• ২১ জানুয়ারি, ২০২২ , ৭ মাঘ, ১৪২৮ , ১৭ জমাদিউস সানি, ১৪৪৩

নিউইয়র্কে জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশি বিজনেস এসোসিয়েশন অব এনওয়াই-জেবিবিএ’র নির্বাচনে ‘গিয়াস-তারেক’ পরিষদ পূর্ণ প্যানেলে বিজয়ী

newsup
প্রকাশিত জানুয়ারি ১১, ২০২২
নিউইয়র্কে জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশি বিজনেস এসোসিয়েশন অব এনওয়াই-জেবিবিএ’র নির্বাচনে ‘গিয়াস-তারেক’ পরিষদ পূর্ণ প্যানেলে বিজয়ী

নিউজ ডেস্কঃ যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের সর্ববৃহৎ সংগঠন ‘জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশি বিজনেস এসোসিয়েশন অব এনওয়াই’ (জেবিবিএ)’র নির্বাচনে ‘গিয়াস-তারেক’ পরিষদ পূর্ণ প্যানেলে বিজয়ী হয়েছে। গত ৯ জানুয়ারি রোববার উৎসব ও উত্তেজনা মুখর পরিবেশে নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসের বাংলাদেশ প্লাজা মিলনায়তনে দুই বছর মেয়াদী এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে গিয়াস আহমেদ সভাপতি পদে ভোট পেয়েছেন ২২৪ এবং তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বি মাহবুবুর রহমান টুকু পেয়েছেন ১৬০ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে মোহাম্মদ তারেক এইচ খান পেয়েছেন ১৯৫ ভোট এবং তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বি মুনির হোসেন পেয়েছেন ১৭৫ ভোট। খবর ইউএসএনিউজঅনলাইন.কম’র।

জেবিবিএ’র ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ এ বার ভূইয়া এবং নির্বাচন কমিশনার বেলায়েত হোসেন নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন। এসময় নির্বাচন কমিশনার আবুহেলেন হোসেন সহ জেবিবিএ’র উপদেষ্টা, প্রতিদ্বন্দ্বি দুই প্যানেলের প্রার্থী ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ এ বার ভূইয়া ইউএসএনিউজঅনলাইন.কমকে জানান, নির্বাচনে জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশী বিজনেস এসোসিয়েশনের কার্যকরী কমিটির ১৫টি পদে দুটো প্যানেলে সর্বমোট ৩০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এ নির্বাচনে সর্বমোট ৪৫০ জন ভোটারের মধ্যে ৩৮৯ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এদিন সকাল প্রায় পৌনে ১২ টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত একটানা মেশিনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ভোট গ্রহণ শেষে এদিন রাত প্রায় ১০টায় নির্বাচন কমিশন নির্বাচনের বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা করেন। নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী ১৫ আসনে ‘গিয়াস-তারেক’ প্যানেলের বিজয়ীরা হলেন: সভাপতি গিয়াস

আহমেদ, সহ সভাপতি মোল্লা এম এ মাসুদ, সহ সভাপতি মোহাম্মদ হাসান জিলানী, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ তারেক এইচ খান, সহ সাধারণ সম্পাদক এমডি মফিজুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আতিকুল ইসলাম জাকির, কোষাধক্ষ এস এম আবুল হাসান, দপ্তর সম্পাদক এমডি জি রহমান (আকাশ রহমান), সাংস্কৃতিক সম্পাদক জাফর উল্লাহ মিলন, প্রচার সম্পাদক বেলাল আহমদ এবং কর্যকরী সদস্য রকি আলিয়ান, ডা. বর্ণালী হাসান এমডি, খালেদ আকতার, আব্দুল আলিম এবং এস কিউ আলম।

অপরদিকে, জেবিবিএ’র ‘টুকু -মুনি’র প্যানেলের বিজিত প্রার্থীরা হলেন: সভাপতি এমডি মাহবুবুর রহমান টুকু, সহ-সভাপতি সুলতান আহমেদ ও মোহাম্মদ সোলায়মান আলী, সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান, সহ সাধারণ সম্পাদক এমডি এল ফারুক, সাংগঠনিক সম্পাদক এমডি দেলওয়ার হোসেইন, কোষাধ্যক্ষ এমডি এস হোসেন, দপ্তর সম্পাদক রাম কে সাহা (অপু), প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ শাহিন ভূঁইয়া, কালচারাল সম্পাদক শেখ এইচ আলী এবং নির্বাহী সদস্য শামীম মনির, নজরুল ইসলাম মিয়া, জহিরুল ইসলাম জয়, মাসুদ আহমেদ এবং আব্দুল হাই প্রমুখ।
ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ এ বার ভূইয়া সুষ্ঠু ও সুন্দর নির্বাচন পরিচালনায় সহযোগিতার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান।

নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর নব নির্বাচিত সভাপতি গিয়াস আহমেদ এবং সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ তারেক এইচ খান প্রার্থী, ভোটার, নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান। এসময় তারা সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করে জেবিবিএর উন্নয়নে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

নব নির্বাচিত সভাপতি সভাপতি গিয়াস আহমেদ নিষ্ঠার সঙ্গে অর্পিত দায়িত্ব পালনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করে বলেন, সকলকে সাথে নিয়ে প্রবাসী ব্যবসায়ীদের যেকোনো প্রয়োজনে সংগঠনের পক্ষ থেকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার প্রয়াস থাকবে সবসময়। তিনি সুষ্ঠু ও সুন্দর ভাবে নির্বাচন পরিচালনার জন্য নির্বাচন কমিশন এবং তাদের নির্বাচিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

নব নির্বাচিত সভাপতি মূলধারার রাজনীতিক এবং বিএনপি নেতা গিয়াস আহমেদ বলেন, ৭৩ ও ৭৪ স্ট্রিটসহ আশপাশে গার্বেজ ক্যান নেই। বিভিন্ন স্থানে গার্বেজ স্তূপ হয়ে থাকে। জ্যাকসন হাইটসকে গার্বেজমুক্ত করতে জেবিবিএর পোশাকসহ অন্তত: একজন ক্লিনার নিয়োগ করবো। সপ্তাহে অন্তত: একদিন ক্যান অপসারণের ব্যবস্থা নেবো। জেবিবিএর পোশাকে অন্তত: দু’জন নিরাপত্তা রক্ষী নিয়োগ দেব। তিনি বলেন, জেবিবিএ’র সদস্যদের গ্রেফতারের আগে অবশ্যই জেবিবিএকে ইনফরম করতে হবে। অহেতুক কাউকে হয়রানি/হেনস্তা করা যাবে না।
গিয়াস আহমেদ বলেন, আমরা জেবিবিএর জন্য স্থায়ী একটি অফিস নেব। কংগ্রেসম্যান, স্টেট এবং সিটি প্রশাসনের সাথে বিদ্যমান সম্পর্ককে জেবিবিএর স্বার্থে কাজে লাগাবো। জেবিবিএর মত সংগঠনের জন্যে ফেডারেল, স্টেট ও সিটিতে যেসব সুযোগ-সুবিধা রয়েছে, সে সব সুবিধা নিয়ে জেবিবিএকে শক্তিশালী একটি সংস্থায় পরিণত করতে প্রচেষ্টা চালাব। গিয়াস আহমেদ আরো বললেন, জেবিবিএর কোন সদস্য মারা গেলে মৃত ব্যক্তির সৎকারের জন্যে তাৎক্ষণিকভাবে ১০ হাজার ডলার প্রদান করা হবে। এরপর মৃতব্যক্তির পরিবারের প্রয়োজন হলে অর্থ সহায়তার স্থায়ী একটি ব্যবস্থা করবো।

নব-নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ তারেক এইচ খান বলেন, জ্যাকসন হাইটসের ব্যবসায়ীদের জন্য কাজ করবো। নির্বাচনে আমরা যেসব ওয়াদা করেছি সেসব অক্ষরে অক্ষরে পালন করবো ইনশাল্লাহ।

এদিকে নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণার পর গিয়াস-তারেক প্যানেল জ্যাকসন হাইটসে বিজয় মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করে।

উল্লেখ্য, জেবিবিএ’র নির্বাচন কমিশনে ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেছেন মোহাম্মদ এ বার ভূইয়া। তার সাথে কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন জাফর মিতা, আবুহেলেন হোসেন ও বেলায়েত হোসেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার আলাউদ্দিন ভুলু ব্যক্তিগত কারণে বাংলাদেশে অবস্থান করায় ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন মোহাম্মদ এ বার ভূইয়া।

এই সংবাদটি 1,231 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •