মহাদেবপুর করোনা সচেতনতায় মোটরসাইকেল র‌্যালি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ২৫ মার্চ ২০২১ ০৯:০৩

মহাদেবপুর করোনা সচেতনতায় মোটরসাইকেল র‌্যালি

আমিনুর রহমান খোকন মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি:
কোভিড-১৯ মোকাবিলায় মহাদেবপুর থানা পুলিশের উদ্যোগে বিশাল মোটরসাইকেল র‌্যালির আয়োজন করা হয়। মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৩টায় থানা চত্ত্বর থেকে র‌্যালিটি বের হয়ে উপজেলা সদরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে মহাদেবপুর-নওগাঁ আঞ্চলিক সড়কের ২ কিলোমিটার দূরে আখেড়া পর্যন্ত এবং সেখান থেকে ফিরে মহাদেবপুর-নজিপুর আঞ্চলিক সড়কের ২ কিলোমিটার দূরে ব্র্যাক মোড় পর্যন্ত গিয়ে আবার বাসস্ট্যান্ডে ফিরে আসে। সেখানে পুলিশ সদস্যরা মানববন্ধনে মিলিত হন।
মহাদেবপুর থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ এতে বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, করোনাকালে পুলিশ সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করে সাধারণ মানুষের সেবা দিয়ে আসছে। তারা করোনা আক্রান্তদের সেবা দিয়েছেন, খাবার দিয়েছেন, ওষুধ দিয়েছেন। কেউ মারা গেলে আত্মীয়রা কবর দিতে দেয়নি। পুলিশ তাদের সৎকার করেছে। করোনায় অকুতোভয় কাজ করতে গিয়ে পুলিশের অনেক গর্বিত সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ দিয়েছেন। তিনি বলেন, সারা পৃথিবীতে করোনা আবার মহামারি আকারে দেখা দিচ্ছে। সুতরাং এ থেকে বাঁচতে আমাদেরকে সচেতনভাবে মাস্ক ব্যবহার, হাত ধোয়া, পরিস্কার থাকা ছাড়া আর কোন উপায় নেই।
পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত মানুষের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করেন। র‌্যালি চলাকালিন থানার পিকআপ ভ্যানে মাইক টাঙ্গিয়ে করোনা বিষয়ে নানান সচেতনতামূলক স্লোক মাইকিং করেন এসআই আবু রায়হান আলম সরদার। থানার ওসির নেতৃত্বে অন্যদের মধ্যে ইন্সপেক্টর (তদন্ত) এ কে আজাদ, এসআই এমদাদ, এসআই খালেক, এসআই সাইফুল, এসআই শামীম, এসআই জাহিদ, এসআই শামির, এসআই শাহজাহান, এসআই জয় দাস, এএসআই মনোয়ারা, এএসআই মনিরসহ থানার ৬০ জন পুলিশ সদস্য র‌্যালিতে অংশ নেন। র‌্যালিটি দেখতে রাস্তার দুধারে মানুষ সমবেত হয়। মাইকিং শুনে অনেকেই পকেটে রাখা মাস্ক বের করে মুখে লাগান।
পুলিশের র‌্যালিতে মহাদেবপুরে কর্মরত সাংবাদিকদের মধ্যে কিউ, এম, সাঈদ টিটো, বরুণ মজুমদার, আমিনুর রহমান খোকন, কাজী সামছুজ্জোহা মিলন, ইউসুফ আলী সুমন, সোহেল রানা, সাখাওয়াত হোসেন, আক্কাস আলী, মাহবুব হোসেন, আইনুল ইসলাম, গৌতম কুমার মহন্ত, মোখলেছুর রহমান প্রমুখও অংশ নেন।

এই সংবাদটি 1,230 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •