কেমুসাসের ১১৬৫তম সাহিত্য আসর নজরুল আধুনিক সাহিত্যের আলোকবর্তিকা -কবি ওয়াহিদ রোকন - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, বিকাল ৩:০৬, ১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

কেমুসাসের ১১৬৫তম সাহিত্য আসর নজরুল আধুনিক সাহিত্যের আলোকবর্তিকা –কবি ওয়াহিদ রোকন

newsup
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১, ২০২৩
কেমুসাসের ১১৬৫তম সাহিত্য আসর নজরুল আধুনিক সাহিত্যের আলোকবর্তিকা  –কবি ওয়াহিদ রোকন

ডেস্ক নিউজঃ বিশিষ্ট সাহিত্য সমালোচক কবি ওয়াহিদ রোকন বলেছেন, কাজী নজরুল ইসলাম আধুনিক সাহিত্যের আলোকবর্তিকা। নজরুলকে এড়িয়ে বাংলা সাহিত্য চিন্তা করা যায়। নজরুল ইসলামের মাধ্যমে কবিতায় প্রথম আধুনিকতার সূত্রপাত। শব্দ ও উপমার ব্যবহার নজরুল নতুনভাবে হাজির করেছিলেন সাহিত্যে।

(৩১ আগস্ট) সন্ধ্যায় নগরের কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদে ১১৬৫তম সাহিত্য আসরে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, গদ্য ছাড়াও সঙ্গীতে নজরুলের সাধনা আকাশচুম্বী। বাংলা সঙ্গীতের ইতিহাসে নজরুলের গান পাঠকদের নতুন পথ দেখিয়েছে। সমকালীন উর্দু, ফার্সি ও হিন্দির ব্যবহার তার কবিতাকে নিয়ে গেছে অনন্য উচ্চতায়।

কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্য ও গবেষণা সম্পাদক মাহবুব মুহম্মদের সভাপতিত্বে আসরে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক জনাব সৈয়দ মবনু ও সহসাধারণ সম্পাদক আব্দুস সাদেক লিপন।

কেমুসাসের সাধারণ সম্পাদক জনাব সৈয়দ মবনু তার বক্তব্যে বলেন, ২০২৬ সালে কাজী নজরুল ইসলাম সিলেট আগমনের ১০০ বছর পূর্তি হবে। ১৯২৬ সালে জাতীয় কবি সিলেটে আগমন করেন। আগমনের ১০০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ স্মারকগ্রন্থ প্রকাশের পরিকল্পনা করেছে। নজরুলকে নিয়ে আমরা সবাই যেন লিখি।

লেখাপাঠের উপর আলোচনা করেন কবি জয় জাহাজী। আসরে স্বরচিত লেখাপাঠ করেন সিরাজুল হক, শাহাদাৎ হোসেন টিপু, ফরিদ আহমদ, কবির আশরাফ, নাওয়াজ মারজান, সাইয়্যিদ মুজাদ্দিদ। গান পরিবেশন করেন কুবাদ বখত চৌধুরী রুবেল, সাজিদুল রহমান সাজিদ, লিলু মিয়া।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।