৯ম লিবারেশন ডকফেস্ট ৮-১২ ই জুন

প্রকাশিত:রবিবার, ০৬ জুন ২০২১ ০৩:০৬

৯ম লিবারেশন ডকফেস্ট ৮-১২ ই জুন

নিউজ ডেস্কঃ

আগামী ৮ থেকে ১২ ই জুন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর আয়োজিত “মুক্তি ও মানবাধিকার” বিষয়ক প্রামাণ্যচিত্র উৎসব ৯ম লিবারেশন ডকফেস্ট ২০২১। স্বাধীনতার ৫০ বছর এবং মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ২৫ বছর পূর্তিতে, এবারের আয়োজন টি একটি বিশেষ উৎসবে পরিণত হতে যাচ্ছে।

সাম্প্রতিক করোনা মহামারীর কারণে এই উৎসবটি মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর প্রাঙ্গণে আয়োজন করা সম্ভব হচ্ছে না , তাই উৎসবটি অনলাইনে আয়োজন করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। প্রতিবছরের মতো এবছরও উৎসবে বিপুল সংখ্যক মুক্তি ও মানবাধিকার বিষয়ক প্রামাণ্যচিত্র জমা প—েছে। উৎসবে এ পর্যন্ত ১১২ টি দেশের ১৯০০ এর বেশি ছবি জমা পড়েছে। এবারের উৎসবে জমাকৃত ছবি থেকে নির্বাচিত ১১৯ টি প্রামাণ্যচিত্র প্রতিযোগিতা এবং প্রতিযোগিতার বাইরের ছবি হিসেবে প্রদর্শিত হবে। এবারের উৎসবে বেশ কয়েকটি ক্যাটাগরিতে ছবি প্রদর্শিত হতে যাচ্ছে। তন্মধ্যে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা বিভাগে প্রদর্শিত হবে নয়টি ছবি। এই বিভাগে বিচারক হিসেবে আছেন প্রখ্যাত ভারতীয় প্রামাণ্যচিত্র নির্মাতা সুপ্রিয় সেন এর নেতৃত্বে দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম প্রামাণ্যচিত্র উৎসব নেপালের ‘ফিল্ম সাউথ এশিয়ার’ পরিচালক মিতু ভার্মা এবং দক্ষিণ কোরিয়ার প্রামাণ্যচিত্র নির্মাতা মুন চিল- পার্ক। আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতার পাশাপাশি জাতীয় প্রতিযোগিতা বিভাগে থাকছে পাঁচটি নির্বাচিত প্রামাণ্যচিত্র। জাতীয় বিভাগে বিচারক হিসেবে থাকবেন অগ্রজ চলচ্চিত্র নির্মাতা শামীম আখতার, চলচ্চিত্র নির্মাতা ফখরুল আরেফিন এবং লেখক-অনুবাদক-সমালোচক আলম খোরশেদ।

 

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের রজত জয়ন্তীকে সামনে রেখে এবার উৎসবে বেশ কয়েকটি আয়োজন থাকছে। এবারের উৎসবে বিগত পাঁচ দশকে নির্মিত মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রামাণ্যচিত্রের একটি ‘কিউরেটেড প্রদর্শনী’ আয়োজন করা হচ্ছে। পাশাপাশি বিগত সময়ে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর কতৃক নির্মিত মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শিত হবে।
গতবারের মতই এবছরও “ঢাকা ডকল্যাব” এর সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘’এক্সপজিশন অফ ইয়াং ফিল্ম ট্যালেন্ট : স্টোরি টেলিং ওয়ার্কশপ ফর ডকুমেন্টারি ফিল্ম মেকার” শীর্ষক প্রামাণ্যচিত্র কর্মশালা এবং পিচিং সেশন। ভারতের প্রখ্যাত প্রামাণ্যচিত্র নির্মাতা ও শিক্ষক নীলোৎপল মজুমদার-সহ একাধিক প্রামাণ্যচিত্র নির্মাতা এই কর্মশালা পরিচালনা করেছেন। কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী চলচ্চিত্র নির্মাতাদের প্রকল্পগুলো পিচিং সেশন শেষে ২ টি বিভাগে ৪ টি প্রজেক্টকে অনুদান এর জন্য নির্বাচিত করা হয় ।

 

এবারের উৎসবে পাঁচ দিনব্যাপী প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনের পাশাপাশি অনলাইনে কয়েকটি প্যানেল আলোচনা আয়োজন করা হয়েছে। মূলত ৫০ বছরের বাংলাদেশে ফিল্ম এবং বিশেষ করে প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ ও চর্চা কোথায় এসে দাঁড়িয়েছে তার বাস্তব অবস্থা জানতেই এই প্যানেল আলোচনা আয়োজন করা হয়েছে। প্রতিদিন ছবি প্রদর্শনের পাশাপাশি এই প্যানেল আলোচনা আয়োজন করা হবে।
৮ জুন সন্ধ্যায় “ইয়াং ফিল্ম মেকিং কমিউনিটি: একাডেমিক এডুকেশন অ্যান্ড ফিল্ম এস ক্যারিয়ার”। ৯ জুন সন্ধ্যায় ‘ওমেন ফিল্মমেকারস ইন বাংলাদেশ’ এবং ১১ ই জুন দক্ষিন এশিয়ার প্রামাণ্যচিত্র নির্মাতাদের নিয়ে “সাউথ এশিয়ান ডকুমেন্টারি ফিল্ম মেকার : লুকিং ফর অল্টারনেটিভ ন্যারেটিভ এন্ড প্লাটফর্ম ফর শোকেজিং ফিল্মস” শীর্ষক একটি প্যানেল আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। এই প্যানেল আলোচনাগুলোয় নির্ধারিত আলোচকদের পাশাপাশি তরুণ চলচ্চিত্র নির্মাতারা অংশগ্রহণ করবেন।
উৎসবে প্রদর্শিত প্রামাণ্যচিত্রগুলো দেশের এবং দেশের বাইরের আগ্রহী দর্শকরা বিনামূল্য উৎসবের ওয়েবসাইট www.liberationdocfestbd.org –এ রেজিস্ট্রেশন করে দেখতে পারবেন। রেজিস্ট্রেশনকারী সবাই প্রামাণ্যচিত্রের তালিকা, সময়সূচি এবং তথ্যাদি নিয়মিতভাবে পাবেন।

আগামী ১২ই জুন সন্ধ্যায় আমন্ত্রিত অতিথি ও বিশিষ্ট জনের উপস্থিতিতে অনলাইনে উৎসবের সমাপনী এবং পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পাঁচ দিনের এই উৎসবের পর্দা নামবে।

এই সংবাদটি 1,231 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •