মানিকছড়িতে এ্যারাইজ এ জেড ৭০০৬ ধানের মাঠ দিবস পালিত

প্রকাশিত:রবিবার, ০৮ নভে ২০২০ ১২:১১

মানিকছড়িতে এ্যারাইজ এ জেড ৭০০৬ ধানের মাঠ দিবস পালিত

আবদুল মান্নান,মানিকছড়ি ঃ- “ভালো ধান,ভালো জীবন” এই প্রতিপাদ্যে মানিকছড়িতে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ও মেসার্স জাহাঙ্গীর ট্রেডার্স এর উদ্যোগে পালিত হয়েছে ‘এ্যারাইজ এ জেড ৭০০৬ ধানের মাঠ দিবস’। এতে শতাধিক কৃষকে হাইব্রীড এ্যারাইজ এ জেড ৭০০৬ ধানের নতুন বীজ প্রদান ও জমির পাকা কর্তন করেন খাগড়াছড়ি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. মর্তুজ আলী ও বায়রা ক্রপ সাইন্স লিমিটেডের ফিল্ড সুপারভাইজার ও মার্কেটিং প্রতিনিধি।
৭ নভেম্বর বিকাল সাড়ে ৩টায় মানিকছড়ি উপজেলার ১২ নং কৃষি ব্লক বড়ডলু বিলে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ও মেসার্স জাহাঙ্গীর ট্রেডার্স এর আয়োজনে ‘এ্যারাইজ এ জেড ৭০০৬ ধানের নতুন বীজ প্রদান ও জমির পাকা ধান কর্তন উপলক্ষে মাঠ দিবস পালন করা হয়। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. নাজমুল ইসলাম মজুদমার এর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, খাগড়াছড়ি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. মর্তুজ আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, বায়রা ক্রপ সাইন্স লিমিটেড এর ফিল্ড সুপারভাইজার বিশ্ব নাথ মালাকার ও মেসার্স জাহাঙ্গীর ট্রেডার্স এর স্বত্বাধিকারী এস.এম জাহাঙাগীর আলম ও উপজেলা কৃষকলীগ সভাপতি মো. শাহ আলম প্রমুখ। সহকারী কৃষি কর্মকর্তা উমা প্রসাদ বড়–য়ার সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহকারী কৃষি কর্মকর্তা অঞ্জন কুমার নাথ ।
অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথি কৃষিবিদ মো. মর্তুজ আলী ও বায়রা ক্রপ সাইন্স লিমিটেড এর ফিল্ড সুপারভাইজার বিশ্ব নাথ মালাকার ও মেসার্স জাহাঙ্গীর ট্রেডার্স এর স্বত্বাধিকারী এস.এম জাহাঙাগীর আলমসহ অতিথিরা কৃষকের পাকা ধান কর্তন করেন। পওে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন, ভালো বীজ,ভালো ধান,ভালো সেবা যতœ, তবেই আসবে রতœ। কৃষিনির্ভর দেশ বাংলাদেশ। এখানকার পাহাড়ে যে পরিমাণ ধান্য জমি রয়েছে সেখানে যদি নতুন নতুন প্রযুক্তি নির্ভর চাষাবাদে আপনারা এগিয়ে আসেন,তাহলে আপনার পরিবারে যেমন খাদ্যের অভাব থাকবে না। তেমনি দেশেও খাদ্য সংকট হবে না। তিনি আরো বলেন, বিশ্বের ১শত ৪১টি দেশের খাদ্য চাহিদা পূরণে নতুন নতুন আবিস্কার,গবেষণায় শীর্ষে থাকা ‘বায়রা ক্রপ সাইন্স লিমিটেড’ আমাদের দেশেও সরকারের পাশাপাশি কৃষি উৎপাদনে কাজ করছে। বাজারে নানা প্রজাতির হাইব্রীড ধানের মধ্যে বায়রার এ্যারাইজ এ জেড ৭০০৬ ধানটি ব্যাপক ফলনে সহায়ক ফসল। প্রতি ১একর জমিতে ৬৫-৭০ মণ ধান উৎপাদন সম্ভব। আসুন আমরা আধুনিক প্রযুক্তি সমৃদ্ধ ফসল উৎপাদনে কৃষিবিদ’দের সমন্বয়ে ও পরামর্শে ধান উৎপাদনে কাজ করি।
পরে সভাপতি কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. নাজমুল ইসলাম মজুমদার বলেন, আমরা কৃষিবিদ’রা আপনাদের সেবায় নিয়োজিত। যে কোন বিপদে ফসলের রোগ-বালাই দেখামাত্র আমাদের জানান। একটু সঠিক পরামর্শে দেখবেন অনেক জটিল সমস্যা নিরসনসহ ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে। অহেতুক কোন সার ওষধ বিক্রেতার পরামর্শ নেবেন না। কৃষিবিদ’দের পরামর্শ নিয়ে বাজার থেকে ওষধ কিনবেন, লাভবান হবেন।
সভা শেষে একশত কৃষকের হাতে দুই কেজি করে এ্যারাইজ এ জেড ৭০০৬ ধানের বীজ তুলে দেন খাগড়াছড়ি কৃষি বিভাগের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. মর্তুজ আলীসহ অন্য অতিথিরা।

এই সংবাদটি 1,225 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •