ভূমিকম্পের সময় শিশুদের বাঁচাতে নার্সরা যা করলেন - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, সকাল ৯:৫৯, ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

ভূমিকম্পের সময় শিশুদের বাঁচাতে নার্সরা যা করলেন

newsup
প্রকাশিত এপ্রিল ৬, ২০২৪
ভূমিকম্পের সময় শিশুদের বাঁচাতে নার্সরা যা করলেন

নিউজ ডেস্ক: গত বুধবার তাইওয়ানে শক্তিশালী ভূমিকম্প সংঘটিত হয়। দেশটির ২৫ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্প ছিল এটি।

৭ দশমিক ৪ মাত্রার এ ভূমিকম্পে দেশটিতে অন্তত ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছেন সাত শতাধিক মানুষ। নিখোঁজ রয়েছেন আরও ১৫০ জন।

ভূমিকম্প হওয়ার সময় অনেকে ভিডিও করেছেন। ভূমিকম্পের সময়কার কিছু দৃশ্য প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ সংবাদ সংস্থা বিবিসি। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ভূমিকম্পে দোলনার মতো দুলছে সুইমিংপুলের পানি। এছাড়া বিভিন্ন ভবন ও দোকানপাটের মধ্যেও ভূমিকম্পের প্রভাব দেখা গেছে ওই ভিডিওতে। এ সময় ভয়ে তটস্থ হয়ে পড়েন সেখানে থাকা মানুষ।

ভূমিকম্পনের সময়ে আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি হওয়ার পর প্রত্যেকেই নিজ নিজ প্রাণ বাঁচাতে নিরাপদ স্থানে ছুটে চলে যাচ্ছিলেন। হাসপাতালের নার্সরাও দৌড়াদৌড়ি করছিলেন। এত কিছুর মধ্যে দুইজন নার্স কিন্তু সম্পূর্ণভাবে বাচ্চাদের খেয়াল রেখেছিলেন। তারই ভিডিও এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।

ভাইরাল সেই ভিডিওতে দেখা যায় ভূমিকম্পের সময় সবাই পালিয়ে গেলেও সদ্যজাত বাচ্চাদের কেবিনে দৌড়ে এসেছিলেন চারজন নার্স। যদিও পরবর্তীতে ভূমিকম্পের মাত্রা আরও তীব্র হতে দেখে তৃতীয়জনও চলে গিয়েছিলেন। কিন্তু বাকি তিনজন নিজেদের জায়গা থেকে কিন্তু একটুও সরেননি। শিশুদের বাঁচাতে নিজেদের সমস্ত শক্তি প্রয়োগ করে ধরে রেখেছিলেন তারা।

তাইওয়ানের রাজধানী তাইপেইয়ের একটি হাসপাতালের সিসিটিভিতে এই ভিডিও ধরা পড়ে। সেই ভিডিও দেখে তাদের বিশ্ববাসী ধন্যবাদ দিচ্ছে।

সেই নার্সরা ১২ জন শিশুকে দোলনা ধরে স্থির করার চেষ্টা করেছিলেন। কাঁপুনি বন্ধ হওয়া পর্যন্ত বাচ্চাদের ধরে রেখেছিলেন তারা। এই নার্সদের একজন সিএনএকে বলেছেন, তিনি এবং তার সহকর্মীরা কেবল নিজেদের দায়িত্ব পালন করেছেন। তারা যা করেছেন তা কর্তব্য। শিশুদের সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে, একজন নার্স বলেছিলেন যে তিনি আশা করেন যে এই শিশুরাও বড় হয়ে অন্যদের প্রতি সদয় হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।