সিডনির গোপন কুঠুরি ও উদ্‌যাপনের তথ্য ফাঁস করলেন ব্রেট লি - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, বিকাল ৫:৪৭, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

সিডনির গোপন কুঠুরি ও উদ্‌যাপনের তথ্য ফাঁস করলেন ব্রেট লি

newsup
প্রকাশিত ডিসেম্বর ৫, ২০২৩
সিডনির গোপন কুঠুরি ও উদ্‌যাপনের তথ্য ফাঁস করলেন ব্রেট লি

নিউজ ডেস্ক: প্রায় দেড় শ বছর ধরে টেস্ট ম্যাচ আয়োজন করে আসছে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড (এসসিজি)। এ ভেন্যু স্বাভাবিকভাবেই ঐতিহ্যবাহী, স্মৃতিবিজড়িত। এ মাঠেই ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট খেলেছেন স্টিভ ওয়াহ, শেন ওয়ার্ন, গ্লেন ম্যাকগ্রার মতো অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তিরা। বছরে নিজেদের প্রথম টেস্টটি এখানেই খেলে অস্ট্রেলিয়া। সেই এসসিজির গোপন একটি ঐতিহ্যের কথা এবার জানালেন ব্রেট লি।

এই মাঠে একটি গোপন কুঠুরির কথা বলেছেন অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৭৬টি টেস্ট খেলে ৩১০ উইকেট নেওয়া ইতিহাসের অন্যতম গতিময় বোলার লি। এই কুঠুরিতে ম্যাচ জয়ের উদ্‌যাপন হয়ে থাকে লোকচক্ষুর আড়ালে এবং সেটি হয়ে আসছে গত শতাব্দীর মাঝামাঝি থেকেই।

হ্যালো স্পোর্ট পডকাস্টে কথা বলার সময় গোপন এ কুঠুরির তথ্য ফাঁস করেছেন লি, ‘সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে, অনেকেই এটি জানেন না, আমি ভেতরের কথা বলে ফেলছি। একটা “অভ্যন্তরীণ পবিত্র স্থান” আছে, যেখানে আমরা স্বস্তি বোধ করি, যেখানে কোনো সাংবাদিক থাকেন না, যেখানে আমরা নির্ভার থেকে খোলামেলা কথা বলতে পারি।’

সেই গোপন কুঠুরিতে ঢুকতেও হয় বিশেষ একটি পদ্ধতি অনুসরণ করে। লি সেটি খুলে বলেছেন এভাবে, ‘এসসিজিতে টেস্ট জয়ের পর প্রথা হচ্ছে, আপনি একটা ক্রিকেট ব্যাট নেবেন, নিয়ে মেঝেতে তিনটি টোকা দেবেন। কয়েক মিনিট পর আপনিও এমন তিনটি টোকা শুনবেন, (মানে) নিচ থেকে কেউ দিচ্ছেন। এর অর্থ নিচে যেতে বলা হচ্ছে।’

লি এরপর যোগ করেন, ‘ফলে আপনি অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়দের ড্রেসিংরুমের নিচে চলে যাবেন, সেখানে একটা ছোট গ্যারেজের দরজা আছে। ভেতরে ঢুকলে দেখবেন এটা অনেক ছোট, আমরা ভাবতাম এটা জাস্টিন ল্যাঙ্গারের বাড়ি; কারণ, সে খুব ভালোভাবে এঁটে যায়। একটা দরজা আছে, যেখানে সব টেস্ট ক্রিকেটারের স্বাক্ষর আছে, আমার মনে হয়, ১৯৫০ সাল থেকেই আছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘এটা একটা কুঠুরি। ফলে বিয়ার ও ওয়াইন আছে, নিচে নেমে গ্রাউন্ড স্টাফদের কয়েকজনের সঙ্গেও কথা বলবেন ঠান্ডা বিয়ারের সঙ্গে।’

প্রথম যখন সে কুঠুরি নিজের চোখের দেখেছিলেন, তখনকার মুগ্ধতার কথাও বর্ণনা করেছেন লি, ‘মনে হয়েছিল, “টেস্ট ক্রিকেট কত দারুণ!” আর এমন ঐতিহ্যের কথা, যখন আপনি জানবেন এ কাজটি ব্র্যাডম্যানের মতো কেউ করেছেন, অ্যালান বোর্ডাররা, মার্ভ হিউজরা—এই খেলার কিংবদন্তিরা। আমার হয়তো এ নিয়ে খুব বেশি বলা উচিত হচ্ছে না। (তিনটি টোকা দেওয়ার অর্থ) আমরা তৃষ্ণার্ত!’

লি অবশ্য এ ব্যাপারে বলা থামাননি, ‘এটা নিজেকে চিমটি কাটার মতো মুহূর্ত। চারপাশে তাকিয়ে দেখি, স্টিভ ও মার্ক ওয়াহ, রিকি পন্টিং, ডেমিয়েন মার্টিন, জাস্টিন ল্যাঙ্গার, অ্যাডাম গিলক্রিস্ট, শেন ওয়ার্ন, গ্লেন ম্যাকগ্রা। তাঁদের সঙ্গে আমি একটা গোপন কুঠুরিতে, যাঁরা আমার নায়ক ছিলেন, যাঁদের দেখে আমার বেড়ে ওঠা। তাঁরা এখন আমার সতীর্থ!’

সিডনি যে রাজ্যের রাজধানী, সেই নিউ সাউথ ওয়েলসেই জন্ম লির। সেই রাজ্য দল এবং এর সংশ্লিষ্ট বিগ ব্যাশ লিগের দল সিডনি সিক্সার্সের হয়েও খেলেছেন লি। নিজের সময়ের অন্যতম সেরা এই ফাস্ট বোলার ১৯৯৯ সালে অভিষেক করার পর ২০০৮ সালে অবসরে যাওয়ার আগে ক্যারিয়ারে এসসিজিতে খেলেছেন ৯টি টেস্ট।

নতুন বছরে পাকিস্তানের বিপক্ষে এসসিজিতে টেস্ট খেলবে অস্ট্রেলিয়া। এ টেস্ট দিয়ে অবসরে যাওয়ার কথা আরেক কিংবদন্তি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারের।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।