যুক্তরাজ্য

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ‘বেবি লিভ’ প্রস্তাবে টিউলিপের সমর্থন

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ‘বেবি লিভ’ প্রস্তাবে টিউলিপের সমর্থন

যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টের সদস্যদের জন্য ‘বেবি লিভ’ বা নবজাতক সন্তানদের দেখাশোনা করার জন্য ছুটির পক্ষে প্রচরাভিযানে সমর্থন জানিয়েছেন দেশটির এমপি টিউলিপ সিদ্দিক। নতুন প্রস্তাবে ছুটিতে থাকাকালীন পার্লামেন্ট সদস্যদের প্রতিনিধিরা বিভিন্ন বিলে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন। যুক্তরাজ্যের বিদ্যমান আইন অনুসারে নবজাতক সন্তানের মায়েরা হাউস অব কমন্সে ভোট দিতে পারেন না। আইনটি পরিবর্তনের জন্যই এই প্রচারাভিযান চালানো হচ্ছে। উল্লেখ্য, মধ্যযুগীয় ব্রিটিশ পার্লামেন্টেও ছুটির সময় ভোটাধিকারের সুযোগ ছিল। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট বোন শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ সিদ্দিক যুক্তরাজ্যের হাম্পস্টেড ও কিলবুর্নের এমপি। ২০১৬ সালে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন তিনি। তবে ৬ সপ্তাহের মধ্যেই কাজে যোগ দিয়েছিলেন। নতুন প্রস্তাবের পক্ষে পার্লামেন্টে অধিবেশনের বক্তব্যে টিউলিপ বলেন, ‘আমি একটি প্
যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে  আমাজন অভিযানের প্রদর্শনী ৪ ও ৫ ফেব্রুয়ারী

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে  আমাজন অভিযানের প্রদর্শনী ৪ ও ৫ ফেব্রুয়ারী

আগামী ৪ ফেব্রুয়ারী রোববার সন্ধ্যা ৫টায় এবং ৫ ফেব্রুয়ারী সোমবার রাত ৭ টায় যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামের ষ্টার্টর্ফোড রোডের পিকাডিলি সিনেমা হলে প্রদর্শিত হবে সর্ববৃহৎ বাঙালী চলচ্চিত্র আমাজন অভিযান। গত ৩১ জানুয়ারী বার্মিংহামের স্মলহীথের কভেন্ট্রি রোডের মিডিয়া পয়েন্টে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় বিশ্বের অষ্টম এবং কোনো বাংলা চলচ্চিত্রের প্রথমাবারের মতো আমাজন জঙ্গলের গহীন প্রত্যন্ত এলাকায় স্যুটিং করা বাংলা সিনেমার ইতিহাসে সবচেয়ে ব্যায়বহুল নির্মাণ খরছের আমাজন অভিযান চলচ্চিত্রটি ইতিমধ্যে ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মুক্তি পেয়েছে এবং মুক্তির কয়েক দিনের মধ্যেই রেকর্ড সংখ্যাক কয়েক কোটি অর্থ উপার্জন করেছে। গত ২২ ডিসেম্বর ভারতের একাধিক শহরে মুক্তি পাওয়া 'আমাজন অভিযান' প্রথম সপ্তাহেই ১০ কোটি রুপির উপর ব্যবসা করেছে যা এখনও পর্যন্ত যে কোনও বাংলা ছবির ক্ষেত্রে সর্বকাল
শরণার্থী থেকে ব্রিটিশ দূত

শরণার্থী থেকে ব্রিটিশ দূত

নিপীড়নের মুখে নিজের দেশ ইরান থেকে সাত বছর বয়সে যুক্তরাজ্যে পাড়ি জমিয়েছিলেন ক্যানবার হুসেইন বোর। সেই শরণার্থী শিশুটিই আজ যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধিত্ব করছেন একজন কূটনীতিক হিসেবে। সাঁইত্রিশ বছর বয়সী হুসেইন বোর বাংলাদেশে ব্রিটিশ হাই কমিশনের ডেপুটি হাই কমিশনার হিসেবে ডেভিড অ্যাশলের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন। মঙ্গলবার অ্যাশলেকে বিদায় জানানোর পাশাপাশি ক্যানবারকে বরণ করে নেবে হাই কমিশন।হুসেইন বোরের পরিবার যখন শরণার্থী হিসেবে যুক্তরাজ্যে আশ্রয় নিয়ে সাউথ্যাম্পটনে বসবাস করতে শুরু করে, সে সময় তিনি বা তার মা কেউই ইংরেজিতে কথা বলতে পারতেন না। লন্ডনের পিয়ারসন কলেজে এক সাক্ষাৎকারে হুসেইন বোর বলেছিলেন, যুক্তরাজ্যে তাকে এবং তার পরিবারকে যেভাবে গ্রহণ করা হয়েছিল, সেটাই তার জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত।হুসেইন বোর রেকটরি কমপ্রিহেনসিভ স্কুল ও হ্যাম্পটন গ্রামার স্কুলের পর আইন পড়েছেন ওয়ারউইক বিশ্ববিদ্যালয় ও কেম
মানবাধিকার কমিশন যুক্তরাজ্যের নর্থওয়েস্ট শাখার কার্যনিবাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

মানবাধিকার কমিশন যুক্তরাজ্যের নর্থওয়েস্ট শাখার কার্যনিবাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

আমিনুল হক ওয়েছ, যুক্তরাজ্য :: আর্থমানবতার কাজে নিজেদের এগিয়ে আসার আহবানের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হল বাংলাদেশে মানবাধিকার কমিশন যুক্তরাজ্য নর্থওয়েস্ট শাখার কার্যনিবাহী কমিটির আলোচনা সভা। বুধবার( ২৪শে জানুয়ারী ) দুপুরে গ্রেটার ম্যানচেস্টার বাংলাদেশ হাউসের হল রুমে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি ম্যানচেস্টারের বিশিষ্ট কমিনিউটি ব্যক্তিত্ব মঈনুল আমিন বুলবুল। সংগঠনের সাধারন সম্পাদক রুহুল আমিন রুহুলের পরিচালনায় এতে অন্যানের মধ্য উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের এক্সিকিউটিব সভাপতি সাইকুল ইসলাম, সহ-সভাপতি ফারুক আহমেদ, এডভোকেট মীর গোলাম মস্তফা, আবু তাহের, এনামুল হক দলা মিয়া, আমিনুল হক ওয়েছ, ফয়জুল হক জুয়েল, আবু সাইদ তালুকদার শামীম, আবুল বশর চৌধূরী সহ সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। আলোচনা সভার শূরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি মঈনুল আমিন বুলবুল, তিনি তার বক্তব্যে সংগঠনের বিভিন্ন দিক নিয়ে আল
একটু অন্যরকম বাংলা স্কুলে বই প্রদান

একটু অন্যরকম বাংলা স্কুলে বই প্রদান

জুনেদ আহমেদ ঃ প্রবাসে বেড়ে উঠা বাঙালী নব প্রজন্মের শিশু-কিশোরদের বাংলা ভাষা শেখা,লিখা ও পড়ার বিষয়ে আগ্রহী করতে বার্মিংহামে শুরু হওয়া একটু অন্যরকমের বাংলা স্কুলে বাংলা বই প্রদান করেছেন চ্যানেল আইয়ের বিশেষ প্রতিনিধি আব্দুল আহাদ সুমন। গত ১৮ জানুয়ারী বার্মিংহামের স্মলহীথের মিডিয়া পয়েন্টে এক অনুষ্টানের মাধ্যমে বাংলা স্কুলের পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাফিজ ক্বাবির আহমেদের হাতে আনুষ্টানিকভাবে এই বই হস্তান্তর করা হয়। এসময় বই দাতা চ্যানেল আইয়ের বিশেষ প্রতিনিধি আব্দুল আহাদ সুমন বাংলা স্কুলের যে কোনো বিষয়ে সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করে কমিউনিটির সকলকে এবিষয়ে এগিয়ে আসার আহবান জানান। বই হস্তান্তর অনুষ্ঠানে অন্যন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এটিএন বাংলা ইউকে‘র জয়নাল ইসলাম, চ্যানেল আইয়ের বার্মিংহাম প্রতিনিধি লোকমান হোসেন কাজী,এলবি টুয়েন্টি ফোর ডট টিভির মিডল্যান্ডস প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান জিয়া,চ্যানে
রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো নিয়ে উদ্বিগ্ন ব্রিটেন

রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো নিয়ে উদ্বিগ্ন ব্রিটেন

রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ব্রিটিশ এমপিরা। কারণ তারা মনে করেন, এখনো দেশটিতে সেনাবাহিনীর ধর্ষণ আর যৌন সহিংসতা অব্যাহত থাকায় রোহিঙ্গাদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ তৈরি হয়নি।   ব্রিটিশ কমন্স ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট কমিটি বলছে, এটা পরিষ্কার যে, বার্মার (মিয়ানমার) সেনাবাহিনী ধর্ষণ আর যৌন সহিংসতাকে যুদ্ধের একটি অস্ত্রের মতো ব্যবহার করছে। রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে বাংলাদেশ দ্রুত পদক্ষেপ নিচ্ছে বলেও তারা মনে করছেন।   রাষ্ট্রহীন রোহিঙ্গারা দীর্ঘদিন ধরে মিয়ানমারে নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। দেশটিতে সাম্প্রতিক সহিংসতা শুরু হওয়ার পর সাড়ে ৬ লাখের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। যাকে জাতিগত নির্মূল অভিযান বলে বর্ণনা করেছে জাতিসংঘ এবং যুক্তরাষ্ট্র।
রানীর অন্তর্বাস নিয়ে বই লিখে বিপাকে

রানীর অন্তর্বাস নিয়ে বই লিখে বিপাকে

ব্রিটেনের রানী এলিজাবেথসহ রাজপরিবারের নারীদের অন্তর্বাস নিয়ে বই লিখে বিপাকে পড়েছে অন্তর্বাস সরবরাহকারী একটি প্রতিষ্ঠান। প্রায় পাঁচ দশক ধরে রাজপরিবারের নারীদের জন্য অন্তর্বাস সরবরাহকারী ওই প্রতিষ্ঠানটির সরবরাহ অনুমতি বাতিল করা হয়েছে।   বৃহস্পতিবার বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, রিগবি অ্যান্ড পিলার নামে বিলাসী অন্তর্বাস প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানটি লন্ডনে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৬০ সাল থেকে প্রতিষ্ঠানটি রাজপরিবারে অন্তর্বাস সরবরাহ করে আসছে।   রানীর জন্য অন্তর্বাস তৈরিকারী জুন কেনটন সম্প্রতি ‘স্টর্ম ইন এ ডি-কাপ’ শিরোণামে বই লেখেন। রানীর অন্তর্বাস তৈরিকারী হিসেবে কেনটন নিয়মিত বাকিংহাম প্যালেসে যাতায়াত করতেন। তিনি  রানী প্রথম এলিজাবেথ ও প্রিন্সেস মার্গারেটেরও অন্তর্বাস তৈরি করতেন। ৮২ বছরের কেনটনের লেখা বইটি গত বছরের মার্চে প্রকাশিত হয় এবং এতে তিনি রাজপরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাতে
লন্ডন মহানগর জাসাস এর কর্মীসভা অনুষ্টিত।

লন্ডন মহানগর জাসাস এর কর্মীসভা অনুষ্টিত।

যুক্তরাজ্য জাসাসের সাংগঠনিক মাসের কর্মসূচীর অংশ হিসেবে ৯ জানুয়ারি মঙ্গলবার টাওয়ার হ্যামলেটসের একটি রেস্টুরেন্টে লন্ডন মহানগর জাসাসের এক কর্মীসভা অনুষ্ঠিত হয়। বদরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং রাজ্ হাসানের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য জাসাসের সভাপতি এমাদুর রহমান এমাদ এবং প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য জাসাসের সাধারণ সম্পাদক তাজবীর চৌধুরী শিমুল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য জাসাসের সহ সভাপতি রাসেল চৌধুরী, যুগ্মসম্পাদক হাবিবুর রহমান বাবলু, সহিদ আহমেদ, আব্দুল মোতালিব লিটন, মুজাহিদ খান মুন্না, যুক্তরাজ্য জাসাসের সদস্য মুহিন আলম, আবু সুফিয়ান মুরাদ, কমিউনিটি নেতা জিয়ার আহমেদ, লন্ডন মহানগরের তানভীর খান, আরিফুল ইসলাম উজ্জ্বল, শাহেদ আহমেদ, কাজী হোসাইন, সোনিয়া তাসনিম, রেহানা সুমি, ইব্রাহিম মিয়া, রুমান আহমদ, রাসেল আহমদ,আব্দুল্লাহ ম
ইংলাক লন্ডনে

ইংলাক লন্ডনে

চালে ভর্তুকি দিয়ে রাষ্ট্রের শতকোটি ডলার ক্ষতি করার দায়ে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত থাইল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রাকে লন্ডনে দেখা গেছে।   সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইংলাকের দুটি ছবি ছড়িয়ে পড়ার পর মঙ্গলবার থাইল্যান্ডের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডন প্রামুদোয়াইনাই পলাতক সাবেক প্রধানমন্ত্রীর যুক্তরাজ্যে অবস্থানের কথা নিশ্চিত করেন বলে রয়টার্স জানিয়েছে।   ছবি দুটির একটিতে সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে লাল কোট পরিহিত এক নারীর সঙ্গে লন্ডনের হ্যারড ডিপার্টমেন্ট স্টোরে এবং অন্যটিতে তাকে ওয়েস্টফিল্ড শপিং মলের কাছে দেখা গেছে।   রয়টার্স ছবি দুটির সত্যতা নিশ্চিত করতে না পারলেও থাইল্যান্ডের পুলিশ পরীক্ষা নিরীক্ষার পর জানিয়েছে, ছবিগুলো আসল। ইংলাকের সঙ্গে থাকা নারীর পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি তারা।   রাষ্ট্রীয় টাকায় চাল কেনায় অনিয়মের অভিযোগে গত বছরের সেপ্টেম্বরে ইং
আড়াই টাকার নোট দেখেছেন?

আড়াই টাকার নোট দেখেছেন?

এক থেকে এক হাজার, নয়টি কাগুজে নোট প্রচলিত রয়েছে বাংলাদেশে। বুকপকেট, আলমারির দেরাজ কিংবা অন্য কারো হাতে, যেখানেই শোভা পাক না কেন, নোটগুলো আমাদের কাছে খুবই পরিচিত। তবে আমাদের এই দেশেই এমন একটি নোট প্রচলিত ছিল, যেটি অপরিচিত তো বটেই, শুনলে ভ্রু কুঁচকে উঠতেও পারে। এখন থেকে ঠিক ১০০ বছর আগে ব্রিটিশ শাসনাধীন ভারতবর্ষে প্রচলন করা হয়েছিল এমনই এক নোট। নোটটির মূল্য ছিল দুই রুপি আট আনা, অর্থাৎ আড়াই টাকা। সে সময় এই আড়াই টাকার বিনিময় মূল্য ছিল এক মার্কিন ডলারের সমান। গতকাল মঙ্গলবার সেই আড়াই টাকার নোটের ১০০ বছরপূর্তি হলো। ব্রিটিশ সরকার প্রচলিত নোটটি ছিল একেবারেই সাদামাটা। এক টুকরা কাগজের একেবারে ওপরে লেখা ছিল ‘ভারত সরকার’। এর নিচে লেখা ছিল ‘চাহিবা মাত্র এর বাহককে দুই রুপি আট আনা দিতে বাধ্য থাকবে’। নোটটিতে বাঁ দিকে ওপরে পঞ্চম জর্জের ছবি এবং নিচে তৎকালীন  ব্রিটিশ অর্থ সচিব এম এম এস গুব্বের সই ছিল।