তানোরে বানিজ্যিক ভাবে আলু চাষে স্বাবলম্বী শিক্ষিত বেকার যুবকরা

প্রকাশিত:রবিবার, ২৯ নভে ২০২০ ১১:১১

তানোরে বানিজ্যিক ভাবে আলু চাষে স্বাবলম্বী শিক্ষিত বেকার যুবকরা

সাইদ সাজু, তানোর থেকে :
তানোরে আলু’র ফলন ও দাম ভালো পাওয়ায় শিক্ষিত ও বেকার যুবকদের মধ্যে আলু চাষের আগ্রহ বেড়েছে। এবছর বানিজ্যিক ভাবে (প্রজেক্ট আকারে) আলু চাষ করা এসব স্ব-শিক্ষিত থেকে শুরু করে উচ্চ শিক্ষিত যুবকদের অনেকেই এখন প্রতিষ্ঠিত ও স্বাবলম্বী হয়েছেন। ফলে, চাকরীর পেছনে না ছুটে বানিজ্যিক ভাবে আলু চাষের জন্য জমিতে ছুটে যাচ্ছেন শিক্ষিত ও বেকার যুবকসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার সমপৃক্তরাও।
আলু চাষীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, দীর্ঘদিন থেকে আলু চাষ করে আসা চাষীরা এবছর ফলন ও দাম ভালো পাওয়ায় অনেকেই এখন কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। ফলে, শিক্ষিত ও বেকার যুবকরাও এবছর বানিজ্যিক ভাবে আলু চাষের আগ্রহী হয়ে উঠেছেন। এসব শিক্ষিত বেকার যুবকদের অনেকেই এবছর ব্যাপক আগ্রহ নিয়ে বানিজ্যিক ভাবে আলু চাষ করছেন।
আলু চাষীরা বলছেন, বানিজ্যিক ভাবে আলু চাষের ৩মাসের পরিশ্রমে অনেকেই এখন কোটি টাকার মালিক। কম সময়ে বেশী লাভ হওয়া স্বাধীন ও কৃষি উৎপাদনশীল মহতী এই পেশায় নাম লিখিয়েছেন কৃষক, শ্রমিক, শিক্ষক, শিক্ষিত বেকার যুবক, চাকুরীজীবিসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ। পেশা দারিত্ব বজায় রেখে আলু চাষ করা সম্ভব হওয়ায় আলু চাষে সমপৃক্ত হচ্ছেন তারা।
তানোর উপজেলা ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি দেলোয়য়ার হোসেন বলেন, ছোট বেলা থেকেই ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সমপৃক্ত রয়েছি। ২০০০সালে (বিএ) ডিগ্রী পাস করে চাকুরী না পাওয়ায় তানোর থানা মোড়ে মোবাইলের ব্যবসায়ী করে আসছি। কিন্তু দীর্ঘদিনেও তেমন কিছুই করতে পারিনি। রাজনীতি ও ব্যবসার পাশাপাশি আমার এক বন্ধুর পরামর্শে গত বছর ১০ বিঘা জমিতে আলু চাষ করে বেশ লাভবান হয়েছি। এবছর ১৫বিঘা জমিতে আলু চাষ করছি।
তিনি বলেন, বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার, কৃষিতে ব্যাপক ভুর্তুকি দেয়ার কারনে কৃষকরা চাষাবাদে হওয়ায় গ্রামীন কৃষকদের অর্থনৈতিক অবস্থার পরিবর্তন ঘটেছে। চাকুরীর চেয়ে এখন চাষাবাদ করেই সাবলম্বী হওয়া সম্ভব বলেও জানান তিনি। তিনি শিক্ষিত বেকার যুবকদের কৃষি কাজে সম্পৃক্ত হওয়ার আহবান জানান।
তানোর উপজেলা কৃষি কর্তকর্তা শামিমুল ইসলাম বলেন, নতুন নতুন চাষীদের চাষাবাদে আগ্রহী করে তুলতে সরকার ব্যাপক ভাবে ভুর্তুকি দিচ্ছেন। তিনি বলেন কৃষকসহ আলু চাষীদের জন্য কৃষি অফিস থেকে সকল প্রকার সহায়তার পাশাপাশি মহযোগীতা করা হচ্ছে। শিক্ষিত বেকার যুবকরা কৃষি কাজে সম্পৃক্ত হলে কৃষিতে উন্নয়নের পাশাপাশি আধুনিকায়নের প্রয়াস ঘটবে। তিনি সকলকে সাধ্যমত যার যেখানে যা আছে তাই নিয়েই কৃষিতে সম্পৃক্ত হওয়ার আহবান জানান তিনি।

এই সংবাদটি 1,235 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •