সিলেট বিভাগ

কুলাউড়ার এমএম শাহীনসহ বিএনপির সংস্কারপন্থিরা আনুষ্ঠানিকভাবে দলে ফিরছেন

কুলাউড়ার এমএম শাহীনসহ বিএনপির সংস্কারপন্থিরা আনুষ্ঠানিকভাবে দলে ফিরছেন

মৌলভীবাজার-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও ঠিকানা গ্রুপের চেয়ারম্যান এমএম শাহীন আনুষ্ঠানিকভাবে দলে ফিরছেন। প্রায় এক যুগ দলের বাইরে থাকা কথিত সংস্কারপন্থি নেতাদের ফিরিয়ে আনছে বিএনপি। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর গুলশানে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে একত্র হয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দলে ফিরছেন তারা। পর্যায়ক্রমে অন্য নেতাদেরও দলে ফিরিয়ে আনা হবে। তবে বিভিন্ন সময় দল থেকে বহিস্কৃত নেতাদের বিষয়ে এখনই কোনো সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন না শীর্ষ নেতারা। অভ্যন্তরীণ আপত্তি ও বাধার মুখে আপাতত তাদের দলে ফেরানোর পরিকল্পনা স্থগিত করা হয়েছে। ওয়ান-ইলেভেনের রাজনৈতিক পটপরিবর্তনে ২০০৭ সালের ২৫ জুন বিএনপির তৎকালীন মহাসচিব প্রয়াত আবদুল মান্নান ভূঁইয়া দলে ১৫ দফা সংস্কার প্রস্তাব উত্থাপন করেন। দলের ১২৭ জন সাবেক মন্ত্রী-সাংসদ তাকে সমর্থন দেন। তার পর থেকে এ অংশ 'সংস্কারপন্থি' হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছে। সংস্কার প্রস্তাবের
টেন্ডারে অনিয়ম জালিয়াতিশেভরন বাংলাদেশের ৫ কর্মকর্তাকে  লিগ্যাল নোটিশ প্রদান। ৭ দিনের আল্টিমেটাম।

টেন্ডারে অনিয়ম জালিয়াতিশেভরন বাংলাদেশের ৫ কর্মকর্তাকে লিগ্যাল নোটিশ প্রদান। ৭ দিনের আল্টিমেটাম।

নবীগঞ্জ উপজেলার বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ডের শ্রমিক সরবরাহ লেবার টেন্ডার সিডিউলে অনিয়ম ও লাইসেন্স জালিয়াতির অভিযোগে বিবিয়ানা গ্যাস প্লান্টের দায়িত্বে নিয়োজিত শেভরন বাংলাদেশের ৫ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বুধবার (২৪ অক্টোবর) সকালে হবিগঞ্জ জজকোর্টে থেকে লিগ্যাল নোটিশ করা হয়েছে। লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করেছেন শেভরন বাংলাদেশের বর্তমান লেবার সবরবাহকারী প্রতিষ্ঠান রহমান ট্রেডার্স এর পক্ষে হবিগঞ্জ জজ কোর্টের বিজ্ঞ আইনজিবি আবু বকর সিদ্দিক। উক্ত লিগ্যাল নোটিশ নিয়ে বিবিয়ানা এলাকায় তোলপাড় হচ্ছে। সাত দিনের মধ্যে কারণ দর্শানো না হলে হাইকোর্টে রিট পিটিশন করার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছে। লিগ্যাল নোটিশের মাধ্যমে জানা যায়, গত ২২ জুলাই শেভরন বাংলাদেশ এর কন্ট্রাক্ট এডমিনিস্ট্রেটর মো. গোলাম তামজিদ এক মেইল বার্তায় বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ডের ৪টি প্যাডের লেবার সার্ভিস (শ্রমিক সরবরাহ) দরপত্র আহবান করেন। উক্ত দরপত্র
সিলেটে অত্যাধুনিক খান’স প্যালেস কনভেনশন হলের উদ্বোধন

সিলেটে অত্যাধুনিক খান’স প্যালেস কনভেনশন হলের উদ্বোধন

 সিলেট নগরীর সুবিদবাজারে বর্ণাঢ্য আয়োজনে যাত্রা শুরু করেছে খান’স প্যালেস কনভেনশন সেন্টার। দৃষ্টিনন্দন স্থাপনা শৈলিতে নির্মিত অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত এ কনভেনশন সেন্টারের আয়তন ৪৬ হাজার স্কয়ার ফুট। সেখানে একসাথে সহস্রাধিক মানুষের আপ্যায়নের সুযোগ থাকবে। রয়েছে ওয়াই-ফাই সুবিধাসহ কিডস প্লে জোনের ব্যবস্থাও। বুধবার রাতে অত্যাধুনিক এ কনভেনশন সেন্টারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। এ উপলক্ষে আয়োজন করা হয় দোয়া মাহফিলের। পরে অতিথিরা ফিতা কেটে কনভেশন সেন্টারের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। সংশ্লিষ্টরা জানান, সুবিশাল আয়তনের এ কনভেনশন সেন্টার আধুনিক শৈলিতে নির্মাণ করা হয়েছে। এখানে রয়েছে আন্ডারগ্রাউন্ড পার্কি ব্যবস্থা; যেখানে অনেক গাড়ি পার্কিং করা যাবে। এছাড়া শিশুদের জন্য খেলার জায়গা, তিন স্তরের হাইজেনিক রান্নাঘর, কেন্দ্রীয় শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্র এবং সার্বক্ষণিক জেনারেটরের ব্যবস্থা রয়েছে। এ কারণে এখানে
সিলেট থেকে কি বার্তা দিলো ঐক্যফ্রন্ট?

সিলেট থেকে কি বার্তা দিলো ঐক্যফ্রন্ট?

একাদশ সংসদ নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে করার দাবিতে গড়ে ওঠা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট তাদের প্রথম কর্মসূচি পালন করলো। নানা শঙ্কা আতঙ্কের মধ্যেও বুধবার (২৪ অক্টোবর) পূণ্যভূমি সিলেটের রেজিস্টি মাঠে বিএনপি, গণফোরাম, জেএসডি ও নাগরিক ঐক্যের সমন্বয়ে গঠিত এই ঐক্যফ্রন্ট শান্তিপূর্ণভাবেই জনসভা শেষ করেছে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা সিলেটের এই জনসভাকে দাবি আদায়ে আন্দোলনের টার্নিং পয়েন্ট মনে করেছিলেন। সেখান থেকে কি বার্তা দিবেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা, তাই সবার চোখ ছিল এই জনসভায়। গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডির) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাসহ ঐক্
‘ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে বিজয় অনিবার্য’

‘ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে বিজয় অনিবার্য’

সিলেটে আয়োজিত জনসভায় গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন বলেছেন, দেশের মানুষ স্বৈরতন্ত্রের প্রজা হয়ে থাকতে চায় না, দেশের মালিক তাদের মালিকানা ফিরে পেতে চায়। এজন্য জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আমাদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে বিজয় অনিবার্য। বিকালে জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন ড. কামাল। তিনি তার বক্তব্যে ঐক্যফ্রন্টের সাত দফা দাবি উল্লেখ করে তা তৃণমুল পর্যায়ে পৌঁছে দেয়ার আহবান জানান। জনসভা সফল করায় সিলেটের নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, জনগণ এই দেশের মালিক। মালিকানা থেকে বঞ্চিত করে রাখা হয়েছে। এই মালিকানা উদ্ধারে জনগণের ঐক্য অপরিহার্য। সত্যিকার অর্থে নির্বাচন না হলে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হবে না। সত্যিকার নির্বাচনের লক্ষ্যে আমরা সাত দফা দিয়েছি। ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে আমরা আমাদের লক্ষ্য অর্জন করবো। এর আগে সমাবেশের প্রধান বক্তা বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল
বিশ্বের প্রতিটি দেশের মতো বাংলাদেশেও উশু নতুন উদ্যোমে এগিয়ে যাচ্ছে ……. মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম

বিশ্বের প্রতিটি দেশের মতো বাংলাদেশেও উশু নতুন উদ্যোমে এগিয়ে যাচ্ছে ……. মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম

সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) এর কার্যনির্বাহী সদস্য মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম বলেছেন, আত্মরক্ষার সব ধরনের কৌশলের মিলে তৈরি হয় উশু। খালি হাতে, লাঠির সাহায্যে বা ধারালো তলোয়ার দিয়ে নিজেকে রক্ষার কৌশল রয়েছে এই খেলায়। সুদূর চীনে এর উৎপত্তি হলেও এখন তা ছড়িয়ে গেছে সারাবিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশে। বাংলাদেশেও উশু নতুন উদ্যোমে এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশে উশুকে আরো এগিয়ে নিতে সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক উশু কোচ মো. আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে মাস ব্যাপী এ উশু প্রশিক্ষণ অত্যন্ত দক্ষতার সহিত সমাপ্তি হয়েছে। এ ধরনের প্রশিক্ষণ ভবিষ্যতে তৃনমূল পর্যায় থেকে খেলোয়াড় তৈরি হয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অবদান রাখবে বলে আমি মনে করি। তিনি ২২ অক্টোবর রাতে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের কনফারেন্স হলে সিলেট চাইনিজ উশু ফাইটার স্কুলের উদ্যোগে উশু খেলোয়াড় তৈরির লক্ষ
মেট্রোপলিন ক্লাবের ইকোনোমিক এন্ড  কমিউনিটি ডেভোলাপমেন্ট মান্থ পালিত

মেট্রোপলিন ক্লাবের ইকোনোমিক এন্ড কমিউনিটি ডেভোলাপমেন্ট মান্থ পালিত

সিলেট গ্রামার স্কুলের প্রিন্সিপাল বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ রোটারিয়ান সিরাজুল ইসলাম ফারুক বলেছেন, অক্টোবর মাস রোটারী ইন্টারন্যাশনাল ঘোষিত ইকোনোমিক এন্ড কমিউনিটি ডেভোলাপমেন্ট মান্থ। এ উপলক্ষ্যে রোটারী ক্লাব মেট্রোপলিটন সিলেট আজ যে সেমিনারের আয়োজন করেছে তা অত্যন্ত সময়োপযেী। তিনি অর্থনীতির বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরেন। তিনি বলেন, রোটারী মানবসেবায় বিশাল অবদান রাখছে। তিনি মানব সেবায় রোটারী ক্লাব অব মেট্রোপলিটনের অবদানের ভূয়সী প্রসংশা করেন। তিনি সোমবার নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে রোটারী ক্লাব অব মেট্রোপলিটন সিলেট আয়োজিত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। ক্লাব প্রেসিডেন্ট রোটারিয়ান আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে ও ক্লাব সেক্রেটারী রোটারিয়ান ইকবাল হোসেনের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সুরমা জোনের জোনাল কো-অর্ডিনেটর পিপি এম নূরুল হক সোহেল, ক্লাবের এ্যাসাইন এ্যাসিসটেন্ট গভর্ণর পিপি আজিজুর রহম
মোহনার স্বর্ণের চেইন জিতলেন ভাতালির তুলি আক্তার

মোহনার স্বর্ণের চেইন জিতলেন ভাতালির তুলি আক্তার

মিষ্টি জাতীয় খাবার প্রতিষ্ঠান মোহনা সুইটমিটের যাত্রা শুরু উপলক্ষে আয়োজিত র‌্যাফেল ড্র’র পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার রাত ৯টার দিকে নগরীর মির্জাজাঙ্গাল রোডে মোহনার শোরুমে আয়োজিত র‌্যাফেল ড্র ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আসাদ। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় দুই কাউন্সিলর শান্তনু দত্ত সন্তু ও বিক্রম কর স¤্রাট এবং সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবীর ইকু। উপস্থিত ছিলেন মোহনা সুইটমিটের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক বিশ্বজিৎ গোপ, দুই পরিচালক চন্দ্রজিৎ গোপ ও নন্দলাল গোপ এবং পরিচালক বৃন্দের মা গীতা রাণী গোপ। আরও উপস্থিত ছিলেন, সাংবাদিক এস সুটন সিংহ, মো. এনামুল কবীর, শহিদুল ইসলাম, ব্যাবসায়ী আজহারুল ইসলাম সাধু, বুদ্ধোদেব দাস, অ্যাডভোকেট গৌতম দাস, তাপস ভট্টাচার্য, সঞ্জয় দেব, মো. নুরু মিয়া, সন্দিপ দেব, দিপক দ
বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর পরাজয় এখন সময়ের ব্যাপার: ফখরুল

বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর পরাজয় এখন সময়ের ব্যাপার: ফখরুল

জনগণের মিলিত শক্তির কাছে বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর পরাজয় বরণ এখন সময়ের ব্যাপার বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, জনগণের ম্যান্ডেটবিহীন বর্তমান আওয়ামী সরকারের দুঃশাসন পৃথিবীর যেকোনো স্বৈরাচারীর নিষ্ঠুরতার ইতিহাসকেও হার মানিয়েছে। বর্তমান সরকার আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে তাদের অশুভ পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে একের পর এক বিএনপি নেতাদের গ্রেপ্তার করে চলেছে। বিএনপিসহ দেশের বিরোধী দলগুলোকে নিশ্চিহ্ন করে দেশকে বিরাজনীতিকরণের ঘৃণ্য উদ্দেশ্যে নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার অব্যাহত রেখেছে। বিএনপি মহাসচিব বলেন, জুলুমবাজ আওয়ামী সরকার মিথ্যা-গায়েবি মামলা দিয়ে, গণগ্রেপ্তার করে, প্রতিবাদী কণ্ঠের মানুষগুলোকে দিয়ে দেশের কারাগারগুলো ভরে ফেলছে। কারাগারগুলোতে বন্দি ধারণের আর ঠাঁই নেই। এসব অপকর্মের মূল লক্ষ্য একটাই- তাহলো ক্ষমতাকে চিরদিনের জন্য পাকাপোক্ত
সিলেটে জনসভা : বিগত ১০ বছরে এ সরকার এবারই প্রথম পিছু হটল

সিলেটে জনসভা : বিগত ১০ বছরে এ সরকার এবারই প্রথম পিছু হটল

মোবায়েদুর রহমানঃ অবশেষে সিলেটে পিছু হটলো সরকার। আমার যতদূর মনে পড়ে, বিগত ১০ বছরের শাসনামলে এবারই সর্ব প্রথম অনঢ় অবস্থান থেকে পিছু হটলো সরকার। সিলেটে জনসভা করার জন্য ৫/৬ দিন আগেই নিয়ম কানুন মেনে পুলিশের কাছে ২৩ অক্টোবর মঙ্গলবার রেজিস্টারি মাঠে জনসভা করার জন্য ঐক্যফ্রন্টের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ অনুমতি চেয়ে আবেদন করেন। দু’দিন পরে পুলিশ টেলিফোন করে ঐক্যফ্রন্টের স্থানীয় নেতৃবৃন্দকে জানায় যে, জনসভা অনুষ্ঠানের অনুমতি দেওয়া যাবে না। তখন পরদিন অর্থাৎ ২৪ অক্টোবর বুধবার জনসভা অনুষ্ঠানের জন্য আবেদন করা হয়। এবারেও সেই আবেদন নাকচ করা হয়। বিগত ১০ বছর ধরে বিশেষ করে বিগত ২০১৪ সালের জানুয়ারির নির্বাচনের পর থেকে এপর্যন্ত পুলিশ তথা সরকার বিএনপির জনসভা করার আবেদন ধারাবাহিকভাবে প্রত্য্যাখান করে আসছে এবং বিএনপিও সেই প্রত্যাখ্যান মেনে নিয়েছে। পুলিশের এই প্রত্যাখ্যানের বিরুদ্ধে বিএনপি কোনোদিন রুখে দাঁড়ায়নি। এমন