ব্যাটে ফিলিস্তিনের লোগো ব্যবহার করায় মঈন খানের ছেলের শাস্তি - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, সকাল ৬:৪৩, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

ব্যাটে ফিলিস্তিনের লোগো ব্যবহার করায় মঈন খানের ছেলের শাস্তি

newsup
প্রকাশিত নভেম্বর ২৭, ২০২৩
ব্যাটে ফিলিস্তিনের লোগো ব্যবহার করায় মঈন খানের ছেলের শাস্তি

নিউজ ডেস্ক: ইসরায়েল-ফিলিস্তিন যুদ্ধ নিয়ে গত কয়েক মাস ধরে তোলপাড় পুরো বিশ্ব। ক্রিকেটার, ফুটবলাররা সহ ভক্ত-সমর্থকেরা নানাভাবে প্রতিবাদ করে যাচ্ছেন। প্রতিবাদ জানাতে অনেকেই ফিলিস্তিনের পতাকা ব্যবহার করছেন মাঠে। আজম খানও হয়তো সেভাবেই প্রতিবাদ করতে চেয়েছেন। সেকারণে তাঁকে গুনতে হয়েছে জরিমানা।

করাচিতে ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপে গতকাল মুখোমুখি হয়েছে করাচি হোয়াইটস ও লাহোর ব্লুজ। করাচি হোয়াইটসের হয়ে খেলা ব্যাটার আজম খান তাঁর ব্যাটে ফিলিস্তিনের পতাকা ব্যবহার করেছেন। ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে মঈন খানের ছেলেকে। জিও নিউজ, ক্রিকেট পাকিস্তানসহ পাকিস্তানের বেশ কিছু গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, আজমকে ফিলিস্তিনের পতাকা না দেখানোর জন্য ম্যাচ রেফারি মোহাম্মদ জাভেদ সতর্ক করেছিলেন। তাতে আইসিসির আচরণবিধি লঙ্ঘন করা হয়। জামাকাপড় ও ক্রীড়াসামগ্রী ব্যবহারের ব্যাপারে আইসিসির নিয়ম বলছে, রাজনৈতিক, ধর্মীয়, বর্ণবাদী এমন কোনো বার্তা খেলোয়াড়েরা প্রকাশ্যে দেখাতে পারবেন না।

৫০ শতাংশ জরিমানা গোনার দিন আজম ৩১ বলে ৩৫ রান করেছেন। তবে লাহোর ব্লুজ ৫ রানে হারিয়েছে করাচি হোয়াইটসকে। পাকিস্তানের গণমাধ্যমসমূহে বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছেন, ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপে এর আগের দুই ম্যাচেও আজম ফিলিস্তিনের স্টিকার নিয়ে খেলেছিলেন। ভবিষ্যতে একই স্টিকার নিয়ে আবারও খেললে আজমকে নিষিদ্ধ করা হতে পারে।

এর আগে এ বছরের অক্টোবরে বিশ্বকাপ চলার সময় পাকিস্তান ক্রিকেট দল ফিলিস্তিনিদের ওপর অত্যাচারের প্রতিবাদ করেছিল। ভারতীয় ভক্ত সমর্থক ও ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা ফিলিস্তিনের পক্ষে খেলোয়াড়দের সমর্থন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। আইসিসির কাছে নালিশ জানানো হয়েছিল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এই মর্মে যে বিশ্বকাপ চলাকালীন এমন কাজ করতে অনুমতি দেওয়া উচিত কি না।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।