জেলে বসে ঠোঙা বানাতেন সঞ্জয় দত্ত! - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, দুপুর ১:১৯, ২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

জেলে বসে ঠোঙা বানাতেন সঞ্জয় দত্ত!

banglanewsus.com
প্রকাশিত এপ্রিল ১০, ২০২২
জেলে বসে ঠোঙা বানাতেন সঞ্জয় দত্ত!

জেলে বসে ঠোঙা বানাতেন সঞ্জয় দত্ত!

ডেস্ক রিপোর্ট : একসময় বেআইনি অস্ত্র রাখার অভিযোগে কারাগারে ছিলেন বলিউডের খ্যাতিমান অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। সে সময় জেলে বসে কাগজের ঠোঙা বানাতেন তিনি। এই কাজ করে তিনি আয় করেন ৫০০ টাকা! এক টিভি শোতে নিজেই ঘটনাটি জানিয়েছিলেন বলি পাড়ার ‘মুন্না ভাই’।

১৯৯৩ সালের এক মামলায় বেআইনিভাবে নিজের কাছে অস্ত্র রাখার অভিযোগ ছিল সঞ্জয়ের বিরুদ্ধে। ২০০৭ সালে টাডা আদালত সেই অপরাধে তাকে কারাদণ্ড দেয়। সুপ্রিম কোর্ট সেই রায় বহাল রাখায় ২০১৩ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত পুনের ইয়েরওয়াড়া জেলে হাজতবাস খেটেছেন সঞ্জয়।

কারাবন্দি জীবনে সঞ্জয়কে কাগজের ঠোঙা তৈরির কাজ দেয় জেল কর্তৃপক্ষ। প্রত্যেক ঠোঙায় প্রতি মজুরি ধরা হতো ২০ পয়সা। প্রতিদিন প্রায় ৫০ থেকে ১০০টি ঠোঙা তৈরি করতেন মুন্না ভাই। প্রায় সাড়ে তিন বছরের জেল-জীবনে ঠোঙা তৈরি করেই তিনি রোজগার করেছিলেন ৫০০ টাকা। ২০১৬ সালে জেল থেকে ছাড়া পেয়ে সেই টাকা স্ত্রী মান্যতার হাতে তুলে দেন তিনি।

প্রসঙ্গত, চার দশকের ক্যারিয়ারে বারবার নিজেকে ভেঙেচুরে পর্দায় হাজির হয়েছেন সঞ্জয় দত্ত। মুন্নাভাই থেকে অধীরা-প্রত্যেক চরিত্রেই সাড়া ফেলেছেন তিনি। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে তার অভিনীত বহুল আলোচিত সিনেমা ‘কেজিএফ: চ্যাপ্টার ২’। এই সিনেমার শুটিংয়ের সময়ই তার ‘ভাইকিং লুক’ ভাইরাল হয়েছে।

সূত্র: আনন্দবাজার।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।