৫ খাবারে উপকার - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, রাত ১১:০৭, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

৫ খাবারে উপকার

newsup
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২৩
৫ খাবারে উপকার

ডেস্ক রিপোর্ট: রোদে বের হওয়ার আগে ভালো মানের সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হয় ত্বকের সুরক্ষার জন্য। নাহলে ত্বকের ট্যান হতে সময় লাগে না। তবে জানেন কি কিছু খাবার প্রাকৃতিকভাবেই আপনাকে রোদের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে রক্ষা করবে? এসব খাবার প্রচণ্ড তাপ প্রতিরোধ করতে এবং ত্বককে ভেতরে ও বাইরে রক্ষা করতে পারে।

লেবু মিশ্রিত পানি পান করতে পারেন ত্বকের সুরক্ষায়। ছবি- দ্য ডেইলি মিল
লেবু মিশ্রিত পানি পান করতে পারেন ত্বকের সুরক্ষায়। ছবি- দ্য ডেইলি মিল

কীভাবে খাবার তাপ এবং সূর্যের রশ্মি প্রতিরোধে সাহায্য করে?
গ্রীষ্মের সময় তরল উপাদান উচ্চ মাত্রায় আছে এমন খাবার শরীরে সোডিয়াম, পটাসিয়াম এবং ম্যাঙ্গানিজের ভারসাম্য বজায় রাখতে সহায়তা করে। গরমে অতিরিক্ত ঘামের কারণে শরীর যে পানি হারিয়ে ফেলে সেটা পূরণ করার পাশাপাশি অন্যান্য পুষ্টি পূরণ করে এসব খাবার। পানিজাতীয় খাবার আমাদের হাইড্রেটেড থাকতে সাহায্য করে এবং সূর্যের বিকিরণকে প্রতিরোধ করে, যা ট্যানিং এবং অন্যান্য তাপ-সম্পর্কিত স্বাস্থ্যের ঝুঁকি প্রতিরোধ করে।

জেনে নিন সূর্যের ক্ষতি থেকে কোন কোন খাবার সুরক্ষিত রাখবে আপনাকে।

১। লেবুর রস
প্রচণ্ড তাপকে পরাজিত করে তাৎক্ষণিকভাবে শরীর শীতল করতে সাহায্য করে লেবুর রস। লেবু ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ, যা অতিবেগুনি রশ্মি প্রতিরোধে সাহায্য করে। এছাড়া ত্বকে সৃষ্ট মুক্ত র্যাডিক্যাল ক্ষতি থেকেও আমাদের রক্ষা করে।

২। লাচ্ছি
দই দিয়ে তৈরি লাচ্ছি খাদ্য থেকে আয়রন শোষণে সহায়তা করে ও ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে রক্ষা করে। এটি ত্বকের বলিরেখা এবং সূক্ষ্ম রেখাগুলোও প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।

৩। গ্রিন টি
ওজন কমাতে বা হজমশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি পান করেন অনেকেই। এটি আপনাকে সূর্যের ক্ষতি থেকেও রক্ষা করবে। গ্রিন টিতে থাকা পলিফেনল অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলো ট্যান প্রতিরোধে সহায়তা করে। এটি সূর্যের ক্ষতির নেতিবাচক প্রভাব প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

৪। টমেটো
টমেটোতে লাইকোপিন থাকে, যা সূর্যের ক্ষতিকর বিকিরণ শোষণ করে এবং রোদে পোড়ার ঝুঁকি প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

৫। ডাবের পানি
ডাবের পানি প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসেবে ত্বকে পুষ্টি জোগায় এবং নরম করে। এটি সূর্যের ক্ষতির জন্যও একটি ঘরোয়া প্রতিকার।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।