লাইফ ষ্টাইল

হালুয়ার কয়েক পদ

হালুয়ার কয়েক পদ

বিশেষ কোনো আয়োজনে মিষ্টান্ন হিসেবে হালুয়ার কদর রয়েছে বেশ। স্বাদ ও গন্ধে জিভে জল নিয়ে আসে মজার স্বাদের সব হালুয়া। আজ চলুন জেনে নেয়া যাক কয়েক পদের হালুয়া তৈরির রেসিপি- গাজরের হালুয়া উপকরণ: গাজর-দেড় কেজি (কুচি বা গ্রেট করা), চিনি- দুই কাপ, দুধ- ২ লিটার, এলাচ- ৩/৪ টা, দারচিনি- ২/৩ টা, কাজুবাদাম- ১০-১২টা, ঘি- ৩-৪ টেবিল চামচ। প্রণালি: প্রথমে দুধ জ্বাল দিয়ে কিছুটা ঘন করে নিতে হবে। গ্রেট করা গাজর দুধের মধ্যে দিয়ে ভালো করে নাড়তে থাকুন। মধ্যম আঁচে চুলায় নাড়তে থাকুন যতক্ষণ না গাজর নরম হয়। এবার চিনি, এলাচ, দারচিনি দিয়ে আস্তে আস্তে নাড়ুন। দুধ শুকিয়ে আসা পর্যন্ত মাঝে মাঝে নাড়তে থাকুন। দুধ শুকিয়ে আসলে অল্প আঁচে ঘি দিয়ে একবার নেড়ে দিন। হালুয়া পাত্রের সাইডে যখন আর লাগবেনা আর সোনালি বাদামি রং হবে তখন নামিয়ে নিয়ে কাজু বাদাম কুচি দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন। নারিকেলের হালুয়া উপকরণ: নারিকেল কোরানো
যে ৫ অভ্যাস কমিয়ে দিচ্ছে আপনার আইকিউ

যে ৫ অভ্যাস কমিয়ে দিচ্ছে আপনার আইকিউ

আমাদের অজ্ঞতা বা উদাসীনতার কারণে ধীরে ধীরে মস্তিষ্ক তার স্বাভাবিক কর্মক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। ক্ষতিগ্রস্থ হয় আমাদের বুদ্ধিমত্তা। মানুষের বুদ্ধি মাপতে হলে হিসেব নেওয়া হয় তার আইকিউ বা Intelligence Quotient- এর ভিত্তিতে। সাম্প্রতিক একটি রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, বিশ্বের মোট জনসংখ্যার মাত্র ২ শতাংশ ‘আইকিউ ওয়ার্ল্ড টেস্ট’-এ ১৩০-র (যা অত্যন্ত বুদ্ধিমান ব্যক্তির পক্ষেই পাওয়া সম্ভব) উপরে নম্বর পান।   কিন্তু আমরা এমনকিছু কাজ প্রায় প্রতিদিন করি যা আমাদের বুদ্ধিমত্তা কমিয়ে দেয়ার জন্য দায়ী। আসুন জেনে নেওয়া যাক, এমন কিছু অভ্যাস সম্পর্কে যেগুলো আমাদের অজান্তেই মস্তিষ্কের উপর খারাপ প্রভাব ফেলে, ফলে ক্ষতিগ্রস্থ হয় আমাদের বুদ্ধিমত্তা-   অনেকেই মনে করেন একসঙ্গে দুই বা তার বেশি কাজ করতে পারা দুর্দান্ত কোনো দক্ষতা। কিন্তু বিষয়টি আসলে উল্টোই! মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার স্ট্যানফোর্
প্রেগন্যান্সির সময় ত্বকে সমস্যা? সমাধান জেনে নিন

প্রেগন্যান্সির সময় ত্বকে সমস্যা? সমাধান জেনে নিন

মা হওয়ার মধ্য দিয়েই পূর্ণতা পায় নারীত্বের। কিন্তু মা হওয়ার পুরোটা সময় নারীকে শারীরিক নানা জটিলতা ও ব্যথা-বেদনার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। সন্তান গর্ভে আসার পর মানসিক ও শারীরিক দুই ক্ষেত্রেই মেয়েদের বড় পরিবর্তন আসে।   সেইসঙ্গে অন্তঃসত্তা থাকা অবস্থায় মহিলাদের ত্বকেও বেশ কিছু সমস্যা দেখা যায়। মূলত হরমোনজনিত কারণেই এই সমস্যা দেখা যায়।   এই সময় খুব বেশি রাসায়নিক ক্রিম ব্যবহার করা যায় না। যখন-তখন ইচ্ছা মতো ওষুধসেবনও ঠিক নয়। তা হলে এই ধরনের ত্বকের সমস্যায় কি কিছুই করার উপায় নেই?     বিশেষজ্ঞদের মতে, এই সময় কিছু বাড়তি সতর্কতা হবু মাকে নিতেই হয়। এমন কোনো দ্রব্য ব্যবহার করা যায় না, যা তার শরীর ও ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। কারণ, তার উপরেই নির্ভর করবে গর্ভস্থ শিশুর স্বাস্থ্য।   জেনে নিন অন্তঃসত্ত্বা নারীর ঠিক কী কী ত্বকের সমস্যা হয় আর সেই সমস্যাগুলির সমাধান
আধ ঘণ্টায় উজ্জ্বল ত্বক পাবেন যেভাবে

আধ ঘণ্টায় উজ্জ্বল ত্বক পাবেন যেভাবে

হঠাৎ করেই দাওয়াত কিংবা পার্টি? এদিকে রূপচর্চা না করার কারণে ত্বকের রং নিষ্প্রোভ? কী করা যায় বলুন তো! একটি উপায় বাতলে দেই, যাতে আপনি মাত্র আধ ঘণ্টা সময়েই পাবেন উজ্জ্বল ত্বক। মাত্র ৩টি জিনিস প্রয়োজন হবে ফেস প্যাকটি বানানোর জন্য। সবার বাড়িতে এই তিনটি জিনিস সবসময় থাকে। চলুন কথা না বাড়িয়ে দেখেনি কি কি লাগবে আর কিভাবে ব্যবহার করতে হবে।   আরও পড়ুন : ক্লান্ত চেহারা সতেজ দেখানোর উপায় আপনি যদি মেকআপ করতে পছন্দ করেন তাহলে এই ফেস প্যাকটি মেকআপ করার ১ ঘণ্টা আগে করবেন। আর যদি হালকা সাজে থাকতে পছন্দ করেন তবে বাইরে যাবার ৩০মিনিট আগে এটি ব্যবহার করবেন। মাত্র তিনটি সহজ ঘরোয়া জিনিস দিয়ে বানাতে হবে ফেস প্যাকটি।   ৪ চা চামচ বেসন, ২ চা চামচ কাঁচা দুধ ও একটি আস্ত পাতিলেবুর রস নিন। সব উপকরণ একটি পাত্রে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি তৈরি হয়ে গেলে ৫ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন। এবার তুলো বা ফেস ব্রাশ দিয়ে
সহজেই তৈরি করুন কাচ্চি বিরিয়ানির মসলা

সহজেই তৈরি করুন কাচ্চি বিরিয়ানির মসলা

কাচ্চি বিরিয়ানির ঘ্রাণে কাবু হন অনেকেই। জিভে জল আনা এই খাবারটির স্বাদ ও গন্ধ বৃদ্ধি পায় এতে মসলার ব্যবহারে। বাজারে কাচ্চি বিরিয়ানি তৈরির মসলা কিনতে পাওয়া যায়। তবে সবচেয়ে ভালো হয় যদি নিজেই ঘরে তৈরি করে নিতে পারেন। চলুন শিখে নেয়া যাক-   উপকরণ: সাদা গোলমরিচ দেড় টেবিল চামচ এলাচ ১৫টি দারুচিনি গুঁড়া আধা টেবিল চামচ জিরা এক টেবিল চামচ জয়ত্রি আধা টেবিল চামচ জায়ফল একটি কাবাব চিনি এক টেবিল চামচ শাহ জিরা আধা টেবিল চামচ কাজুবাদাম ১৪টি লবণ এক চা চামচ।   প্রণালি: শুকনো কড়াইতে লবণ, কাজুবাদাম এবং দারুচিনি পাউডার বাদ রেখে বাকি সব মসলা টেলে নিন। খেয়াল রাখুন মসলাগুলো বেশি টালা না হয়। বেশি টাললে মসলা পুড়ে কালো হয় যাবে। এবার মসলা নামিয়ে রেখে বাদামগুলো হালকা করে টেলে নিন। টালা মসলা, বাদাম এবং লবণ দিয়ে ব্লেন্ডারে গুঁড়া করে নিন। মসলাগুলো ঠান্ডা হলে মিহ
বৈশাখে নতুন পোশাকে টুয়েলভ

বৈশাখে নতুন পোশাকে টুয়েলভ

বৈশাখ মানেই নতুনের জয়ধ্বনি। বৈশাখ মানেই পুরনো গ্লানি-ব্যর্থতাকে জয় করে সামনে এগিয়ে যাওয়া। বাংলা নববর্ষকে আরও রঙিন করে তুলতে সম্প্রতি ফেনীতে যাত্রা শুরু করেছে ফ্যাশন হাউস টুয়েলভ।   শুক্রবার শো-রুমে উদ্বোধন করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক দেবময় দেওয়ান। এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন ফেনী সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার মো. মামুন, টুয়েলভ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল্লাহ হিল রাকিব, উর্ধ্বতন কর্মকর্তা আক্তারুজ্জামান প্রমুখ।   উদ্বোধনী উৎসবে টুয়েলভ’র সকল পণ্যের উপর ৩ দিনের ২০ শতাংশ মূল্য ছাড়ের পাশাপাশি দিচ্ছে শেক অ্যান্ড উইন, পেমেন্ট ক্যাশব্যাকসহ আরও অনেক উপহার। অফার ও চমকের পাশাপাশি রয়েছে বৈশাখী শাড়ি, পাঞ্জাবি ও শিশুদের পোশাকসহ নানা কালেকশন।   নারীদের জন্য রয়েছে চমৎকার রঙ-নকশায় রাঙানো পহেলা বৈশাখের শাড়ি, থ্রি-পিসসহ বিভিন্ন বৈশাখী ড্রেস। পুরুষদের জন্য নববর্ষের রঙে রঙিন
ছেলেদের ব্ল্যাকহেডস হলে করণীয়

ছেলেদের ব্ল্যাকহেডস হলে করণীয়

ব্ল্যাকহেডস নিয়ে শুধু যে মেয়েরাই সমস্যায় ভোগেন, এমন নয়। ত্বকের এই সমস্যায় ভুগে থাকেন ছেলেরাও। অনেকক্ষেত্রে মেয়েদের থেকেও ছেলেদের ত্বকে বেশি দেখা যায় এই সমস্যা। কারণ তারা মেয়েদের তুলনায় বেশি সময় ধুলোবালির সংস্পর্শে থাকে এবং ত্বকের প্রতি কম যত্নশীল হয়।   আমাদের নাকের দুপাশে, কপালে, গালে, চিবুকে, থুতনির উপর, ঠোঁটের আশেপাশে যে ছোট ছোট বাদামি অথবা কালো এবং ত্বকের থেকে অল্প উঁচু অংশ থাকে তাকেই ব্ল্যাকহেডস বলে। অনেক সময় এই সমস্যা শরীরের বিভিন্ন অংশে ছড়িয়ে যায়।     যেকোনো বয়সে ধুলাবালির আক্রমণে ব্ল্যাকহেডস হতে পারে। মূলত মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার না করলে ব্ল্যাকহেডস হয়। অতিরিক্ত প্রসাধনী ব্যবহারের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হিসেবেও ব্ল্যাকহেডস হতে পারে। তেল-ময়লা জমে বন্ধ হয়ে যাওয়া ত্বকের ছিদ্র এবং মৃত কোষের সমষ্টি, বাতাসের অক্সিজেনের সংস্পর্শে এসে কালো হয়ে ব্ল্যাকহেডসে রূপ নেয়।
পেটের মেদ বাড়ার ৫ কারণ

পেটের মেদ বাড়ার ৫ কারণ

পেটের মেদ নিয়ে চিন্তার যেন শেষ নেই। মেদ কমাতে কত কিছুই না করছেন? কিন্তু মেদ কেন বাড়ছে তা কি জানেন?   পেটের বিভিন্ন অংশের চারপাশে এই মেদ জমে। যা থেকে সৃষ্টি হয় নানা রোগের। হার্টের সমস্যা, ডায়াবেটিস, রক্তচাপের মতো অসুখের সূত্র পেটের এই মেদ থেকেই। যাকে সাধারণ ভাবে বলা হয় ‘বেলি ফ্যাট’।   শুধুমাত্র খাওয়ার জন্যই নয়। আরও কিছু কারণে পেটের মেদ বাড়তে পারে -   ১। সারা দিনে ঘুরতে ফিরতে, কাজের ফাঁকে কিছু-না-কিছু খাওয়া হয়েই যায়। কিন্তু এই খাবারগুলো মুখরোচক স্ন্যাক্স হলেই গন্ডোগোল। ফাস্ট ফুড খেতে সুস্বাদু হলেও স্বাস্থ্যের জন্য একেবারেই ঠিক নয়। এর পরিবর্তে যদি ফল বা স্যালাদ খাওয়া যায় তাতে উপকার হবে।   ২। দই খাওয়ার অভ্যাস করুন। কারণ এতে যে ‘গুড ব্যাক্টেরিয়া’ থাকে। যা হজমে সাহায্য করে। ফলে পেটে মেদ বাড়ার সুযোগ হয় না।   ৩। সাধারণত নেগেটিভ ইমোশন থাকলে বেশ
থানকুনি পাতার এই উপকারিতাগুলো জানতেন?

থানকুনি পাতার এই উপকারিতাগুলো জানতেন?

গোল গোল খাঁজকাটা পাতা, আকারে একটি পয়সার থেকে কিছুটা বড়। তেতো স্বাদের এই পাতাটি আমাদের শরীরের জন্য ভীষণ উপকারী। অনেকে এর উপকারিতা সম্পর্কে জানেন না বলে ফেলে রাখেন অবহেলায়। বলছি থানকুনি পাতার কথা। অনেকে হয়তো জানেন এটি খেলে পেটের অসুখ সারে- ব্যস এটুকুই! কিন্তু থানকুনি আমাদের শরীরের বেশিরভাগ সমস্যারই সমাধানে কাজে লাগে। ভেষজগুণে সমৃদ্ধ থানকুনির রসে রয়েছে শরীরের জন্য প্রচুর উপকারী খনিজ ও ভিটামিন জাতীয় পদার্থ।   কোথায় পাওয়া যায় উপকারী এই ভেষজ উদ্ভিদটি সাধারণত স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশেই বেশি জন্মে। তাই পুকুরপাড় বা জলাশয়ের পাশে থানকুনির দেখা মেলে বেশি। গ্রামাঞ্চলে বাড়ির আশেপাশে, রাস্তার পাশে কিংবা ক্ষেতের আইলে ছোট ছোট তারার মতো খাঁজকাটা এই পাতাগুলো দেখতে পাওয়া যায়। এখন শহরের বাজারগুলোতেও পাওয়া যায় থানকুনি পাতা। আরও যে নামে ডাকা হয় অঞ্চলভেদে এই পাতাটিকে টেয়া, মানকি, তিতুরা, থানকু
চুুল সুন্দর রাখবে অ্যালোভেরা

চুুল সুন্দর রাখবে অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা আমাদের রুক্ষ ত্বকের যত্নে বেশ কার্যকরী সেকথা সবাই জানি। এটি কিন্তু আমাদের চুলের যত্নেও সমান কার্যকরী। সিল্কি, উজ্জ্বল, মজবুত চুল পেতে আস্থা রাখতে পারেন অ্যালোভেরায়।   যে কোনো হেয়ার মাস্কে অ্যালোভেরা যোগ করতে পারলে তা চুলকে আলাদা ঔজ্জ্বল্য এনে দেয়। শুধু তা-ই নয়, অ্যালোভেরার রস ও শাঁস দুইটিই চুলের জন্য উপযুক্ত। বাড়িতেই তৈরি করে নিতে পারেন এমন কিছু হেয়ার স্পা যার অন্যতম উপাদান অ্যালোভেরা। জেনে নিন কীভাবে তৈরি করবেন-   লেবু ও অ্যালোভেরা লেবুর রস, অ্যালোভেরা ও আমলার রস দিয়ে বানানো এই মিশ্রণ চুলের স্বাভাবিক বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। চুলকে গোড়া থেকে মজবুত করতেও এটি অত্যন্ত কার্যকর।   মধু, নারিকেল তেল ও অ্যালো ভেরা শুষ্ক চুলে আর্দ্রতা ফেরাতে ও চুলের ডিপ কন্ডিশনিং করতে এই প্যাকের জুড়ি নেই। এক চামচ মধু, দুই চামচ নারিকেল তেল ও দুই চামচ অ্যালোভেরা নিয়ে