মানবিক বিপর্যয়ের হুমকিতে ১০ দেশ

প্রকাশিত:বুধবার, ২৬ ডিসে ২০১৮ ১১:১২

মানবিক বিপর্যয়ের হুমকিতে ১০ দেশ

চলতি বছর হারিয়ে যাওয়ার দ্বারপ্রান্তে। আসছে নতুন একটি বছর, তবে সেই নতুন বছর সকলের জন্য শুভ নয়। ২০১৯ সালে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে বিরাজ করবে ভয়ানক মানবিক বিপর্যয়। দ্য ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটি (আইআরসি) সেই দেশগুলোর মধ্যে প্রথম দশটি দেশের তালিকা প্রণয়ন করেছে। যার মধ্যে রয়েছে- ইয়েমেন, ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো, সাউথ সুদান ইত্যাদি। যুদ্ধ, দুর্ভিক্ষ এবং অন্যান্য বিপর্যয়ের কারণে ২০১৯ সাল বিশ্বব্যাপী লাখ লাখ মানুষের জন্য আরেকটি কঠিন বছর হতে যাচ্ছে।

আইআরসি এর জরুরি প্রতিক্রিয়া বিশেষজ্ঞরা সাতটি দেশকে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে। সেগুলো হলো- আফগানিস্তান, ভেনিজুয়েলা, মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র, সিরিয়া, নাইজেরিয়া, ইথিওপিয়া এবং সোমালিয়া। এসব ঝুঁকির কারণ হিসেবে রয়েছে সশস্ত্র সংঘাত ও অর্থনৈতিক পতন এবং খরা, বন্যা ও অন্যান্য জলবায়ু সম্পর্কিত ঘটনা।

আইআরসি তালিকায় স্থান পেয়েছে অভ্যন্তরীণ বা বহিরাগত স্থানচ্যুতি। ২০১৮ সালে সারা বিশ্বে প্রায় ৪০ মিলিয়ন লোককে বিতাড়িত করা হয়েছে। যা শীর্ষ দশটির দেশের জনসংখ্যার অর্ধেকের সমান। দশটি দেশে প্রায় ১৩ মিলিয়ন শরণার্থী অবস্থান করছে। যা বিশ্ব শরণার্থীর ৬৫ শতাংশ। জাতিসংঘ জানিয়েছে, ২০১৯ সালে বিশ্বব্যাপী ৪২ দেশের ১৩২ মিলিয়ন জনগণের মানবিক সহায়তার প্রয়োজন হবে। এছাড়া তাদের নিরাপত্তাও নিশ্চিত করতে হবে।

যে দশটি দেশ আগামী বছরে ভয়ঙ্কর মানবিক বিপর্যয়ে সেগুলোর তালিকাসহ কারণ উল্লেখ করেছে আইআরসি। দেশগুলোর শীর্ষে রয়েছে ইয়েমেন। সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের সঙ্গে দেশটির হুথি বিদ্রোহীদের যুদ্ধের কারণে দেশটিতে তীব্র মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। রাজধানী সানাসহ দেশব্যাপী এই যুদ্ধের কারণে প্রায় ২৪ মিলিয়ন লোকের মানবিক সহায়তা প্রয়োজন। এছাড়া এরই মধ্যে দেশটিতে ব্যাপক দুর্ভিক্ষ দেখা দিয়েছে। এরইমধ্যে দেশটিতে আধুনিক ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি সংখ্যক লোক কলেরা আক্রান্ত হয়েছে। এরই মধ্যে দশ লাখেরও বেশি লোক এতে আক্রান্ত হয়েছেন।

এছাড়া আভ্যন্তরীণ ও বহিরাগত যুদ্ধ, প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে হুমকির মুখে থাকা দেশগুলো হলো- ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো, সাউথ সুদান, আফগানিস্তান, ভেনেজুয়েলা, দ্য সেন্ট্রাল আমেরিকান রিপাবলিক, সিরিয়া, নাইজেরিয়া, ইথিওপিয়া, সোমালিয়া।

এই সংবাদটি 1,228 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ