গ্লোবাল ভিলেজকে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য কমিটি গঠনে আলোচনা - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, দুপুর ২:১৪, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

গ্লোবাল ভিলেজকে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য কমিটি গঠনে আলোচনা

banglanewsus.com
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২৪
গ্লোবাল ভিলেজকে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য কমিটি গঠনে আলোচনা

হাসান আলী :: জাতিসংঘের অধীনে ১৯৫ টি দেশকে গ্লোবাল ভিলেজ বলা হয় ৷ বিশ্ব মোড়লরা জাতিসংঘকে পরিচালনা করে থাকেন ৷ আমেরিকা জাতিসংঘের বাজেটের মোট ২২% দিয়ে থাকে ৷ বৃটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, চায়না ও রাশিয়া বাজেটের ১০% এর নীচে অর্থ দিয়ে থাকেন ৷ তাই জাতিসংঘে আমেরিকার প্রভাব বেশি থাকে ৷ আমেরিকাকে পরিচালনা করে কংগ্রেস। বিশ্বের সমস্যার সমাধানে আমেরিকান কংগ্রেস বিশেষ ভুমিকা রাখে ৷ জাতিসংঘের মাধ্যমে কোন সিদ্ধান্ত নিতে হলে সিকিউরিটি কাউন্সিল বিশেষ সভা ডাকেন। সিকিউরিটি কাউন্সিলের সদস্য হল ১৫টি দেশ। তার মধ্যে পাঁচটি দেশ হলো– স্থায়ী সদস্য আমেরিকা , বৃটেন, ফ্রান্স, চায়না ও রাশিয়া ৷
অন্য দশটি দেশ দুই বছর পর পর সিকিউরিটি কাউন্সিলের সদস্য হয় ৷তারা সন্মিলিতভাবে যে কোন ডিসিশন নিয়ে সমস্যার সমাধানে কাজ করে ৷ বর্তমানে বিশ্বের সমস্যা বহুল দেশ হল মায়ানমার, সিরিয়া, ইরাক, প্যালেস্টাইন এছাড়াও সন্ত্রাস, দারিদ্রতা ,দুর্নীতি, জলবায়ু সমস্যারও সমাধান করা ৷
জাতিসংঘের দায়িত্ব ও কর্তব্য ৷
আমরা যদি গ্লোবাল ভিলেজের সমস্যা সমাধানে ভুমিকা রাখতে চাই, তাহলে কিভাবে লবিং করতে হবে তা শিখতে হবে ৷ আমেরিকান কংগ্রেসে লবিং করে সিকিউরিটি কাউন্সিলে প্রভাব বিস্তার করে সমস্যার সমাধান করা যায়, সে বিষয়ে আমাদের জ্ঞান লাভ করতে হবে ৷ আমি গত ৪১ বছর ধরে গবেষণা করে আমেরিকান কংগ্রেসে হোয়াইট হাউসে ও জাতিসংঘের লবিং পদ্ধতি সম্বন্ধে বিশেষ কিছু দিকে অবগত হয়েছি ৷ জাতিসংঘে ১৯৯২-১৯৯৬ সাল পর্যন্ত চার বছর এন জি ও (NGO) প্রতিনিধি ছিলাম ৷
ফলে আমি আন্তর্জাতিক লেখক ফোরামের মাধ্যমে কমিটি গঠন করতে ইচ্ছুক ৷ যাঁরা এই কমিটিতে অনারারি সদস্য হিসেবে থাকতে উৎসাহিত তাঁরা একটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও দশ/বারো লাইনের মধ্যে সংক্ষিপ্ত পরিচয় আমার মেসেঞ্জারে অনুগ্রহ করে পাঠিয়ে দেবেন ৷ তাদের দায়িত্ব হবে বাংলাদেশের প্রধান সমস্যা দুর্নীতি দমন, দারিদ্র দূরীকরণ,সন্ত্রাস দমন ও রাজনৈতিক সম্প্রীতি সৃষ্টির জন্য কবিতা ও গান লিখে নাগরিকদের সচেতন করা ও আইন প্রণেতাদের সাথে কথা বলে সমস্যা সমাধানে সম্মুখপানে অগ্রসর হওয়া ৷
আপনি যদি আপনার দেশের সমস্যা সমাধানে ভুমিকা রাখতে পারেন, তাহলে আপনি ‘গ্লোবাল ভিলেজে’র সমস্যা সমাধানে ভুমিকা রাখলেন ৷ আমাদের জন্মভূমি বাংলাদেশও গ্লোবাল ভিলেজের একটি দেশ ৷ যাঁরা সদস্য হবেন, তাদের অবশ্যই আত্নমর্যাদাশীল লোক হতে হবে ৷ পরনির্ভশীলদের স্থান এখানে নেই ৷ আমাদের কমিটির সদস্যদের ফেসবুকের মাধ্যমে আমি তথ্য সরবরাহ করবো ৷ মহান আল্লাহ আমাদের সহায় হোন ৷
-হাসান আলী,কনভেনার গ্লোবাল ভিলেজ লিডারশীপ কমিটি ও প্রেসিডেন্ট অর্গানাইজেশন অব বাংলাদেশী আমেরিকান্স ৷

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।