব্যাহত রাখার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
ট্রাম্পের সমালোচনা করে টুইট, যুক্তরাষ্ট্রে অধ্যাপক আটক

ট্রাম্পের সমালোচনা করে টুইট, যুক্তরাষ্ট্রে অধ্যাপক আটক

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ডেস্ক :যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমালোচনা করে টুইট করেছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক কেভিন অলরেড। আর এটাই কাল হয়েছে তার জন্য। বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) নিরাপত্তার জন্য এ কর্মকান্ডকে হুমকি বিবেচনা করে তাকে আটক করে ক্যাম্পাস পুলিশ।   কেভিন অধ্যাপনা করেন দেশটির নিউ জার্সির রুটজার বিশ্ববিদ্যালয়ের উইমেন অ্যান্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগে। টুইটারে শ্বেতাঙ্গ যুক্তরাষ্ট্র গঠনে ট্রাম্পের যে পরিকল্পনা ও প্রচারণা তার সমালোচনা করেন কেভিন। এর পরপরই ক্যাম্পাস পুলিশ তাকে হুমকি হিসেবে বিবেচনা করে বাসা থেকে আটক করে নিয়ে যায়। যদিও পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।   কেভিন বলেন, ‘আমার দেওয়া টুইটার পোস্টকে বিপজ্জনক আখ্যা দিয়ে এক ছাত্র অভিযোগ দায়ের করে। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে আমাকে আটক করা হয়। আমাকে জোরপূর্বক একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাত
ভোটে হারের ৮দিন পর জনসম্মুখে হিলারি, ভক্তদের দিলেন দারুণ এক সুসংবাদ

ভোটে হারের ৮দিন পর জনসম্মুখে হিলারি, ভক্তদের দিলেন দারুণ এক সুসংবাদ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলীয় প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন নির্বাচনে হারের পর এই প্রথম জনসম্মুখে বক্তৃতা দিয়েছেন। গত সপ্তাহের ওই নির্বাচনে রিপাবলিকান দলীয় প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে হেরে যাওয়ায় হতাশা প্রকাশ করেছেন তিনি।   হিলারি বলেছেন, তিনি চেয়েছিলেন বইয়ের মাঝে ডুবে থাকতে এবং বাসা থেকে কখনো বের হবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।     কিন্তু শিশুদের দাতব্য প্রতিষ্ঠান চিলড্রেন্স ডিফেন্স ফান্ডের অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেয়ার জন্য বের হয়েছেন তিনি। বক্তৃতায় তিনি শ্রোতাদেরকে মার্কিন মূল্যবোধের জন্য লড়াইয়ের আহ্বান জানান।   একই সঙ্গে এ বিষয়ে সমঝোতা না করারও আহ্বান জানান তিনি। হিলারি বলেন, আমাদের দেশে বিশ্বাস করুন, আমাদের মূল্যবোধের জন্য লড়াই করুন, এই লড়াই কখনো ছেড়ে দিবেন না।   গত ৮ নভেম্বরের ন
মিশেল ওবামাকে বানরের সাথে তুলনা, বিপাকে মেয়র

মিশেল ওবামাকে বানরের সাথে তুলনা, বিপাকে মেয়র

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ডেস্ক :মার্কিন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামাকে ‘এপ’ (ape) বা বানরজাতীয় প্রাণীর সাথে তুলনা করেছেন ওয়েস্ট ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের ক্লে কাউন্টির একটি অলাভজনক সংগঠনের পরিচালক পামেলা র‌্যামজে টেলর। আর তাতে সমর্থন জানিয়েছেন ওই শহরের মেয়র। এতে ওই অঙ্গরাজ্যে তোলপাড় শুরু হয়েছে। পামেলা র‌্যামজে টেলর হবু প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পের প্রতি ইঙ্গিত করে ফেসবুকে এক পোস্টে লেখেন, ‘হোয়াইট হাউসে এখন একজন সুন্দরী, অভিজাত, মার্জিত ফার্স্ট লেডিকে দেখতে পাব, মনটা ভালো হয়ে যাবে। একটা হিল পরা এপ-কে (বানর) দেখতে দেখতে আমি ক্লান্ত হয়ে গেছি।’ এরই জবাবে ক্লে শহরটির মেয়র বেভারলি হোয়েলিং লেখেন, ‘প্যাম, তুমি আমার দিনটিকে ভালো করে দিয়েছো।’ এই শহরটিতে মাত্র ৪৯১ জন লোকের বাস। এখানে কোনো কৃষ্ণাঙ্গ আফ্রিকান-আমেরিকান থাকেন না। কিন্তু এই ছোট শহরের ফেসবুক পোস্টই ছ
মাসে দেড় কোটি টাকা ভাড়া দিয়ে সপরিবারে যে বাড়িতে থাকবেন ওবামা

মাসে দেড় কোটি টাকা ভাড়া দিয়ে সপরিবারে যে বাড়িতে থাকবেন ওবামা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ডেস্ক :আমেরিকায় নির্বাচন মানেই হোয়াইট হাউজে নতুন অতিথি আসার প্রবল সম্ভাবনা | আর এ বার তো তা অবশ্যম্ভাবী | কারণ এটাই প্রেসিডেন্ট হিসেবে ওবামার শেষ দফা ছিল | জানুয়ারির মধ্যে সপরিবারে ওবামাকে চলে যেতে হবে অন্য ঠিকানায়। যতদূর জানা যাচ্ছে রাষ্ট্রপতিত্বের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও ওবামা থাকবেন ওয়াশিংটন ডিসিতেই | তাঁর নতুন বাড়ি হবে ৯ টি শয়নকক্ষ-সমেত ৮২০০ বর্গফিট আয়তনের | হোয়াইট হাউজ থেকে মাত্র ২ মাইল দূরে‚ ওয়াশিংটনের ধনী এবং অভিজাততম এলাকা ক্যালোরামায়। প্রায় ৮৮ বছরের প্রাচীন বাড়িটি খয়েরি এবং ধূসর বর্ণের | বর্তমান মালিক জো লকহার্ট | অতীতে তিনি ছিলেন বিল ক্লিন্টনের উপদেষ্টা | জো-য়ের স্ত্রী বিখ্যাত গ্ল্যামার পত্রিকার সম্পাদক | শোনা যাচ্ছে বাড়িটির বর্তমান বাজারদর বাংলাদেশী মুদ্রায় প্রায় ৪১ কোটি টাকা | প্রতি মাসে ভাড়া ১ কোটি ৪৬ লক্ষ ৭ হাজার ৩৫ টাকা‚ অর্থাৎ প

যুক্তরাষ্ট্রে ইলেক্টোরাল কলেজ ভোট বিলুপ্ত করতে চাপ সিনেটরের

ওয়াশিংটন: যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের একজন সিনেটর মঙ্গলবার ইলেক্টোরাল কলেজ ভোট বাতিলের আইনি প্রচেষ্টা শুরু করেছেন। ইলেক্টোরাল কলেজ ভোট ব্যবস্থার কারণে এবারের নির্বাচনে হিলারি ক্লিনটন প্রায় ১০ লাখের মতো ভোট বেশি পাওয়া সত্ত্বেও ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। গত ৮ নভেম্বর মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর ইলেক্টোরাল কলেজ ব্যবস্থা সংস্কারের দাবি উঠেছে। এ প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের ডেমোক্রেটিক পার্টির সিনেটর বারবার বক্সার এ আইনি প্রচেষ্টা শুরু করেন।তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র এমন একটা দেশ যেখানে আপনি সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়েও প্রেসিডেন্ট পদে হারতে পারেন।’
যুক্তরাষ্ট্রে হিজাব পরায় হেনস্তার শিকার বাংলাদেশি শিক্ষার্থী

যুক্তরাষ্ট্রে হিজাব পরায় হেনস্তার শিকার বাংলাদেশি শিক্ষার্থী

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে হিজাব পরায় হেনস্তার শিকার হয়েছেন এক বাংলাদেশি শিক্ষার্থী। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প বিজয়ী হওয়ার পর সেখানে হঠাৎ করেই মুসলিম, হিস্পানিক এবং অন্যান্য সংখ্যালঘু অভিবাসীদের ওপর হামলার ঘটনা বেড়ে গেছে বলে অভিযোগ করছেন এসব সম্প্রদায়ের মানুষ। যুক্তরাষ্ট্রে বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশি অভিবাসী, যাদের সংখ্যাগরিষ্ঠই মুসলিম।   ট্রাম্প তার নির্বাচনী প্রচারণায় মুসলিমদের লক্ষ্য করে যে ধরনের বক্তব্য রেখেছিলেন তারপর এ ধরনের হামলার জন্য তাকেই দায়ী করছেন মুসলিম সম্প্রদায়ের নেতারা।   নিউ ইয়র্কে বসবাসরত বাংলাদেশি অভিবাসী মাজেদা উদ্দীন নিজের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে জানান, ‘এটা আমাদের জন্য বড় ধরনের সংকট হয়ে দাঁড়িয়েছে।’   প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পরের দিনের ঘটনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমার ভাইয়ের মেয়ে বাসে করে কলেজে যাচ্