উইঘুর অভিনেত্রী দিলরাবাকে নিয়ে মেতেছেন চীনা কূটনীতিকেরা - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, বিকাল ৫:২৫, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

উইঘুর অভিনেত্রী দিলরাবাকে নিয়ে মেতেছেন চীনা কূটনীতিকেরা

newsup
প্রকাশিত ডিসেম্বর ৪, ২০২৩
উইঘুর অভিনেত্রী দিলরাবাকে নিয়ে মেতেছেন চীনা কূটনীতিকেরা

অনলাইন ডেস্ক:

ক্রোয়েশিয়ায় চীনের মুসলিম উইঘুর সম্প্রদায়ের অভিনেত্রী দিলরাবা দিলমুরাতের জাতিগত নাচ মুগ্ধ করেছে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক দর্শকদের। অনুষ্ঠানে দিলরাবার নাচ নিয়ে ভূয়সী প্রশংসা করছেন চীনা কূটনীতিকেরাও।

সোমবার গ্লোবাল টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের জিনজিয়াং প্রদেশের এই অভিনেত্রী তাঁর জাতির শক্তিশালী এক প্রতিনিধি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন।

বর্তমানে ‘ডিভাস হিট দ্য রোড’ নামে একটি রিয়্যালিটি শো নিয়ে ক্রোয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন দিলরাবা। গত ৩০ নভেম্বর সেখানে এক অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরা ঐতিহাসিক নৌচলাচল যুগের এক ঐতিহ্যবাহী পাল তোলা কারাকা নৌকায় চড়ে আড্রিয়াটিক সাগরের সৌন্দর্য উপভোগ করেন। অতিথিরা স্থানীয় ইউরোপীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে নৌকাটিতে অনুষ্ঠিত এক ভোজসভায় অংশ নেন। এই ভোজসভায়ই দিলরাবা তাঁর ঐতিহ্যবাহী জাতিগত নাচ পরিবেশন করেন।

অনলাইনে ব্যাপকভাবে প্রচারিত একটি ভিডিও ক্লিপে দেখা গেছে, অনুষ্ঠানের উপস্থাপক দিলরাবাকে তাঁর পরনের পোশাক নিয়ে প্রশ্ন করছেন। পরে দিলরাবা জানান, এটি চীনের জিনজিয়াং প্রদেশের ঐতিহ্যবাহী ‘এটলেস সিল্ক’-এর পোশাক। এক হাজার বছরেরও বেশি সময় ধরে উইঘুর সম্প্রদায়ের মানুষ বিশেষ উপায়ে উৎপাদিত রেশম থেকে এই সিল্ক উৎপাদন করে।

দিলরাবার জাতিগত নাচের একটি ক্লিপও অনলাইনে ভাইরাল হয়ে গেছে। তাঁর ওই ভিডিও ক্লিপটি চীনা কূটনীতিকেরাও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করছেন।

রোববার ক্লিপটি পোস্ট করে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন লিখেছেন, ‘চীনের জিনজিয়াং পোশাক পরে এবং জিনজিয়াং নাচে আলো ছড়াচ্ছে দিলরাবা।’

চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ আমেরিকা অফিস, ক্যারিবিয়ান বিষয়ক বিভাগ, ক্রোয়েশিয়ায় চীনা দূতাবাস, আর্জেন্টিনায় চীনা দূতাবাস সহ আরও বেশ কয়েকটি দূতাবাস এবং ওসাকায় নিযুক্ত চীনা কনসাল জেনারেল জু জিয়ান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অ্যাক্সে দিলরাবার নাচের ক্লিপটি শেয়ার করেছেন।

রিয়্যালিটি শো ‘ডিভাস হিট দ্য রোড’-এর মাধ্যমে ক্রোয়েশিয়ার আগে সৌদি আরবেও পারফর্ম করেছেন দিলরাবা। তাঁর অংশগ্রহণের পর সৌদি আরব থেকে চীনা পর্যটন বিষয়ক অনুসন্ধান ৭৭২ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি পায়।

২৮ দিনব্যাপী ওই রিয়্যালিটি শো মূলত ইউরেশীয় মহাদেশজুড়ে ভ্রমণের একটি প্রক্রিয়া। এটি এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যে সৌদি আরব, ক্রোয়েশিয়া এবং আইসল্যান্ডের মধ্য দিয়ে ভ্রমণ করছে এই শো-এর দলটি। আড্রিয়াটিক সাগরের উপকূলে চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোডের অধীনে নির্মিত বিভিন্ন দৃষ্টিনন্দন প্রকল্প উপভোগ ও জনপ্রিয় করাই এর উদ্দেশ্য।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।