প্রবাসীদের উন্নত সেবা দিতে দূতাবাসের অঙ্গীকার

প্রকাশিত:শুক্রবার, ২৭ নভে ২০২০ ১২:১১

প্রবাসীদের উন্নত সেবা দিতে দূতাবাসের অঙ্গীকার

মালয়েশিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশিদের উন্নত ও আধুনিক উপায়ে সেবা দিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ দূতাবাস। মঙ্গলবার বেলা ১১টায় দূতাবাসের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব অব মালয়েশিয়ার নেতাদের সঙ্গে আলোচনাকালে মিশনের ডেপুটি হাইকমিশনার বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খাস্তগীর এসব বলেন।

এছাড়া দূতাবাসের সবাইকে আরও অধিক শ্রম নিয়োজন করে সহজে ও দ্রুত প্রবাসীদের সব সেবা প্রদানের জন্য নির্দেশ প্রদান করেছেন বলেও সাংবাদিক নেতাদের জানান ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার।

 

ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার বলেন, রিক্যালিব্রেশন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের অন্যতম পূর্বশর্ত হল ন্যূনতম ১৮ মাসের মেয়াদ সম্বলিত পাসপোর্ট। এ কর্মসূচিতে অংশগহণ করতে ইচ্ছুক এবং উপযুক্ত বাংলাদেশিদের শেষ সময়ের  তাড়াহুড়ো  করে পাসপোর্টের আবেদন না করে আবেদন ডাকযোগে হাইকমিশনে প্রেরণ করার প্রক্রিয়া অনুসরণ করার জন্য অনুরোধ করেছেন। করোনা পরিস্থিতিতে মালয়েশিয়া সরকারের নিয়মকানুনের মধ্যে দূতাবাস ডাকযোগে পাসপোর্ট আবেদন গ্রহণ, অনলাইনে ডেলিভারি স্লিপ নং পাওয়া এবং অনলাইনে পূর্ব এপয়েন্টমেন্ট নিয়ে পাসপোর্ট গ্রহণের নিয়ম চালু করেছে; যা ইতোমধ্যে সাধারণ বাংলাদেশিদের প্রশংসা কুড়িয়েছে।

তিনি বলেন, মালয়েশিয়ায় দক্ষ, পরিশ্রমী ও আন্তরিক হিসেবে সুনাম কুড়ানো বাংলাদেশি কর্মী ভাইদের জন্য এই বৈধতার সুবিধা সংক্রান্ত সেবা ও তথ্য প্রদান করবে দূতাবাস এজন্য নিয়মিত মনিটর করার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। একইভাবে সম্মানিত প্রবাসীদের কাছ থেকে প্রাপ্ত ফিডব্যাক অনেক কাজে দেবে উল্লেখ করে তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, অন্যান্য ক্ষেত্রে যেসব বিজ্ঞ দক্ষ এবং সফল ব্যক্তিত্ব আছেন তারা উপযুক্ত পরামর্শ দেবেন এবং পাশের প্রবাসীর খোঁজখবর রাখবেন। রিক্যালিব্রেশন সম্পর্কে হাইকমিশনের গাইডলাইন মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- কাউন্সিলর শ্রম মো. জহিরুল ইসলাম, কাউন্সিলর (কন্স্যুলার) মো. মাসুদ হোসাইন, প্রথম সচিব (রাজনৈতিক) রুহুল আমিন।
আলোচনায় বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব অব মালয়েশিয়া সাংবাদিক নেতারা প্রবাসীদের চলমান পরিস্থিতি সব সমস্যা তুলে ধরেন ডেপুটি হাইকমিশনারের কাছে। এ সময় একটি স্মারকলিপিও প্রদান করা হয় প্রবাসীদের পক্ষ থেকে। সেখানে উপস্থিত ছিলেন- প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি আহমাদুল কবির, সাধারণ সম্পাদক বশির আহমেদ ফারুক, জহিরুল ইসলাম হিরণ, মো. জাকির হোসেন, আশরাফুল মামুন, শেখ আরিফুজ্জামান, মোহাম্মদ আলী, মনিরুজ্জামান, মো. আরিফুল ইসলাম, এমএ আবির  ও মেহেদী  হাসান।

এই সংবাদটি 1,228 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •