পশ্চিম তীরে চার ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীর বিরুদ্ধে কানাডার নিষেধাজ্ঞা - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, সকাল ১১:২৭, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

পশ্চিম তীরে চার ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীর বিরুদ্ধে কানাডার নিষেধাজ্ঞা

newsup
প্রকাশিত মে ২১, ২০২৪
পশ্চিম তীরে চার ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীর বিরুদ্ধে কানাডার নিষেধাজ্ঞা

ডেস্ক রিপোর্ট: দখলকৃত পশ্চিম তীরে চার ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছে কানাডা সরকার। গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের চলমান যুদ্ধে ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে সহিংসতার ঘটনা বেড়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এমন নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার কানাডার বৈশ্বিক মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ‘সহিংস ও অস্থিতিশীল’ কর্মকাণ্ডের অভিযোগে প্রথমবারের মতো তারা ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে। মন্ত্রণালয় বলেছে, চরমপন্থী ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীদের আক্রমণের বিষয়টি অঞ্চলটিতে দীর্ঘদিন ধরে উত্তেজনা ও সংঘাতের একটি কারণ হয়ে উঠেছে। সাম্প্রতিক মাসগুলোয় এমন হামলার সংখ্যা উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে। এতে ফিলিস্তিনিদের মানবাধিকার ও দুই রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধান প্রচেষ্টা ক্ষুণ্ন হচ্ছে এবং আঞ্চলিক নিরাপত্তার ক্ষেত্রে উল্লেখজনক ঝুঁকি তৈরি করছে।

যাঁদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, তাঁরা হলেন, ডেভিড চাই চাসদাই, ইয়িনোন লেভি, জাভি বার ইয়োসেফ এবং মোশে শারভিত। মন্ত্রণালয় বলছে, তাঁরা সবাই সরাসরি কিংবা পরোক্ষভাবে ফিলিস্তিনের বেসামরিক নাগরিকের বিরুদ্ধে সহিংসতা ও সম্পদহানির সঙ্গে জড়িত। পশ্চিমা দেশগুলো দীর্ঘদিন ধরে দ্বিরাষ্ট্রভিত্তিক সমাধানের পক্ষে কথা বলে এলেও পশ্চিম তীরে ধারাবাহিকভাবে ইসরায়েলি বসতি স্থাপনের ব্যাপারে তাদের খুব একটা ব্যবস্থা নিতে দেখা যায় না। এভাবে বসতি স্থাপন করাটা আন্তর্জাতিক আইনের পরিপন্থী। তবে কানাডার নিষেধাজ্ঞা ঘোষণার মধ্য দিয়ে ইঙ্গিত মিলছে যে বসতি স্থাপনকারীদের হামলার ঘটনা কমাতে ইসরায়েলের অস্বীকৃতির কারণে পশ্চিমা দেশগুলোর ধৈর্যচ্যুতি ঘটছে।

এর আগে গত ফেব্রুয়ারিতে চাসদাই, লেভিসহ কয়েকজন ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।