নাশকতার এক মামলায় বিএনপি-জামায়াতের ৯৩ নেতা-কর্মীর কারাদণ্ড - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, রাত ১২:০১, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

নাশকতার এক মামলায় বিএনপি-জামায়াতের ৯৩ নেতা-কর্মীর কারাদণ্ড

newsup
প্রকাশিত ডিসেম্বর ২১, ২০২৩
নাশকতার এক মামলায় বিএনপি-জামায়াতের ৯৩ নেতা-কর্মীর কারাদণ্ড

জাতীয় ডেস্ক:

রাজধানীর তুরাগ থানায় দায়ের করা নাশকতার এক মামলায় বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠন এবং জামায়াতের ৯৩ নেতা কর্মীকে আড়াই বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শেখ সাদী এই রায় দেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন তুরাগ থানা ছাত্রদলের সভাপতি মো. আলমাস, তুরাগ থানা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম দলের সাংগঠনিক সম্পাদক ইদ্রিস আলী, উত্তরা পশ্চিম থানা বিএনপির সভাপতি কুদরত-ই-এলাহী লিটন, তুরাগ থানা বিএনপির প্রচার সম্পাদক কামাল হোসেন, জামায়াতে ইসলামী কর্মী নুরুল ইসলাম, সুরুজ মিয়া, বোরহান উদ্দিন, জামায়ত নেতা বশির, আমির, আব্দুর রশিদ, আলম মিয়া, মো. মোজাম্মেল, মো. দুলাল মিয়া, কফিল উদ্দিন খাজা, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা জামির আলি, তুরাগ থানা যুবদলের সভাপতি হারুন অর রশিদ খোকন।

রায় ঘোষণার সময় সব আসামি পলাতক থাকায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। তারা গ্রেপ্তার হওয়ার পর অথবা আদালতে আত্মসমর্পণের পর দন্ড কার্যকর হবে বলে রায় উল্লেখ করা হয়েছে।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর তুরাগ থানা বউর চৌরাস্তায় বিএনপি জামায়াত নেতা-কর্মীরা নাশকতার উদ্দেশ্যে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। সেখানে পুলিশ উপস্থিত হলে তাদের ওপর হামলা করে সরকারি কর্তব্য কাজে বাধার সৃষ্টি করে।

এ ঘটনায় তুরাগ থানায় ওইদিনই ১১৮ জন বিএনপি-জামায়াত নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

২০১৯ সালের ২৫ জুলাই পুলিশ তদন্ত শেষে ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে। সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত প্রত্যেককে কারাদন্ডে দণ্ডিত করেন। আদালতের বেঞ্চ সহকারী ইমরান হোসেন রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।