স্পোর্টস

এক ম্যাচ জিতলেই শিরোপা বার্সার

এক ম্যাচ জিতলেই শিরোপা বার্সার

কোন ধরনের অঘটন না ঘটলে লা লিগায় বার্সার শিরোপা জয় অনেকটা নিশ্চিত। মেসিদের কাজটা আরও সহজ করে দিল পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। শেষ ম্যাচে রিয়াল সোসিয়েদাদের কাছে ৩-০ গোলে হেরে গেছে দলটি। আর এতে সমীকরণটা এমন দাঁড়িয়েছে শেষ পাঁচ ম্যাচের যে কোনো একটিতে জিতলেই শিরোপার মুকুট পরবে ভালভার্দের শিষ্যরা।   নিজেদের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকেই অ্যাটলেটিকো শিবিরে আক্রমণ করে খেলতে থাকে স্বাগতিক সোসিয়েদাদ। এরি ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ২৭ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড উইলিয়ান জোসের গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিক শিবির।   দ্বিতীয়ার্ধের শেষের দিকে আবারও এগিয়ে যায় সোসিয়েদাদ। ম্যাচের ৮০ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হুয়ানমি। আর যোগ করা সময়ে জয় সূচক এবং নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন স্প্যানিশ এই ফরোয়ার্ড।       এই নিয়ে ৩৩ ম্যাচে ৭১ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে অ্যাটলেট
মেসির আর্জেন্টিনাকে ভালোবাসেন রোনালদোও

মেসির আর্জেন্টিনাকে ভালোবাসেন রোনালদোও

মেসির সঙ্গে রোনালদোর দ্বৈরথ নতুন কিছু নয়। প্রায় এক যুগ ধরেই ব্যালন ডি’অর কিংবা ফিফার বর্ষসেরার পুরস্কার নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিয়েছেন। দুইজনের এই দ্বৈরথে অনেকেই ভাবতেন মেসির দেশ আর্জেন্টিনাকেও হয়তো পছন্দ করেন না সিআরসেভেন। তবে রোনালদো জানালেন ভিন্ন কথা। জানালেন আর্জেন্টিনাকেও ভালোবাসেন তিনি।   সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে লাইভ ভিডিওতে ভক্তদের প্রশ্নের উত্তরে জানান, ‘অনেকেই মনে করেন আমি আর্জেন্টিনাকে পছন্দ করি না। কিন্তু আমি আর্জেন্টিনাকে পছন্দ করি, খুব পছন্দ করি।’           এরপর অনেকেই বলতে শুরু করেন তাহলে মেসির জন্যই হয়তো আর্জেন্টিনাকে ভালোবাসেন রোনালদো। তবে সবার দ্বিধা কাটাতে সাহায্য করেন রোনালদোর বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগেজ। তিনি জানান, ‘আমার বাবা আর্জেন্টাইন। আমার জন্ম হয়েছে বুয়েন্স আইরেসে। বাবা অনেক চেষ্টা করেছিল মাকে আর্জেন্টিনায় স্থায়ী করত
শেষ ওভারের রহস্যজট কাটবে তো মুম্বাইয়ের!

শেষ ওভারের রহস্যজট কাটবে তো মুম্বাইয়ের!

টি-টোয়েন্টি যেন পুরোপুরি থ্রিলার গেম। টানটান উত্তেজনায় ঠাসা, মুহূর্তের মধ্যে রঙ বদলে ফেলার অসাধারণ মোহনীয় ক্ষমতা তার। আইপিএল যেন থ্রিলার গেমের আদর্শভূমি। এর মধ্যে কোনো দল যদি জিততে জিততে একেবারে শেষ ওভারে গিয়ে টানা হারতে থাকে, তখন তাকে কী বলা হবে! নিশ্চিত থ্রিলারের চেয়েও বেশি কিছু।   আইপিএলের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ক্ষেত্রে ঘটছে ঠিক এই ঘটনাই। টানা তিনটি ম্যাচ হেরেছে তারা একেবারে শেষ ওভারে গিয়ে। শেষ ওভারের রহস্যজট যেন কাটছেই না তাদের। আজ নিজেদের মাঠ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স কী পারবে বিরাট কোহলির রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে সেই রহস্যের জট কাটাতে। পাবে কী এবারের আইপিএলের নিজেদের প্রথম জয়ের দেখা!       এবারের আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচেই নিজেদের মাঠ ওয়াংখেড়েতে মোস্তাফিজের দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স মুখোমুখি হয়েছিল মহেন্দ
পাঁচ ম্যাচ আগেই ফ্রেঞ্চ লিগ চ্যাম্পিয়ন পিএসজি

পাঁচ ম্যাচ আগেই ফ্রেঞ্চ লিগ চ্যাম্পিয়ন পিএসজি

জিতলেই চ্যাম্পিয়ন। এমন সমীকরণকে সামনে রেখে ফ্রেঞ্চ লিগের দ্বিতীয় স্থানে থাকা মোনাকোর বিপক্ষে খেলতে নামে পিএসজি। ঘরের মাঠে মোনাকোকে নাস্তানবুদ করে ৭-১ গোলের বিশাল জয়ে ৫ ম্যাচ হাতে রেখেই ফ্রেঞ্চ লিগের চ্যাম্পিয়ন হল প্যারিস সেইন্ট জার্মেই। এর ফলে এক মৌসুম পর আবারও ফ্রেঞ্চ লিগের শিরোপা ঘরে তুললো তারা। শেষ ছয় মৌসুমের ৫টিতেই চ্যাম্পিয়ন প্যারিসের এই দলটি।   মোনাকোর বিপক্ষে ম্যাচের শুরু থেকে চড়াও হয়ে খেলতে থাকে পিএসজি। ম্যাচের ১৪ মিনিটেই লো সেলসোর গোলে এগিয়ে যায় তারা। ডি বক্সের ডান পাশ থেকে দানি আলভেজের বাড়ানো বলে পা ছুইয়ে সেটিকে গোল রূপান্তর করেন আর্জেন্টাইন এই মিডফিল্ডার। ১৭ মিনিটে আবারও পিএসজির গোল। এবার গোলদাতার তালিকায় নাম লেখান উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার এডিনসন কাভানি। লিগে এটি পিএসজির ১০০তম গোল। এই গোলের ফলে ইব্রাহিমোভিচের পিএসজির হয়ে লিগে করা ১১৩ গোলের মাইলফককে স্পর্শ করলেন তিনি। &
২০২২ সালেই ৪৮ দলের বিশ্বকাপ!

২০২২ সালেই ৪৮ দলের বিশ্বকাপ!

২০২৬ সালে ৪৮ দলের বিশ্বকাপ আয়োজন ইতোমধ্যে চূড়ান্ত পর্যায়ে। কেবল আনুষ্ঠানিক ঘোষণা বাকি। এর মাঝেই নতুন খবরে সরগরম ফুটবল অঙ্গন। ২০২২ সালের কাতার থেকেই হয়তো দেখা যেতে পারে ৪৮ দলের বিশ্বকাপ। ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা (ফিফা) এমনটা না চাইলেও ইতোমধ্যেই ৪৮ দলের বিশ্বকাপ আয়োজনের আগ্রহ প্রকাশ করেছে আরব উপসাগরীয় দেশ কাতার।   গত বৃহস্পতিবার কাতারেই ৩২ দলের পরিবর্তে ৪৮ দলের বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল ফেডারেশন আনুষ্ঠানিকভাবে জানায়। এর ঠিক দুইদিন পর কাতারও তাদের সাথে একমত পোষণ করলো ৪৮ দলের বিশ্বকাপ আয়োজনের বিষয়ে। ২০১০ সালে এক ভোটাভুটির মাধ্যমে ২০২২ সালের বিশ্বকাপ আয়োজক দেশ হিসেবে কাতারের নাম ঘোষণা করেছিল ফিফা। এরপর থেকেই স্টেডিয়াম থেকে শুরু একটি বিশ্বকাপ আয়োজন করতে যা যা প্রয়োজন সবকিছুই তৈরি করতে শুরু করে বিশ্বের অন্যতম ধনী দেশটি।       ‘কোন সিদ্ধান্ত
অবশেষে সুযোগ পেলেন গেইল

অবশেষে সুযোগ পেলেন গেইল

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ফেরিওয়ালা বলা হয় ক্যারিবিয়ান দানব ক্রিস গেইলকে। বিশ্বের যে কোন টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে গেইলের মারকাটারি ব্যাটিংয়ের রয়েছে বিশেষ নামডাক। এর ব্যতিক্রম নয় আইপিএলেও। তবুও চলতি মৌসুমের প্রথম দুই ম্যাচ তাকে মাঠে নামায়নি কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। অবশেষে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের রাজাকে মাঠে নামিয়েছে পাঞ্জাব।   আইপিএলে গেইলের অতীত পরিসংখ্যান ঈর্ষণীয়। ১০২ ম্যাচ খেলে ৪১.২০ গড়ে ৩৬২৬ রান করেছেন তিনি। স্ট্রাইকরেট ১৫১.২০ করে। এছাড়া আইপিএলের ইতিহাসের সর্বোচ্চ পাঁচটি সেঞ্চুরি এবং আইপিএল তথা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসের সর্বোচ্চ ১৭৫ রানের ইনিংসও রয়েছে তার নামের পাশে।   তবুও চলতি মৌসুমের আইপিএল নিলামে দলে নেয়নি তার সাবেক দল রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। আগ্রহ দেখায়নি অন্য কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিও। পরে নিলামের বাইরে থেকে গেইলকে দলে ভেড়ায় পাঞ্জাব; কিন্তু
এক মাসের মধ্যেই মাঠে ফিরছেন নেইমার

এক মাসের মধ্যেই মাঠে ফিরছেন নেইমার

কিছুদিন আগেই পিএসজি কোচ জানিয়েছিলেন দ্রুতই মাঠে ফিরবেন নেইমার। তবে এবার ব্রাজিলিয়ান তারকা নিজেই জানিয়ে দিলেন এক মাসের মধ্যেই মাঠে ফিরবেন তিনি।   মাঠে ফেরা নিয়ে টিভি গ্লোবোকে নেইমার জানান, ‘সবকিছু ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে। এখনও এক মাস বাকি আছি। আমি ভালো উন্নতি করছি।’   এদিকে ব্রাজিল জাতীয় দলের চিকিৎসক রদ্রিগো লাসমার নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, ‘নেইমারের ডান গোড়ালির পুনর্বাসনে ধীরে ধীরে হাঁটাও শুরু করেছেন নেইমার। তার চোটের চমৎকার উন্নতি হয়েছে। আগামী ১০ দিনে তার সেরে ওঠার গতি নির্ধারণ করবে কোনো সীমাবদ্ধতা ছাড়াই তার অনুশীলন শুরুর তারিখ।’       এদিকে নেইমারের এই ঘোষণায় পিএসজির চেয়ে বেশি খুশি হয়েছে ব্রাজিল সমর্থকরা। গত ফেব্রুয়ারিতে লিগ ওয়ানের ম্যাচে মার্সেইয়ের বিপক্ষে পায়ের পাতার পঞ্চম মেটাটারসাল ভেঙে যায় নেইমারের। অস্ত্রোপচারের পর এখন পুনর্বাসন প্রক্রি
ইউরোপা লিগের শেষ চারে আর্সেনাল

ইউরোপা লিগের শেষ চারে আর্সেনাল

ইউরোপা লিগের শেষ চার নিশ্চিত করেছে ইংলিশ ক্লাব আর্সেনাল। প্রথম পর্বে নিজেদের মাঠে বড় জয়ের পর ফিরতি লিগে সিএসকেএ মস্কোর সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে দলটি। ফলে দুই লেগ মিলে ৬-৩ ব্যবধানে এগিয়ে সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করেছে ওয়েঙ্গারের শিষ্যরা।   প্রথম পর্বে ৪-১ পিছিয়ে থাকা সিএসকেএ মস্কো নিজেদের মাঠে অঘটনের ইঙ্গিত দিয়েছিল। শুরু থেকেই বলের নিয়ন্ত্রণ ধরে রেখে ম্যাচের ৩৯ মিনিটে গোলের দেখাও পায় দলটি। কিরিল নাবাবকিনের হেড আর্সেনাল গোলরক্ষক ফেরালেও তালুবন্দি করতে পারেননি। ফিরতি বল জালে জড়ান রুশ ফরোয়ার্ড ফিওদর চালোভ।   বিরতি থেকে ফিরে ব্যবধান দ্বিগুণ করে স্বাগতিক দলটি। ম্যাচের ৫০ মিনিটে আলেকসান্দ্র গোলোভিনের দূরপাল্লার শট ঠিকমতো ঠেকাতে ব্যর্থ হন চেক। আলগা বল পেয়ে রুশ ডিফেন্ডার কিরিল নাবাবকিন ব্যবধান দ্বিগুণ করেন।  
পেনাল্টির কল্যাণে সেমিতে রিয়াল মাদ্রিদ

পেনাল্টির কল্যাণে সেমিতে রিয়াল মাদ্রিদ

খেলার তখন ৯৩ মিনিট চলছে। ডি বক্সের ভেতর রোনালদোর হেড থেকে বল যায় ভাস্কুয়েজের কাছে। তাকে পেছন থেকে অতর্কিতভাবে ধাক্কা মেরে ফেলে দিলে পেনাল্টি বাঁশি বাজান রেফারি। আর তাতেই ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে জুভেন্টাস ফুটবলাররা। রেফারির সাথে তর্কে জড়িয়ে নিজের শেষ চ্যাম্পিয়নস লিগে লাল কার্ড দেখেন জুভেন্টাস গোলকিপার বুফন। সেই পেনাল্টি থেকে গোল করে রিয়াল মাদ্রিদকে ঐতিহাসিকভাবে সেমিতে তোলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ম্যাচে ১-৩ গোলে হারলেও দুই লেগ মিলিয়ে ৪-৩ গোলের জয়ের সুবাদে সেমিতে চলে রিয়াল। আগেরদিন ১ম লেগ ১-৪ গোলে হেরেও দ্বিতীয় লেগ ৩-০ গোলে জিতে বার্সেলোনাকে কাঁদিয়ে সেমিতে উঠেছিল ইতালিয়ান ক্লাব রোমা। জুভেন্টাসের সামনেও সুযোগ ছিল এমন কিছু করার কিন্তু তারা ব্যর্থ হলো।   রিয়াল মাদ্রিদের ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে অনেকটা অসম্ভবকে সম্ভব করার মিশনে মাঠে নেমেছিল বুফনের দল। চ্যাম্পিয়নস লিগের অধরা ট্রফি ছোঁয়া
দশ বছর পর চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিতে লিভারপুল

দশ বছর পর চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিতে লিভারপুল

সেমিতে ওঠার জন্য সিটির সামনে একটাই পথ ন্যূনতম ৪ গোল দিয়ে জিততে হবে এবং খাওয়া যাবে না কোনো গোল। এমন কঠিন এবং অসম্ভব সমীকরণকে সঙ্গী করে ঘরের মাঠ ইতিহাদে লিভারপুলের বিপক্ষে মুখোমুখি হয় ম্যান সিটি। প্রথম লেগ ০-৩ গোলে হেরে সেমিতে ওঠার আশা শেষ হয়ে গেলেও সিটির বর্তমান ফর্ম আশা জাগাচ্ছিল তাদের। কিন্তু গার্দিওলার দলকে কাঁদিয়ে দ্বিতীয় লেগ ২-১ গোলে জিতে সেমিতে উঠে গেল ইয়োর্গেন ক্লপের লিভারপুল।   মাত্র দুই মিনিটের মাথাতেই সিটিকে গোল করে এগিয়ে দেন গ্যাব্রিয়েল হেসুস। রহিম স্টার্লিংয়ের ক্রস থেকে লিভারপুলের বিপক্ষে নিজের তৃতীয় গোলটি করেন হেসুস। তখনও সিটির ম্যাচে ফেরার জন্য দরকার ২ গোল। সিটির খেলোয়াড়দের মুহুর্মুহু আক্রমণে কিছুটা খেই হারিয়ে ফেলে লিভারপুল ডিফেন্স। ১৬ মিনিটে ওটামেন্ডিকে বাজেভাবে ফাউল করেন সাদিও মানে। তাতেই দুদলের খেলোয়াড়দের ভেতর উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। গণ্ডগোল বাঁধিয়ে হলুদ কার্ড দেখেন