বাঁশের টারই ভরসা পানিবন্দি মানুষের

প্রকাশিত:রবিবার, ২৬ জুলা ২০২০ ১১:০৭

বাঁশের টারই ভরসা পানিবন্দি মানুষের

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) :
কুড়িগ্রামের উলিপুরে তৃতীয় দফা বন্যা কবলিত এলাকার গ্রামীণ সড়কগুলো তলিয়ে থাকায় চরম দূর্ভোগে পড়েছে মানুষজন। বন্যার পানির তোড়ে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ, রাস্তা-ঘাট, ঘর-বাড়ি, স্কুল, কমিউনিটি ক্লিনিক, পুকুর-জলাশয়, বীজতলা, ও রবি শষ্যর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। সব মিলে এসব এলাকার প্রায় লক্ষাধিক পানিবন্দি মানুষ দুর্বিসহ জীবন-যাপন করছেন। গত ১ মাস ধরে বন্যা কবলিত অনেক এলাকার মানুষ যাতায়াতের জন্য বিকল্প হিসেবে বাঁশের তৈরি টার বেঁধে ঝুঁকি নিয়েই পারাপার করছেন।
এদিকে, উপজেলা প্রকৌশল বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বন্যার পানিতে তলিয়ে থাকা উপজেলার ২৮ কিলোমিটার পাঁকা সড়ক ও ১২টি ব্রিজ-কালভার্টসহ অসংখ্য গ্রামীণ কাঁচা রাস্তা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এতে প্রায় ১০ থেকে ১২ কোটির ক্ষতি সাধিত হয়েছে।
শনিবার বিকেলে উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের রামরামপুর গ্রামের গিয়ে দেখা যায়, ওই গ্রামের শতাধিক পরিবারের একমাত্র যাতায়াতের কাঁচা রাস্তাটি দীর্ঘদিন ধরে বন্যার পানিতে তলিয়ে আছে। ফলে গ্রামের মানুষজন ব্যক্তিগত উদ্যোগে বাঁশের টার তৈরি করে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন। এসময় কথা হয় ওই গ্রামের আব্দুল মজিদ ,বাবুল মিয়া, আকলিমা, শিক্ষার্থী রোকসানা খাতুনসহ অনেকের সাথে কথা হলে তারা জানান, ১ মাস ধরে পানিবন্দি অবস্থায় আছি। তাই কোন রকমে চলাচলের জন্য বাঁশের টার তৈরি করে ঝুঁকি নিয়েই চলাচল করছি।

এই সংবাদটি 1,244 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •