কুষ্টিয়ায় লিচুর ফলন কম হওয়ায় চাহিদা বেশী : লাভবান কৃষক

প্রকাশিত:বুধবার, ৩০ জুন ২০২১ ০২:০৬

কুষ্টিয়ায় লিচুর ফলন কম হওয়ায় চাহিদা বেশী : লাভবান কৃষক

কুষ্টিয়া :
মধু মাসের সুস্বাদু ফলের মধ্যে অন্যতম রসালো ফল লিচু। বিগত বছলের তুলনায় কুষ্টিয়ায় এবছর লিচুর ফলন কম হওয়ায় চাহিদা বেশী রয়েছে। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে কুষ্টিয়ার লিচু দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ হয়ে থাকে। তবে এবছর বাগানে লিচু কম হওয়ায় প্রতি হাজার লিচু ২৫’শ টাকা দরে বিক্রয় করে বাগান মালিকের পাশাপাশি চাহিদা থাকায় ব্যাপারীরাও লাভবান হচ্ছেন।
কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানাগেছে, চলতি মৌসুমে কুষ্টিয়ায় ২৫১ হেক্টর জমিতে বোম্বাই ও চায়না সহ বিভিন্ন জাতের লিচুর চাষ হয়েছে। যা থেকে ২০০৮ মেট্রিন টন লিচু উৎপাদন হবে। প্রতি হেক্টর জমিতে লিচুর ফলন হচ্ছে ৮ মেট্রিক টন। আর সুস্বাদু ফল হিসেবে কুষ্টিয়ার লিচুর চাহিদাও বেশী। এবছর লিচু বাগানে মুকুল কম হওয়ায় বিগত বছরের তুলনায় লিচুর ফলন কম হয়েছে। তারপরও দাম বেশী হওয়ায় ক্ষতি পুশিয়ে লাভের আশা করছেন বাগান মালিকরা।
দৌলতপুরের চুয়ামল্লিকপাড়া গ্রামের লিচু চাষী রানা হোসেন জানান, ৫বিঘা জমিতে তার লিচু বাগান রয়েছে। বাগানের অধিকাংশ গাছে এবছর লিচুর মুকুল আসেনি। তারপরও যে সকল গাছে লিচু ধরেছে তাতে সে লাভবান না হলেও লোকসানে পড়তে হবেনা। সে বাগান থেকে প্রতি হাজার লিচু আড়াই হাজার টাকা করে ব্যাপারীদের কাছে বিক্রয় করেছে।
লিচুর বাগানে ক্রেতা ও ব্যাপারীরা এখন লিচু ভাঙ্গাতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এবছর বাগানে লিচু কম হওয়ায় চাহিদাও বেশী দামও বেশী বলে জানিয়েছেন দৌলতপুর গ্রামের শহিদুল ইসলাম নামে এক ব্যাপারী।
এদিকে খুচরা বাজারের চেয়ে লিচুর বাগানে দাম কম হওয়ায় বাগানের টাটকা ও সুস্বাদু লিচু ফল কিনতে সাধারণ ক্রেতাদের লিচুর বাগানে ভিড় করতে দেখা গেছে।
ষড় ঋতুর দেশে মধু মাসের সুস্বাদু ফল লিচু শরীরের জন্য যেমন উপকারী তেমনি করোনা প্রতিরোধেও সহায়ক। আর এ লিচু চাষে কৃষকদের সবধরণের সহায়তা দিয়ে থাকে কৃষি বিভাগ বলে জানিয়েছে মিরপুর কৃষি কর্মকর্তা রমেশ চন্দ্র ঘোষ।
অর্থকরী ফল হিসেবে স্বপ্ল সময়ের সুস্বাদু ফল লিচুর চাহিদা বেশী থাকায় এ অঞ্চলে কৃষকরা প্রতি বছরই লিচুর চাষে আগ্রহী হচ্ছেন।

এই সংবাদটি 1,229 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •