ফেব্রয়ারিতে হচ্ছে ঢাবি ছাত্রলীগের হল কমিটি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ২৩ জানু ২০২০ ০১:০১

ফেব্রয়ারিতে হচ্ছে ঢাবি ছাত্রলীগের হল কমিটি

দীর্ঘ দেড় বছর পর হতে যাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের হল কমিটি। আগামী ফেব্রয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে সম্মেলন দেয়ার কথা রয়েছে। এর পরপরই ঘোষণা করা হবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রধানতম ইউনিট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের হলগুলোর কমিটি। ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ইত্তেফাকের সাথে আলাপকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস বলেন, হল ছাত্রলীগের কমিটি করার জন্য আমরা ইতোমধ্যে উদ্যোগ নিয়েছি। আগামী ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর আগেই এই কমিটি দিতে পারবো বলে আশা করছি। এর আগেই হলগুলোর সম্মেলনও করা হবে বলে জানান তিনি। তবে তার আগে হল কমিটি করার কথা বলছেন ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন।

 

সাদ্দাম হোসেন বলেন, ফেব্রুয়ারির প্রথম বা দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে হল সম্মেলন দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। এরপরপরই যোগ্য নেতৃত্ব দেখে হল কমিটি ঘোষণা করা হবে। হল কমিটি দেয়ার প্রস্তুতির বিষয়ে তারা বলছেন, আমরা ইতোমধ্যে নেতৃত্ব খোঁজা শুরু করে দিয়েছি। একবিংশ শতাব্দির চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে পারে এমন নেতৃত্বই বাছাই করব আমরা। হলের সকল ক্লাব ও সহশিক্ষা কার্যক্রমের সাথে যাদের সম্পৃক্ততা, যারা শিক্ষার্থী বান্ধব ও সকল প্রকার বিতর্কের ঊর্দ্ধে তাদেরকেই বাছাই করব আমরা।

 

ছাত্রলীগের একাধিক নেতা বলছেন, এর আগে হল কমিটি করার ক্ষেত্রে কিছুটা সময় নেয়া হতো। তবে অন্যান্যবারের তুলনায় এবার আগে হল কমিটি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতৃবৃন্দ। তবে গত সেপ্টেম্বরে দুর্নীতির অভিযোগে ছাত্রলীগের সভাপতি রেজোওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানীর অব্যাহতির পর নতুন নেতৃত্ব আসায় সেখানে একটা সমন্বয়হীনতার সৃষ্টি হয়েছিল। সমন্বয়হীনতা ফিরিয়ে আনতে সময় নেয় ছাত্রলীগের বর্তমান নেতৃবৃন্দ। তবে ২০১৯ সালের ৩১ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ কমিটির এক বছর পূর্ণ হওয়ার সাথেই ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী মেয়াদ শেষ হয়েছে কমিটির। তবে এই কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই বিশ্ববিদ্যালয় শাখার কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হলেও আটকা পড়ে হল কমিটি। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সাংগঠনিক জেলার মর্যাদা পায়। আর জেলা শাখার মেয়াদ এক বছর। সে হিসেবে গত বছরের ৩১ জুলাই শেষ হয়েছে বর্তমান কমিটির মেয়াদ। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের ১০ (খ) ধারায় বলা হয়েছে, ‘জেলা শাখার কার্যকাল এক বছর। জেলা শাখাকে উপরিউক্ত সময়ের মধ্যে নির্বাচিত কর্মকর্তাদের হাতে দায়িত্বভার বুঝিয়ে দিতে হবে। বিশেষ পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের অনুমোদনক্রমে ৯০ দিন সময় বৃদ্ধি করা যাবে। এই সময়ের মধ্যে সম্মেলন না হলে জেলা কমিটি বিলুপ্ত বলে গণ্য হবে।’ গঠনতান্ত্রিক বাধ্যবাধকতা থাকলেও নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে হল সম্মেলন ও হল কমিটি দিতে পারেনি ঢাবি ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক। এর আগে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ছাত্রলীগকে হল কমিটি করার নির্দেশনা প্রদান করেন। এর পরপরই ফেব্রুয়ারি মাসেই কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হল কমিটি গঠন করার কথা বলেন।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, আমরা হল সম্মেলন করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ফেব্রুয়ারির ৭ থেকে ১৫ তারিখের মধ্যে আমরা সম্মেলনের তারিখ দেবো। সম্মেলনের পরপরই কমিটি ঘোষণা করা হবে।

এই সংবাদটি 1,225 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •