• ১৯ জানুয়ারি, ২০২২ , ৫ মাঘ, ১৪২৮ , ১৫ জমাদিউস সানি, ১৪৪৩

নতুন বছরের শুরুতেই বিপাকে যুক্তরাষ্ট্রেরবিভিন্ন অঙ্গরাজ্য

admin
প্রকাশিত জানুয়ারি ১১, ২০২২
নতুন বছরের শুরুতেই বিপাকে যুক্তরাষ্ট্রেরবিভিন্ন অঙ্গরাজ্য

নিউজ ডেস্কঃ 

নতুন বছরের শুরুতেই বিপাকে যুক্তরাষ্ট্র। ২০১৯ সালের পর নতুন বছরের প্রথম সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্য-আটলান্টিকে সবচেয়ে বড় তুষারঝড়টি শুরু হয়। দেশটির মেরিল্যান্ড, ডেলাওয়ার এবং দক্ষিণ নিউ জার্সির কিছু অংশে তীব্র তুষারপাত হয়েছে। ঘটেছে বেশ কয়েকটি দূর্ঘটনার ঘটনাও। রাস্তা ঘাটে গাড়িতে আটকে থাকে হাজারো মানুষ। নিউ জার্সির গভর্নর ফিল মারফি ঝড়টিকে চার বছরের মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য তুষারপাতের ঘটনা বলে অভিহিত করেছেন।

চলতি বছরের প্রথম মাসেই তুষারপাতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের জনজীবন। বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে শুরু হয় তুষারপাত । এতে নিউ ইয়র্কসহ পার্শ্ববর্তী বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে প্রায় ১০ থেকে ১২ ইঞ্চির বেশি রাস্তাঘাট বরফে তলিয়ে গেছে। দশ ঘণ্টার টানা তুষারপাতে অন্তত শতাধিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে। রাস্তায় আটকে আছে যানবাহন, বন্ধ রয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও অফিস। পরিবর্তন করা হয়েছে বিমানের সময়সূচি।

চলতি বছরে এটাই প্রথম বড় তুষারপাত বলে জানায় স্থানীয়রা জানান। ভয়াবহ এই তুষারপাতের পূর্বাভাসের পরই বিভিন্ন নগরের মেয়ররা নানা দিক নির্দেশনা জারি করেন।যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি রাজ্যের অর্ধেকেরও বেশি অঙ্গরাজ্যে তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নিচে নেমে গেছে। তুষারপাত চলাকালে তাপমাত্রা ছিলো অনেক কম। তবে বাতাসের কারণে বেশি ঠাণ্ডা অনুভূত হয়।

অনিয়ন্ত্রিত গাড়ির চাপায় মারা গেছে ২ জন। নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যে ৩০ এবং মিশিগান অঙ্গরাজ্যে ৪০টিরও বেশি গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। আর, নিউজার্সি অঙ্গরাজ্যে কয়েকটি দুর্ঘটনায় বেশ কয়েকটি গাড়ি বিধ্বস্ত হয়। অন্যদিকে, গত ৫ জানুয়ারি উত্তর ও মধ্য আমেরিকার অরিগন থেকে নিউইয়র্কের ৩২টি অঞ্চলে ২টি তুষারঝড়ের পূর্বাভাস দেয় জাতীয় আবহাওয়া বিভাগ।

ঝড় চলাকালীন ভারী তুষারপাত, তাপমাত্রার নিম্নচাপ এবং প্রবল বায়ুপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে বলে সতর্কতা জারি করা হয়েছিল। এসব অঞ্চলে ৮ কোটির বেশি মানুষের বাস। নিউ জার্সির গভর্নর ফিল মারফি দক্ষিণের পাঁচটি কাউন্টিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। তিনি ঝড়টিকে চার বছরের মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য তুষারপাতের ঘটনা বলে অভিহিত করেছেন।

ভার্জিনিয়ার একটি ট্রান্সপোর্টেশন বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে,একটি ট্রেলার ও ট্রাক্টরের সংঘর্ষে এক হাইওয়ের দুই দিকই বন্ধ হয়ে যায়। দুর্ঘটনা কবলিত হয় আরও চারটি যানবাহন। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। রাজ্যের ফ্রেডরিকবার্গ শহরে এই দুর্ঘটনা ঘটে। ফলে হাইওয়েটিতে ৫০ কিলোমিটার জ্যাম লেগে যায়। রাস্তায় গাড়িতেই আটকে যায় হাজারও মানুষ। সে সময় তীব্র তুষারপাত চলছিল। প্রতিকূল এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

এই সংবাদটি 1,242 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •