আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্স

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টো ২০২০ ০৯:১০

আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্স

 

গাইবান্ধা প্রতিনিধি :
আন্তর্জাতিক দূর্যোগ প্রশমন দিবস মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়। দিবসটি উপলক্ষে এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাসে সুশাসন, নিশ্চিত করবে টেকসই উন্নয়ন’।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে গাইবান্ধা, ঢাকা ও বরগুনার দূর্যোগ সহনীয় বাড়ি পেয়েছেন এমন গৃহহনীদের সাথে সম্পৃক্ত হন এবং তাদের সাথে কথা বলেন। এসময় গাইবান্ধার দূর্যোগ সহনীয় বাড়ি প্রাপ্ত সদর উপজেলার মালিবাড়ি ইউনিয়নের কিশামত মালিবাড়ি গ্রামের মো. ইয়াজুল হক, ঢাকার বেদে সম্প্রদায়ের নুরন্নাহার বেদেনী এবং বরগুনার দূর্যোগ মোকাবেলায় নতুন নারী স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে যোগদানকারি সিপিপি দলের তাসপিয়া তালুকদারের অভিব্যক্তি শোনেন। এছাড়া তিনি গাইবান্ধা, ঢাকা ও বরগুনাসহ দেশের ১৭ হাজার ৫টি গৃহহীনদের বাড়ির চাবি হস্তান্তর অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। তার পক্ষে ঢাকার নুরন্নাহার বেদেনীকে চাবি হস্তান্তর করেন দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ড. মো. এনামুর রহমান এমপি। এছাড়া ১৮ হাজার ৯শ’ ৫ জন নারীকে সিপিপি দলের নতুন স্বেচ্ছাসবক হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে দেশের ৮৪ জন স্বেচ্ছাসেবককে পুরস্কৃত করা হয়। তার পক্ষে স্বেচ্ছাসেবক চট্টগ্রামের সবিতা রাণী ও শামছুল আলম বাচ্চু এবং পটুয়াখালীর উম্মে তামিমা বিথিকে পুরস্কৃত করেন দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী।
প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন, পূর্ব প্রস্তুতি গ্রহণের মাধ্যমে এবং সুপরিকল্পিত দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা গড়ে তুলে বর্তমান সরকার কার্যকারিভাবে দূর্যোগ মোকাবেলায় সক্ষম হয়েছেন। এর মাধ্যমে সারা পৃথিবীতে বাংলাদেশ দূর্যোগ মোকাবেলার ক্ষেত্রে অনন্য দৃষ্টান্ত অর্জন করেছে। তিনি বলেন, বন্যা সংক্রান্ত দূর্যোগ মোকাবেলায় নদী ড্রেজিং করে নাব্যতা বাড়ানো, জলাধার নির্মাণ, নদী-নালা এবং খাল খনন করা, পানি ধারণ ক্ষমতা বৃদ্ধির পরিকল্পনা গ্রহণের মাধ্যমে প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষার কার্যকর পরিকল্পনা বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তিনি আরও উল্লেখ করেন, মুজিববর্ষে পরিবেশ সংরক্ষণে সারাদেশে ১ কোটি বৃক্ষরোপনের কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে এবং দূর্যোগ সহনীয় সবুজ বেষ্টনী গড়ে তোলার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, বর্তমানে খাদ্য নিরাপত্তা বিধানে সরকার কৃষি উন্নয়ন, মাছের উৎপাদন বৃদ্ধিসহ নানা পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছে। এছাড়া মুজিববর্ষে এই সরকারের অন্যতম পরিকল্পনা হচ্ছে একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না। প্রতিটি ভুমিহীন গৃহহীন মানুষ যাতে করে একটি দূর্যোগ সহনীয় বাড়ি পায় তা নিশ্চিত করা হবে।
গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি এমপি, অ্যাড. উম্মে কুসুলম স্মৃতি এমপি, জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল মতিন, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহ সারোয়ার কবীর, পৌর মেয়র অ্যাড. শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর মিলন, জেলার সাতটি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক, সাংবাদিক, জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন বিভাগীয় কর্মকর্তারা এছাড়াও সরকার প্রদত্ত দূর্যোগ সহনীয় বাড়ি যারা পেয়েছেন।

এই সংবাদটি 1,228 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •