হৃদয়ে জাগ্রত হোক হোসাইনি চেতনা - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, সকাল ১১:০৬, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

হৃদয়ে জাগ্রত হোক হোসাইনি চেতনা

newsup
প্রকাশিত আগস্ট ১০, ২০২২
হৃদয়ে জাগ্রত হোক হোসাইনি চেতনা

ধর্ম: আরবি হিজরি বর্ষের প্রথম মহররম মাস। মানবজাতির পৃথিবীর জন্মলগ্ন থেকেই নানা ঘটনাপ্রবাহের ঐতিহ্য বহন করছে পবিত্র মহররম মাস। বিশেষ করে ঐতিহাসিক কারবালার রক্তঝরা ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মহররম মাস আরও স্মরণীয় হয়ে রয়েছে ইতিহাসের পাতায়। ৬১ হিজরির ১০ মহররম কারবালা প্রান্তরে মহানবির (সা.) প্রিয় দৌহিত্র, ন্যায়ের মূর্ত প্রতীক হজরত ইমাম হোসাইন (রা.) অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে গিয়ে চক্রান্তকারী ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে নির্মমভাবে কারবালার প্রান্তরে শাহাদতবরণ করেন।
তার শহিদ হওয়াকে কেন্দ্র করে বর্তমানে আশুরার গুরুত্ব পেলেও ইসলামের ইতিহাসে এই দিনে অসংখ্য তাৎপর্যময় ঘটনা রয়েছে। এ কারণে মুসলমানরা দিনটিকে বিশেষ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে স্মরণ করে থাকেন।
প্রকৃত ইসলাম ও সত্যের জন্য হজরত ইমাম হোসাইন (রা.) ইয়াজিদ বাহিনীর কাছে মাথা নত না করে যুদ্ধ করে শাহাদতবরণ করেছিলেন। তিনি সেদিন ন্যায় ও সত্যের জন্য চরম আত্মত্যাগের যে দৃষ্টান্ত রেখে গেছেন তা অনুকরণীয়। ধর্মের জন্য তার যে ত্যাগ তা আমাদের অনুসরণ করতে হবে। রাস্তাঘাট বন্ধ করে অপরকে কষ্ট দিয়ে শোক প্রকাশের কোনো শিক্ষা ইসলামে পাওয়া যায় না।
পক্ষান্তরে শহিদে কারবালায় হজরত ইমাম হোসাইন (রা.) বলে গেছেন-‘আমি শহিদ হলে তোমরা আমার জন্য উহ! আহ! করো না, আঁচল ছিঁড় না, বরং ধৈর্য ধারণ করে থাকবে’।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।