স্থায়ীভাবে বন্ধ করা হয়েছে ট্রাম্পের যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ০৩ জুন ২০২১ ১২:০৬

স্থায়ীভাবে বন্ধ করা হয়েছে ট্রাম্পের যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম

নিউজ ডেস্কঃ  সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের যোগাযোগের নিজস্ব প্ল্যাটফর্ম চালুর এক মাসের মধ্যে বন্ধ হয়ে গেছে। গত মাসে “ফ্রম দ্য ডেস্ক অব ডোনাল্ড জে ট্রাম্প” নামের প্ল্যাটফর্মটি চালু করা হয়। এখন এই প্ল্যাটফর্ম স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ট্রাম্পের অন্যতম উপদেষ্টা জেসন মিলার বলেছেন, বড় কিছু করার লক্ষ্যেই প্ল্যাটফর্মটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আর সেটা নিয়ে তাঁরা কাজ করছেন।

২ জুন পেজটি অনলাইনে বন্ধ হওয়ার পর জেসন মিলার এক টুইটবার্তায় বলেছেন, প্ল্যাটফর্ম বন্ধের বিষয়টি যোগাযোগের সামাজিক মাধ্যমে ট্রাম্পের ফিরে আসার ক্ষেত্রে একটি পূর্ব পদক্ষেপ। তবে ট্রাম্প ঠিক কীভাবে ও কবে যোগাযোগের সামাজিক মাধ্যমে ফিরে আসবেন, তা স্পষ্ট করেননি মিলার।

ট্রাম্পের উসকানিতে তাঁর উগ্র সমর্থকেরা গত ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে হামলা করেন। রক্তক্ষয়ী সেই হামলার ঘটনায় পুলিশসহ পাঁচজন নিহত হন। এ ঘটনার পর ফেসবুক, টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগের প্রধান মাধ্যমগুলো ট্রাম্পকে নিষিদ্ধ করে।

মতপ্রকাশের ক্ষেত্রে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো বাধা প্রদান করছে বলে আগে থেকেই ট্রাম্প সমালোচনা করে আসছিলেন। একপর্যায়ে তাঁর পক্ষ থেকে মিলার জানিয়েছিলেন, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আমূল পরিবর্তনের একটি মাধ্যম খুলবেন ট্রাম্প।

সামাজিক যোগাযোগের প্রধান প্রধান মাধ্যমে নিষিদ্ধ হওয়ার পর অনেকটা হাঁপিয়ে ওঠেন ট্রাম্প। ক্ষমতা থেকে যাওয়ার পর তিনি ই-মেইলের মাধ্যমে তাঁর অনুসারীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে আসছিলেন। এ ছাড়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নিজের বক্তব্য প্রকাশ করে আসছেন তিনি।

গত ৪ মে ট্রাম্প যোগাযোগের নিজস্ব প্ল্যাটফর্ম চালু করেন। এই প্ল্যাটফর্মে তিনি তাঁর বক্তব্য পোস্ট দিতে থাকেন। প্ল্যাটফর্মের নিয়ম অনুযায়ী, অন্যরা তাঁর পোস্টগুলো শেয়ার করতে পারছিলেন। তবে পেজটিতে তাঁর ভক্ত-অনুসারীদের কোনো মতামত প্রকাশের সুযোগ ছিল না।

ক্ষমতা থেকে চলে যাওয়ার পর সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টরা সরাসরি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড এড়িয়ে চলেন। ট্রাম্প তাঁর ব্যতিক্রম। তিনি তাঁর রাজনৈতিক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। ২০২৪ সালের নির্বাচনে তিনি আবার প্রার্থী হবেন—এমন আভাস দিয়ে রেখেছেন। এ ছাড়া রিপাবলিকান পার্টির রক্ষণশীল লোকজনকে তিনি প্রকাশ্যে সমর্থন করছেন। বিরোধীদের সমালোচনা করছেন। ২০২২ সালের মধ্যবর্তী নির্বাচনে কংগ্রেসে নিজের অনুগত রক্ষণশীলদের জয়ী করতে ইতিমধ্যে ট্রাম্প কাজে নেমে পড়েছেন।

এই সংবাদটি 1,230 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •