সাড়ে ৭ লাখের সোনার কয়েন ফিরিয়ে দিলেন পরিচ্ছন্নকর্মী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার, ১৯ অক্টো ২০২১ ০৯:১০

সাড়ে ৭ লাখের সোনার কয়েন ফিরিয়ে দিলেন পরিচ্ছন্নকর্মী

নিউজ ডেস্কঃ 

আবর্জনা পরিষ্কার করতে গিয়ে ধাতব কিছু পড়ার আওয়াজ শুনতে পান মেরি নামে এক পরিছন্নতাকর্মী। ধাতব জিনিসটি গোলাপি রঙের প্যাকেটে মোড়ানো ছিল। কিন্তু কৌতুহলবশত সেই প্যাকেটটা খুলতেই চোখ কপালে ওঠে মেরির।

ঠিক এমন অবাক করা ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের চেন্নাইয়ে।

ধাতব জিনিস বটে। কিন্তু সে ধাতু কোনও সাধারণ ধাতু ছিল না। ১০০ গ্রামের সোনার কয়েন। ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ৭ লাখ রুপি। আবর্জনার মধ্যে সোনার কয়েন পেয়ে কী করবেন বুঝে উঠতে পারছিলেন না। বিষয়টি তৎক্ষণাৎ তার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানান এবং প্রকৃত মালিকের  তুলে দিয়ে অনন্য নজির স্থাপন করেন তিনি।

ইতিমধ্যে সেই কয়েনে প্ররকৃত মালিকেরও খোঁজ মেলে।  কয়েনটি গণেশ রমন নামে এক ব্যক্তির। কয়েনটি কিনে তিনি গোলাপি রঙের কাগজে মুড়িয়ে বিছানার নিচে রেখেছিলেন। পরে কয়েনটি বের করতে গিয়ে দেখেন সেটি ওখানে নেই।

পরে স্ত্রীর কাছে জানতে চান বিছানার নিচে একটি গোলাপি রঙের কাগজ ছিল সেটি কোথায়। স্ত্রীকে তাকে জানান, ঘর পরিষ্কার করার সময় সেটা তিনি পেয়েছিলেন এবং আবর্জনার সঙ্গে ফেলে দিয়েছেন। স্ত্রীর এ কথা শুনে এক পর্যায়ে অচেতন হওয়ার মতো অবস্থা হয় গণেশের। পরে কোনও মতে নিজেকে সামলে নিয়ে দেরি না করে দ্রুত স্থানীয় থানায় যান। পুলিশকে বিষয়টি জানিয়ে একটি ডায়েরিও করেন।

পুলিশ অভিযোগ পেয়ে ওই এলাকার সব সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে। তার পরই জানা যায়, ওই দিন মেরি আবর্জনা পরিষ্কার করছিলেন। একই সঙ্গে পুলিশ জানতে পারে মেরি ওই কয়েন পেয়ে সেটি তার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জমাও দিয়েছেন। তার পর থানায় গণেশকে ডেকে পুলিশ তার হাতে ওই সোনার কয়েন তুলে দেয়। মেরির এই কাজের জন্য প্রশংসা করেন গণেশ এবং পুলিশ।

সূত্র: টাইমস অফ ইন্ডিয়া 

 

 

এই সংবাদটি 1,231 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •