এবার আইসিআর মেশিনে মেডিকেলের উত্তরপত্র মূল্যায়ন করা হবে

প্রকাশিত:শনিবার, ০৭ অক্টো ২০১৭ ০১:১০

এবার আইসিআর মেশিনে মেডিকেলের উত্তরপত্র মূল্যায়ন করা হবে

সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে শুক্রবার। এ পরীক্ষার উত্তরপত্র এবার উন্নত প্রযুক্তিতে মূল্যায়ন ও পুনর্মূল্যায়ন করা হবে। আগের বছরগুলোতে শুধু অপটিক্যাল মার্ক রিকগনিশন (ওএমআর) মেশিনে উত্তরপত্র মূল্যায়ন করা হতো। এই খাতা দেখায় এবার যোগ হচ্ছে অধিকতর প্রযুক্তি। এবার ইন্টেলিজেন্ট ক্যারেক্টার রিকগনিশন (আইসিআর) মেশিনের সাহায্যে খাতা মূল্যায়ন ও পুনর্মূল্যায়ন করা হবে। এই এসিআর মেশিনে ঘণ্টায় সাড়ে ছয় হাজার পৃষ্ঠা স্ক্যানিং করা যায়।

 

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ এ সব তথ্য জানিয়েছেন।

 

শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে জাগো নিউজের সঙ্গে আলাপকালে স্বাস্থ্য মহাপরিচালক বলেন, ‘আমরা প্রমাণ করেছি সদিচ্ছা ও আন্তরিকা থাকলে সম্পূর্ণ বিতর্কহীন পরিবেশে মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ করা সম্ভব। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্দেশনায় ও সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতায় গতবছরের চেয়েও এবার সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়েছে।

 

দেশের ২০ সরকারি মেডিকেল কলেজের ৩৪টি কেন্দ্রে শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ১০০ নম্বরের নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্নপত্রে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৮২ হাজার ৮৫৬জন ছাত্রছাত্রী অংশগ্রহণ করেন।

 

স্বাস্থ্য মহাপরিচালক বলেন, গত বছর পরীক্ষার আগের দিন ঢাকার বাইরের মেডিকেল কলেজের কয়েকটিতে প্রশ্ন পাঠাতে রাত ৮টা বেজে গেলেও এ বছর দুুপুর ১২টার মধ্যেই ঢাকার বাইরের সব মেডিকেল কলেজে প্রশ্নপত্র প্রেরণ করা হয়।

 

তিনি বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব বন্ধ করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা খুবই তৎপর ছিল। এবার বিভিন্ন মেডিকেল কোচিং একমাস আগে থেকেই বন্ধ করে দেয়ায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ছড়ানো বন্ধ হয়। তাছাড়া এবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে শতাধিক সদস্যের পরিদর্শক পাঠিয়ে পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে কি না তা দেখা হয়। তাছাড়া দেশের বিশিষ্ট নাগরিকদের সমন্বয়ে গঠিত মেডিকেল পরীক্ষা ওভারসাইট মনিটরিং কমিটির সদস্যরাও পৃথক টিম গঠন করে বিভিন্ন পরীক্ষার হল পরিদর্শন করেছেন।

 

স্বাস্থ্য মহাপরিচালক আরও জানান, ইতোমধ্যেই ঢাকা ও ঢাকার বাইরের ২০টি মেডিকেল কলেজের মধ্যে ১২টি মেডিকেল কলেজের উত্তরপত্র ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশি প্রহরায় স্বাস্থ্য অধিদফতরে এসে পৌঁছেছে।

 

কলেজগুলো হলো- ঢাকা মেডিকেল, স্যার সলিমুল্লাহ, মুগদা, শহীদ সোহরোওয়ার্দী, ঢাকা ডেন্টাল, গাজীপুর, ফরিদপুর, সৈয়দ নজরুল ইসলাম ,কিশোরাগঞ্জ, কুমিল্লা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী ও বগুড়া। ট্র্যাকিং পদ্ধতিতে প্রতিটি গাড়ির গতিবিধি মনিটরিং করা হচ্ছে। বাকি আটটি মেডিকেল কলেজের পরীক্ষার উত্তরপত্র রাত ১১টার মধ্যে এসে পৌঁছবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

 

এই সংবাদটি 1,227 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •