মিয়ানমার পরিস্থিতি ভারত ও বাংলাদেশ উভয় দেশের জন্যই ‘উদ্বেগজনক’ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, সন্ধ্যা ৬:০০, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

মিয়ানমার পরিস্থিতি ভারত ও বাংলাদেশ উভয় দেশের জন্যই ‘উদ্বেগজনক’ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

banglanewsus.com
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৪
মিয়ানমার পরিস্থিতি ভারত ও বাংলাদেশ উভয় দেশের জন্যই ‘উদ্বেগজনক’ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নয়া দিল্লি, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ (বাসস) : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আজ বলেছেন, মিয়ানমারের বিরাজমান পরিস্থিতি ‘বাংলাদেশ-ভারত উভয় দেশের জন্যই ‘উদ্বেগজনক’। কেননা উভয় দেশেরই মিয়ানমারের সাথে সীমান্ত রয়েছে।
তিনি বলেন, ‘আজ পর্যন্ত (আজ সকাল) পর্যন্ত প্রায় ৩৩৮ জন মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী ও সেনা সদস্য বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে এবং আমরা তাদের ফিরিয়ে নেওয়ার আলোচনার ভিত্তিতে আশ্রয় দিয়েছি।
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস. জয়শঙ্করের আমন্ত্রণে তিন দিনের সরকারি সফরে বর্তমানে নয়া দিল্লিতে অবস্থান করা ড. হাছান আজ সন্ধ্যায় প্রেস ক্লাব অফ ইন্ডিয়া (পিসিআই) প্রাঙ্গণে গণমাধ্যম কর্মীদের প্রশ্নের জবাবে এই মন্তব্য করেন।
ক্লাব ভবনের প্রথম তলায় স্থাপিত ‘বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টারে’ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
এ সময় ভারতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ মুস্তাফিজুর রহমান, পিসিআই সভাপতি গৌতম লাহিড়ী এবং বাংলাদেশ হাইকমিশনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
গণমাধ্যম কর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, মিয়ানমারে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলোচনাকালে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ তাদের (সীমান্ত নিরাপত্তা রক্ষী ও সেনা সদস্য) যারা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে তাদের ফিরিয়ে নিতে সম্মত হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, ‘যদিও মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ তাদের ফিরিয়ে নিতে সম্মত হয়েছে, তবে তারা কীভাবে এটি বাস্তবায়ন করবে তা আলোচনার একটা বিষয়।’
ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সাথে আজ অনুষ্ঠিত তার বৈঠক সম্পর্কে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, তারা এই অঞ্চলে শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার স্বার্থে মিয়ানমারের বর্তমান পরিস্থিতিসহ নিরাপত্তা বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন।
অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাস্তববাদী নেতৃত্বে গত ১৫ বছরে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক শক্তিশালী হয়েছে এবং নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে।
তিনি বলেন, এই অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করার জন্য অর্থনৈতিক সহযোগিতা, সংযোগ এবং জনগণের মধ্যে যোগাযোগ গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।
পরে, সফররত বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আজ সন্ধ্যায় হায়দারাবাদ হাউজে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস. জয়শঙ্করের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন।
দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের আগে জয়শঙ্কর (সাবেক টুইটার) এক্স-এ এক পোস্টে লিখেছেন ‘ভারতে স্বাগতম, বাংলাদেশের এফএম ড. হাছান মাহমুদ ….আমাদের আজকের আলোচনা ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রীকে শক্তিশালী করবে।’

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।