সিলেটে গোসাপ সাহিত্য পুরস্কার ২০২১ পেলেন ইয়র্ক বাংলা’র সম্পাদক রশীদ আহমদ।

প্রকাশিত:মঙ্গলবার, ০১ জুন ২০২১ ০৬:০৬

সিলেটে গোসাপ সাহিত্য পুরস্কার ২০২১ পেলেন ইয়র্ক বাংলা’র সম্পাদক রশীদ আহমদ।
ফায়যুর রাহমান:
সিলেটের গোয়াইনঘাট সাহিত্য পরিষদের সংবর্ধনা ও সাহিত্য পুরস্কার ২০২১ পেয়েছেন নিউইয়র্ক প্রবাসী লেখক ও গবেষক, ইয়র্ক বাংলা সম্পাদক মাওলানা রশীদ আহমদ।গত ২৯মে শনিবার সিলেটের সালুটিকর বাজারে নন্দিরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে লেখক-সাংবাদিক, সাহিত্যিক, রাজনীতিক ও নানা শ্রেণিপেশার মানুষের উপস্থিতিতে তাঁকে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেট কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক সিলেটের ডাকের নির্বাহী সম্পাদক গবেষক আবদুল হামিদ মানিক।
গোয়াইনঘাট সাহিত্য পরিষদের সভাপতি সম্রাট তারেকের সভাপতিত্বে, সাধারণ সম্পাদক লোকমান হাফিজ ও সাহিত্য সম্পাদক আখলাক হুসাইন এর যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন দৈনিক জালালাবাদের সহকারী সম্পাদক কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে গবেষক আবদুল হামিদ মানিক বলেন, প্রবাসে গিয়ে বাস্তবতার চাপে অনেক সৃজনশীল মানুষ ডলার-পাউন্ডের নীচে হারিয়ে যান। কিন্তু অদম্য স্পৃহা এবং অফুরন্ত দেশপ্রেমের কারণে কিছু মানুষ কখনোই শেকড়ের সঙ্গে বন্ধন ছিন্ন করেন না। তারা অবিরাম বাংলার মুখের দিকে তাকিয়ে সৃজনশীল কর্মতৎপরতা চালিয়ে যান। মাওলানা রশীদ আহমদ তেমনই একজন উদ্যমী লেখক। যিনি প্রবাসে গিয়ে নিজের শেকড়কে ভুলে যাননি। সাহিত্য-সাংবাদিকতা ও সমাজসেবায় নিজেকে সবসময় নিবেদিত রেখেছেন। এমন প্রবাসীরাই বাংলাদেশের মুখ উজ্জল করেন।
তিনি বলেন, আজ যে সাহিত্য পুরস্কার ও সম্মাননা প্রদান করা হচ্ছে, একজন কর্মতৎপর লেখক ও সাহিত্যিক হিসেবে এই সম্মাননা পাওয়া রশীদ আহমদের প্রাপ্য ছিলো। এই এলাকার সাহিত্য প্রেমী যুব ও ছাত্রসমাজের কাছে তাই আজকের দিনটি একটি আলোকবর্তিকা ও প্রেরণা হিসেবে কাজ করবে।
তিনি আরো বলেন, যে জায়গায় গুণীর কদর নেই, সে জায়গায় গুণীর জন্ম হয় না। গোয়াইনঘাট সাহিত্য পরিষদ একজন গুণীকে সম্মাননা জানিয়ে অনাগত ইতিহাসকে জানিয়ে রাখছে, এখানে আরো হাজারো গুণীর আগমন ঘটছে।
প্রধান আলোচকের বক্তব্যে কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ বলেন, মাওলানা রশীদ আমার প্রিয়ভাজন ছাত্রদের অন্যতম। তার মতো বিনয়ী, উদার ও কর্মঠ ছাত্র আমি জীবনে কমই দেখেছি। তিনি আকাশের মতো উদার মন নিয়ে নিজের এলাকায় সমাজসেবামূলক কাজে নিজেকে উজাড় করে দিয়েছেন। নিজের জন্য কিছু করার চিন্তা না করে চিত্ত ও বিত্ত দুস্থ মানুষের জন্য ব্যয় করে যাচ্ছেন। এমন একজন মানুষকে সম্মাননা জানানোর অনুষ্ঠানে এসে শিক্ষক হিসেবে আমি সম্মানিত বোধ করছি।
সাংবাদিক মুহাম্মাদ মামুনুর রশীদের তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ছড়াকার নজমুল হক চৌধুরী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন,বাংলাদেশ এর লেখক ও গবেষক মাওলানা ফয়সল জালালী, মাওলানা আব্দুল মতীন ফাউন্ডেশন, সিলেট এর সভাপতি,বিশিষ্ট আইনজীবি এডভোকেট হাসান আহমদ,বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন মুফতী মফিজুর রহমান, কবি মামুন সুলতান, ৭ নং নন্দিরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস কামরুল হাসান আমিরুল, একে নিউজ মিডিয়া সম্পাদক আনোয়ার হোসাইন, লেখক ও সাংবাদিক ফায়যুর রাহমান, গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাবের সভাপতি এম এ মতিন, গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মনজুর আহমদ, লেখক ও গবেষক মাওলানা
 শামসীর হারুনুর রশীদ ও লিডিং ইউনিভার্সিটির প্রভাষক মুহাম্মদ জিয়াউর রহমান।
অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিভিল কোর্ট কমিশনার এনামুল হক, সাংবাদিক আতিকুর রহমান নগরী, সাংবাদিক এম.এ রহিম, জালাল সিদ্দিকী, কবি আকরামুল ইসলাম, কোম্পানীগঞ্জ সাহিত্য সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক কবির মাহমুদ, গোয়াইনঘাট সাহিত্য পরিষদের সহ-সভাপতি বদরুল ইসলাম, সহ সভাপতি শামিম আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসাইন ইমরান, সিলেট শহরস্থ গোয়াইনঘাট ছাত্র পরিষদ সাধারণ সম্পাদক ইকবাল আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফখরুল ইসলাম, গোয়াইনঘাট সাহিত্য পরিষদ কোষাধ্যক্ষ মো. মুছলেহ উদ্দিন মুনাঈম, পাঠাগার ও প্রচার সম্পাদক হুমায়ুন রশীদ।
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সাবেক ইউপি মেম্বার মদরিস শিকদার, ইমরান হোসাইন সেলিম, জামিল আহমদ, আনোয়ারুল হক, মো. মামুনুর রশীদ, ফখর উদ্দিন, আবু সুফিয়ান, রঞ্জন বিশ্বাস, মাহবুবুর রহমান  তিবিয়ান, আসাদুল হক,আবুল কালাম, সিদ্দিকুর রহমান তানভীর, সাজু প্রমুখ।

এই সংবাদটি 1,231 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •